নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা না পেয়ে একমাস পাঁচদিন বয়সের এক কন্যা শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মারা যাওয়া শিশু টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপের শাহ আলমের কন্যা। গতকাল শনিবার সকাল ১১টার দিকে এই শিশু মারা যায়।

শাহ আলম অভিযোগ করেন, ঠান্ডাজনিত কারণে তার কন্যা খতিজা অসুস্থ হয়ে পড়লে শনিবার (১৮ আগস্ট) সকাল ৮টায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনেন। জরুরী বিভাগে দেখানোর পর শিশুকে ভর্তি দেয়া হয়। ১০টার দিকে শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসক আসেন। এর আগে থেকে শিশুটি ছটফট করতে থাকে। রোগী দেখতে আসার সাথে সাথে চিকিৎসকে ডাকেন শাহ আলম। আধা ঘন্টার মধ্যে তিনবার চিকিৎসককে কক্ষে গিয়ে আকুতি করে ডাকেন। কিন্তু আসবেন আসবেন করেও শেষ পর্যন্ত তিনি দেখতে আসেননি। শেষে অবস্থা আরো খারাপ হলে শাহ আলম নিজেই শিশুটিকে নিয়ে চিকিৎসকের কক্ষে যান। সেখানে গেলে শিশুটিকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

শাহ আলম বলেন, মেয়ের করুণ অবস্থা দেখে চিকিৎসককে অনেক আকুতি করে ডেকেছি। তিনবার ডেকেও তিনি শেষ পর্যন্ত আসেননি। তখন তিনি ইন্টার্নি চিকিৎসকের সাথে আলাপে মত্ত ছিলো। শেষ পর্যন্ত আমি মেয়েটিকে হারালাম।

তিনি বলেন, আমার মেয়েকে আর কোনোদিন ফিরে পাবো না। আমার মতো আর কারো যাতে তার আদরের ধনকে চিকিৎসা না পেয়ে মারা যেতে না হয় তার জন্য ওই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘ওই সময় কোন চিকিৎসক দায়িত্বে ছিলেন তা খোঁজ নেবো। অভিযোগ তদন্ত করা করা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •