মিয়ানমারের ৬ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

ডেস্ক নিউজ:

রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের অপরাধে মিয়ানমারের ছয়জন শীর্ষ সামরিক ও পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের রাজস্ব বিভাগ।

গ্লোবাল মাগ্নিতস্কি অ্যাক্ট নামের আইনের অধীনে আরোপিত এই নিষেধাজ্ঞার ফলে এসব কর্মকর্তার যুক্তরাষ্ট্রে থাকা স্থাবর-অস্থাবর সব সম্পদ জব্দ করা হবে। এ ছাড়া এ ছয়জনের সঙ্গে মার্কিন নাগরিকদের সব ধরনের আর্থিক লেনদেনও নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞা আরোপিত ব্যক্তিদের চারজন মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কমান্ডার, বাকি দুজন বর্ডার পুলিশ কমান্ডার।

নিষেধাজ্ঞা ঘোষণার সময় রাজস্ব বিভাগের উপসহকারী মন্ত্রী সিগাল মানডেলকার বলেন, মিয়ানমারের নিরাপত্তার বাহিনীর সদস্যরা বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিসত্তার লোকজনের বিরুদ্ধে এক সামরিক নিধনযজ্ঞ পরিচালনা করেছে। শুধু রোহিঙ্গা নয়, কাচিন ও শান রাজ্যের সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধেও এই সহিংসতা পরিচালনা করা হয়। তিনি জোর দিয়ে বলেন, এই ভয়াবহ নির্যাতনের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিচারপ্রক্রিয়ার মুখোমুখি হতেই হবে।

এদিকে আগামী সপ্তাহের গোড়ার দিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংসতার ওপর এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করবেন বলে জানা গেছে। ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর হামলার এক বছর উপলক্ষে প্রস্তুত এই প্রতিবেদনে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে যে পরিকল্পিত ও সমন্বিত সামরিক আক্রমণ চালানো হয়, সেই বিবরণ থাকবে বলে জানা গেছে। ওয়েব পত্রিকা পলিটিকো জানিয়েছে, এই প্রতিবেদনে মিয়ানমার বাহিনীর কার্যকলাপকে গণহত্যা (জেনোসাইড), না জাতিহত্যা (এথনিক ক্লেনজিং) বলা হবে, সে বিষয়টি এখনো অমীমাংসিত রয়ে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ধর্মীয় স্বাধীনতাবিষয়ক ভ্রাম্যমাণ রাষ্ট্রদূত সাম ব্রাউনব্যাক মিয়ানমারে যা ঘটেছে, তাকে গণহত্যা নামে অভিহিত করতে চান। কিন্তু এ ব্যাপারে স্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তারা দ্বিধায় রয়েছেন, কারণ গণহত্যার ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইনে হস্তক্ষেপমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার অনুমোদন রয়েছে। শুধু জাতিহত্যা বলা হলে তেমন কোনো ব্যবস্থা নেওয়ার বাধ্যবাধকতা নেই।

সর্বশেষ সংবাদ

সমাজসেবায় মাদার তেরেসা স্বর্ণ পদক পেলেন কামরুল হাসান

পরিচালকের যৌনতার অভিযোগে প্রিন্সিপ্যালের পদত্যাগ

ফেঁসে গেলো খরুলিয়ার ভূমিদস্যু শফিক, ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বসতভিটা রক্ষার চেষ্টাই কাল হলো তাদের

বর্তমান শাসনামলে খেলাপি ঋণ সবচেয়ে বেশি বেড়েছে: মেনন

সকল মানুষের কাছে চিরকাল স্মরণীয় হয়ে থাকবেন কবি আল মাহমুদ

নুসরাত হত্যাকারিদের দ্রুত শাস্তি দাবী পূজা উদযাপন পরিষদের

খরুলিয়ার জমি সংক্রান্ত বিরোধের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এমপি কমল

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এনজিও কর্মী নিহত

পেকুয়ায় কাছারীমোড়া সাহিত্যকেন্দ্রের উদ্বোধন

বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে -ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

শৃংখলা মেনে চললে যানজটের ও দুর্ঘটনাও কমে আসবে – ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার

শ্রীলঙ্কা হামলায় আইএসের বুনো উল্লাস

শ্রীলঙ্কায় হামলার পেছনে ‘ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত’

চট্টগ্রামে আসামি ধরতে গিয়ে গোলাগুলিতে আহত ৬ পুলিশ

মক্কা থেকে হারিয়ে গেল কক্সবাজারের সাদ

আল্লাহর কসম খেয়ে বলছি মাদকের সাথে আমি জড়িত নই- দিদার বলী

জিন তাড়ানোর বাহানায় যৌন সম্পর্ক গড়তো সেই পিয়ার

নুসরাত হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত রুহুল আমিনের উত্থানের নেপথ্যে

বেনাপোল বন্দরের নির্মান কাজের চুরি যাওয়া রড উদ্ধার