মোঃ নিজাম উদ্দিন, চকরিয়া:
চকরিয়ায় দিনদুপুরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে নগদ টাকা লুট হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় আহত হয় দোকান মালিক উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাষ্টার বশির আহমদ (৫৫)সহ তার ছেলে রাসেল কায়ছার (২৮)। তাদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হলেও দোকান কর্মচারী আলীম উদ্দিন (৩০)এর আঘাত গুরুতর হওয়ায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।
শনিবার সকাল ১১টার দিকে খুটাখালী বাজারের পদ্মা ওয়েল কোম্পানির এজেন্ট মেসার্স রুনা এন্টারপ্রাইজে এ ঘটনাটি ঘটে। অভিযোগে জানা গেছে, খুটাখালী (৫নং ওয়ার্ড) দক্ষিণ পাড়ার মৃত মাষ্টার মোক্তার আহমদের ছেলে খালেদ মোর্শেদ হিরুর নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত শনিবার সকালে রুনা এন্টারপ্রাইজ তেলের দোকানে অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় দোকান মালিক, ম্যানেজার ও কর্মচারীকে মারধর করে ক্যাশবক্স থেকে নগদ সাড়ে ৪ লক্ষাধিক টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এর আগেরদিন রাত দশটার দিকে রুনা এন্টারপ্রাইজের মালিক তার লবণ মাঠের জমি বন্ধক বাবদ নগদ চার লক্ষ টাকা ও তেল বিক্রি বাবদ প্রায় এক লক্ষ টাকা ক্যাশ বক্সে রক্ষিত ছিল।
এদিকে প্রকাশ্যে ডাকাতি, লুটপাটকারী, ওপেন সিক্রেট মাদক ব্যবসায়ী ‘হিরু বাহিনি’র প্রধান হিরুকে আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানান রুনা এন্টারপ্রাইজের মালিক মাষ্টার বশির আহমদের পুত্র খুটাখালী ইউপি সদস্য ওয়াসিম আকরাম। ঘটনাকালে খুটাখালী বাজারে ব্যাবসায়ীদের মাঝে বড় ধরনের সংঘর্ষের আশংকা দেখা দিলে থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুর রহমান এ ব্যাপারে জানান, শনিবার সকালে বাজারের একটি দোকানে ঘটনার খবর পেয়ে ওই এলাকার মেম্বারকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছিল। ঘটনার পর তদন্তে আসা চকরিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোঃ ইছমাইল জানায়, বিষয়টির জটিলতা থাকায় বিস্তারিত জানা যায়নি। এর জন্য আরো তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বকতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানায়, উভয়ের টাকা পয়সার লেনদেনের হিসাবনিকাশ ছিল বলে জানতে পারি। একটি অভিযোগ থানায় জমা দিয়েছে। বিষয়টি আরো খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •