এম. এ আজিজ রাসেল :

ত্যাগের মহিমা ও ধর্মীয় ভাবগাম্বীর্যতার মধ্য দিয়ে কক্সবাজারে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল আযহা। বুধবার (২২ আগষ্ট) সকাল ৮টায় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয় ঈদের প্রধান জামাত। নামাজের ইমামতি করেন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতীব মাওলানা মাহমুদুল হক। নামাজের আগে সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নবনির্বাচিত পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে কর্ণেল (অব.) ফোরকান আহমেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (মানব সম্পদ উন্নয়ন) মাসুদুর রহমান মোল্লা, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান, সিনিয়র সহকারি কমিশনার সাখাওয়াত হোসেন, রেজাউল করিম, আবু হাসনাত, সহকারি কমিশনার মো. খোরশেদ আলম চৌধুরী ও কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন কবির।

নামাজে প্রায় ১৫ হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লী অংশগ্রহণ করেন। শেষে মুসলিম উম্মাহ, দেশ ও জাতির শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়। নামাজ শেষে অনেকেই ছুটে যায় কবরস্থানে। সেখানে কবর জিয়ারত শেষে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় সাধ্যমতো পশু কোরবানী দেয়া হয়।

এছাড়া কক্সবাজার পৌরসভার উদ্যোগে এবারও ৬১টি নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানির পশু জবাই করা হয়।

এদিকে ঈদের প্রথমদিনে কক্সবাজারে তেমন কোন পর্যটক চোখে পড়েনি। সৈকত ও হোটেল-মোটেলেও দেখা যায়নি পর্যটকদের ভীড়। পর্যটন স্পটগুলো ছিল শুধু মাত্র স্থানীয়দের বিনোদনের প্রধান উৎস। তবে ঈদের দ্বিতীয় দিনে আশানুরূপ পর্যটকের সমাগম হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •