আলমগীর মানিক,রাঙামাটি :

রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মিশন চাকমা নামে এক চাকমা যুবককে খুন করেছে তারই স্বজাতীয় প্রতিপক্ষ আঞ্চলিক দলের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে দশটার সময় উপজেলার বঙ্গলতলী এলাকার বড়ধন ফরেষ্ট অফিসের পাশ্বে এই ঘটনা ঘটায় সন্ত্রাসীরা। এই ঘটনার খবর পেয়ে বাঘাইহাট সেনাজোন ও বাঘাইছড়ির থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধারে ঘটনাস্থলে গিয়েছেন বলে  জানা গেছে। নিহত মিশন চাকমা বাঘাইছড়ি উপজেলাধীন কেরেঙ্গাতলী এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা কান্তিময় চাকমার সন্তান। সে সংস্কারপন্থী জেএসএস (এমএন লারমা) এর সমর্থক বলে স্থানীয়রা নিশ্চিত করেছে।

বাঘাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আমির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, নিহতের লাশ উদ্ধারে ঘটনাস্থলে পুলিশ গেছে। মরদেহ উদ্ধার পরবর্তী ময়নাতদন্তের জন্যে লাশ খাগড়াছড়ির হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে নিরাপত্তা বাহিনী দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, পার্বত্য চুক্তি বিরোধী সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট ইউপিডিএফ এর সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা-ই মিশন চাকমাকে দোকান থেকে বাসায় ফেরার পথে পেছন থেকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নির্মমভাবে নিহত করেছে।

এদিকে এই হত্যাকান্ড পরিকল্পিত উল্লেখ করে সংস্কারপন্থী জেএসএস এর এক নেতা জানিয়েছেন, এটি ইউপিডিএফ এর সন্ত্রাসীরাই করেছে। তাদের কাছে পাহাড়ের মানুষের জীবনের কোনো মূল্য নেই। নিজেদের আধিপত্য টিকিয়ে রাখতে পাহাড়ের নীরিহ সাধারণ মানুষজনকে নির্বিচারে হত্যা করছে।

অভিযোগের ব্যাপারে বক্তব্য জানতে বুধবার দিবাগত রাত বারোটার সময় ইউপিডিএফ এর একাধিক নেতার মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও সংযোগ স্থাপন করা সম্ভব হয়নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •