সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
কক্সবাজারবাসীকে পবিত্র ঈদ-উল আয্হার শুভেচ্ছা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও কক্সবাজার জেলা আমীর মাওলানা মোস্তাফিজুর রহমান ও সেক্রেটারি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান জিএম রহিমুল্লাহ। তারা বলেছেন, ত্যাগের মহান শিক্ষা নিয়ে পবিত্র ঈদু-উল-আয্হা আমাদের মাঝে সমাগত।
হযরত ইবরাহীম আ. মহান আল্লাহর রাহে নিজের প্রিয়তম পুত্রকে কোরবানী দেওয়ার স্মৃতিকে অমলিন করে রাখতে মুসলিম মিল্লাতের ওপর আল্লাহ রাব্বুল আলামীন এই কোবরানীকে ওয়াজিব করে দিয়েছেন। মুসলিম উম্মাহ এই দিনে পশু কোরবানীর দিয়ে মনের পশুত্ব দূরীকরণের মাধ্যমে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করে তাওহীদি সংস্কৃতির আনন্দে উদ্বেলিত হয়ে ওঠে। আমরা মুসলিম উম্মাহর এই ত্যাগময় আনন্দক্ষণে জেলাবাসীকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক।
নেতৃদ্বয় বলেন, বিশ্বব্যাপী আজ ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর দুর্দিন চলছে। নির্যাতিত, বঞ্চিত অসহায় বনি আদমের আহাজারিতে আজ আকাশ বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে। সব থেকেও যেন কিছু নেই এই অবস্থায় মুসলিম উম্মাহ দিনাতিপাত করছে। আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশও আজ দুঃশাসন আর দুর্নীতিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে। শাসকগোষ্ঠীর দমন-পীড়নে দেশবাসী ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। ন্যায় ও ইনসাফপূর্ণ কাজ ও কথা বললেই রাষ্ট্রীয় রোষানলে পড়তে হচ্ছে। চাকুরী ও নিরাপত্তা লাভের অধিকারের কথা বলাও আজ বাংলাদেশে অপরাধ বলে গণ্য হচ্ছে। এহেন পরিস্থিতিতে ঈদুল আয্হার ত্যাগ ও কোবানীর আদর্শে উজ্জীবিত হওয়ার কোন বিকল্প নেই। আমরা ঈদুল আয্হার ত্যাগ ও কুরবানীর শিক্ষাকে ধারণ করে একটি শোষণমুক্ত, বৈষম্যহীন এবং শান্তি ও নিরাপত্তার সহিত বাসযোগ্য বাংলাদেশ বির্নিমাণে এগিয়ে আসার জন্য জেলাবাসীর প্রতি আহবান জানাচ্ছি। পাশাপাশি সরকারের রোষানলের শিকার হয়ে কারাগারের অন্ধ প্রকোষ্টে বন্দি কক্্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জননন্দিত জননেতা হামিদুর রহমান আজাদসহ সকল নেতাকর্মীর মুক্তি দাবি করছি। মহান আল্লাহর কাছে আমরা দোয়া করি যেন পবিত্র ঈদুল আয্হা আমাদের সকলের জন্য কল্যাণ, আনন্দ ও বরকত বয়ে আনুক।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •