ফারুক আহমদ, উখিয়া:

উখিয়ায় মানব পাচার ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলার আসামী কামাল উদ্দিনের অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার হয়ে গ্রামের নিরহ এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তার নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী শত শত বিভিন্ন প্রজাতির কচি চারা গাছ কর্তন সহ জায়গা জবর দখল করে নিলেও কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছে না। ভুক্তভোগীরা এ ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

জানা যায়, উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের উত্তর পুকুরিয়া গ্রামের শহর আলীর পুত্র কামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে থানায় মানব পাচারের অভিযোগে মামলা রয়েছে। এছাড়াও নাশকতা ঘটনায় জড়িত থাকায় বিশেষ ক্ষমতা আইনেও মামলা আছে।

গ্রামবাসীরা জানান,বহু মামলার আসামী কামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে এলাকায় একটি বাহিনী রয়েছে। সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নানা অপরাধ মূলক অপতৎপরতায় নিরহ জনগন তার কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। অপরের জায়গা জবর দখল ও হুমকি- ধমকির কারনে কেউ প্রতিবাদ করতে মুখ খুলার সাহস পায় না।

অভিযোগে প্রকাশ, পালং আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক ও ওই এলাকার প্রবীণ শিক্ষানুরাগী মৌলভী অছিউর রহমানের ৪০ বছরের দখলীয় জায়গা জবর দখল করে নিয়েছে কামাল বাহিনী। দেশীয় অস্ত্র সষস্ত্র নিয়ে বিভিন্ন প্রজাতির ৩/৪ শত চারা গাছ নির্বিচারে কর্তন করে।

অসহায় শিক্ষক মৌলভী অছিউর রহমান সাংবাদিকদেরকে অভিযোগ করে বলেন, কামাল, জামাল ও জসিম সহ ১০/১২ জন দৃর্বৃত্তরা আমার দখলীয় ৩০ শতক জায়গা জবর দখলের পাশাপাশি অসংখ্য গাছের চারা নিধন করেছে।

এ ব্যাপারে,আসামী কামাল উদ্দিন সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং- ১৫/২০১৭ ইং। ধারা ১৪৩, ৪৪৭, ৩২৩, ৪২৭ ও ৫০৬ দ: বি।

গুরতর অভিযোগ উঠেছে, কামাল বাহিনীর অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে তাদেরকে প্রাণ নাশের হুমকি সহ গ্রাম ছাড়ার হুংকার দেয়। এলাকার নিরহ জনগন এ ব্যাপারে পুর্লিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •