ঈদগাঁওর গরুর হালদা সড়কের কাঠের সাঁকোটির করুণ দশা

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও:
কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁওর পাল পাড়া হয়ে ভাদীতলা, শিয়াপাড়াসহ ভোমরিয়া ঘোনা যাতায়াতের একমাত্র গরুর হালদা সড়কের ঝরার্জীণ কাঠের সাঁকোটি দীর্ঘ পনের বছর ধরে সংস্কারবিহীন অবস্থায় পড়ে থাকায়, হতাশ হয়ে পড়েছেন বৃহত্তর এলাকার জনগোষ্টি। সে দাবী আজ অবদিও পূূর্ণ হয়নি। এমনকি এই সাঁকো দিয়ে ঝুকিঁ নিয়ে পারাপার করছে শত শত নারী পুরুষসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের অসংখ্য শিক্ষার্থীরা। কাঠের খুটিগুলো পানিতে ভিজে নরম হয়ে লঙ্কর ঝঙ্কর হয়ে প্রায় ভেঙ্গে যাওয়ার অবস্থা বললেই চলে। এতে করে বহুকাল যাবত দেখার কেউ না থাকায় বিপাকে পড়েছে অসহায় এলাকার লোকজন। বর্তমানে এ সাঁকো দিয়ে ৪/৫ হাজার মানুষের চলাচল এখন মরন ফাঁদে পরিনত হয়ে পড়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে স্কুল, মাদরাসাগামী শিক্ষার্থীসহ সাধারন লোকজনের পথচলা প্রতিনিয়ত। স্থানীয়দের চলার একমাত্র ভরসা গরুর হালদা সড়কটির মাঝপথে বেহাল দশার সৃষ্টি হয়েছে। বিগত দুয়েক বছর পূর্বেই উজান থেকে নেমে আসা বন্যার পানিতে সড়ক টি ভেঙ্গে গেছে। সে থেকে চলাফেরা করতে কষ্ট পোহাতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে। তবে এলাকার স্থানীয়দের ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায় একটি কাঠের সেতু নির্মান করলেও তা দিন দিন ঝুঁকির দিকে ধাবিত হচ্ছে। যেকোন মুহুর্তে কাঠের সাঁকোটি ভেঙ্গে যেতে পারে। প্রতি বর্ষা মৌসুমে অসহায় লোক জন চরম আতংকে থাকে। বর্তমানেও স্বাভাবিক ভাবে পারাপার অনেকটা ঝুঁকি হয়ে পড়েছে স্থানীয়দের মতে। তবে রিকসা চালক আবু তাহের জানান, কাঠের সাঁকোটি ব্রীজ আকারে নির্মাণ না হওয়ার চলাচলে অনেকটি অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। শিয়াপাড়ার কয়েকজন দিনমজুর রুপালী সৈকতকে জানান,দীর্ঘ পনের বছর ধরে এ ঝুকিঁপূর্ণ সাঁকো দিয়ে চলাফেরা করে যাচ্ছে। বিগত দুই নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও বর্তমান জন প্রতিনিধির শাসনামলে ও এ কাঠের সাঁকোটি ব্রীজে রুপান্তরিত হচ্ছেনা। কবে হবে সে আশায় বুক বেধে বসে আছে এলাকার মানুষজন। পালপাড়ার সুপন জানান, দৈনিক শত শত মানুষ চলাচল করছে এ ভাঙ্গা সাঁকো পার হয়ে। সাঁকোটি দ্রুত ব্রীজ নির্মান এখন সময়ের গন দাবীতে পরিনত হয়ে পড়েছে। এছাড়াও রোগীরা যাতায়াতে নিদারুন কষ্ট পাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সুনজর একান্ত জরুরী বলে মনে করেন এলাকাবাসী। তবে স্থানীয়দের দাবী, অতি সত্ত্বর ভেঙে যাওয়া সড়কে একটি টেকসই ব্রীজ নির্মান করে জন ও যান চলাচলে সূর্বন সুযোগ সৃষ্টি করা হোক।

সর্বশেষ সংবাদ

কাশ্মিরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ সাবেক সেনা কর্মকর্তার

‘ডেঙ্গু মোকাবিলায় আগামী সপ্তাহটা চ্যালেঞ্জিং’

বৃহস্পতিবার থেকে বন্ধ হচ্ছে ফেসবুক গ্রুপ চ্যাট

কাশ্মীর নিয়ে মোদির চতুর্মুখী নীলনকশা

খালেদার মুক্তিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে যাবে বিএনপি

কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন: পদ প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ

হাজিদের প্রথম ফিরতি ফ্লাইটে ৪১৮ যাত্রী দেশে পৌঁছেছে

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে প্রস্তুত কেরণতলী ঘাট

নয়া জমানার নয়া হেয়ার স্টাইল !

টেকপাড়ায় সরকারী কর্মকর্তার বসতবাড়িতে হামলার অভিযোগ

লুৎফুর রহমানের মৃত্যুতে ব্লাড ডোনার’স সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সফি উল করিমের শোক

ইসলামপুরের যুবলীগ কর্মী লুৎফুর রহমান আর বেঁচে নেই, সকাল ১০ টায় জানাজা

মক্কায় জসিম উদ্দীন মিয়াজী স্মরণে দোয়া মাহফিল

মার্শাল চেয়ারম্যান ও তোফায়েল বে অফ বেঙ্গল ক্রুজ লাইন এসোসিয়েট এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নির্বাচিত

সৌদিআরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

সৌদি তেলক্ষেত্রে ড্রোন হামলা

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নির্যাতন তদন্ত দল ঢাকায়

ভারুয়াখালী ছোট চৌধুরীপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ ও সমাজ পরিচালনা কমিটি গঠিত

মহেশখালীতে জমি দখলকে কেন্দ্র করে যুবক আহত

ইসলামী ব্যাংকের পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন