পেকুয়ায় পৃথক পৃথক হামলায় স্কুল ছাত্রসহ আহত ৩

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় পৃথক পৃথক দূর্বৃত্তের হামলায় স্কুল ছাত্রসহ ৩জন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, রাজাখালী ইউনিয়নের বখশিয়া ঘোনা এলাকার নুরুল আলমের স্ত্রী হামিদা বেগম(৫০),দশের ঘোনা এলাকার মৃত এজার মিয়ার পুত্র বাদশা মিয়া(৫০), বারবাকিয়া ইউনিয়নের বোধামাঝির ঘোনা এলাকার রশিদ আহমদের পুত্র এমএইচ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেনীর ছাত্র মোশারফ আলী। রবিবার আর সোমবার রাজাখালী ও বারবাকিয়া ইউনিয়নে পৃথক পৃথক হামলার ঘটনাগুলো ঘটে। বাড়ির লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিচ্ছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের সাথে কথা বলে বক্তব্য নেন পেকুয়া থানার এসআই বিপুল চন্দ্র রায়।

আহত হামিদা বেগম বলেন, আমার ছেলে হেলাল উদ্দিনকে গত ১মাস আগে মারধর গুরুতর আহত করে একই এলাকার রেজাউল করিম প্রকাশ কালু, মনছুর আলম, মো: বানচুসহ আরো কয়েকজন। আমার ছেলে সাগরে জাল বসাতে গিয়ে তাদেরকে ১লাখ টাকা চাঁদা না দেওয়ায় তারা হামলা করেছিল। হামলার পর আদালতে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। মামলার পর থেকে সাগরে পড়ে থাকা তার জালগুলো নষ্ট হয়ে যাওয়ায় রবিবার সকাল ১১টার দিকে আমি জালগুলো নিয়ে আসার সময় রেজাউল করিমের বাড়ির পাশের্^ আসামাত্র তিনি এবং মনছুর, বানচুসহ আরো কয়েকজন মিলে মারধর করে দাঁত ফেলে দিয়ে ৪০হাজার টাকার জাল ছিনিয়ে নেয়। ওই সময় সংঘবদ্ধ দূর্বৃত্তরা আমার একটি রকেট ও স্বর্ণের কানফুলও ছিনিয়ে নেয়। স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে পেকুয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করায়।

আহত বাদশা মিয়া বলেন, আমি লবণচাষী। সোমবার সকাল ৮টার দিকে লবণ বিক্রির ৫০হাজার টাকা নিয়ে দশেরঘোনা হয়ে পেকুয়া বাজারে আসছিলাম। বারবাকিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম জালিয়াকাটা আসা মাত্র পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ওই এলাকার মালেকা বেগম, দিলোয়ারা বেগম, পাখি ও রবিউল নামের এক যুবক আমাকে মারধর করে আহত করে। একপর্যায়ে আমার পকেটে থাকা ৫০হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয় তারা। পরে ওই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

আহত স্কুল ছাত্র মোশারফ আলী বলেন, রবিবার বিকেল ৪টার দিকে স্কুল শেষ করে বাড়ি ফিরছিলাম। পানি পান করতে মকসুদের দোকানে যায়। ওই সময় একই এলাকার মনিয়্যার ছেলে মো: রাশেদ আমার বই আর কথা ছিড়ে ফেলে। আমি বই ছিড়ে ফেলার কারণ জানতে চাওয়ায় মাথায় আঘাত করে আহত করে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে পেকুয়া থানার এসআই বিপুল চন্দ্র রায় বলেন, মৌখিক ও লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে আমি আহতেরকে হাসপাতালে দেখতে যায়। হামিদা বেগমের অভিযোগের তদন্ত আমি করতেছি। আর বাদশা ও স্কুল ছাত্র মোশারফ আলীর ব্যাপারে তাদের পরিবার মৌখিকভাবে জানিয়েছে। লিখিত অভিযোগ ফেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

পেকুয়ায় বৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম

আনিস উল্লাহ টেকনাফ উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত

চকরিয়া উপজেলা যুবদলের কমিটি বিলুপ্ত ও আহবায়ক কমিটি গঠিত

জেলা আ.লীগের জরুরি সভা শুক্রবার

চবি উপাচার্যের সাথে হিস্ট্রি ক্লাবের সাক্ষাৎ

পেকুয়ায় কুপে আহত ব্যবসায়ী হাসপাতালে যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে

সদর-রামু আসনে নজিবুল ইসলামকে নৌকার একক প্রার্থী ঘোষণা পৌর আ. লীগের

যোগাযোগ মন্ত্রীর আগমনে ঈদগাঁওতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

রাষ্ট্রপতির প্রতি আহবান: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে স্বাক্ষর না সংসদে ফেরৎ পাঠান

উত্তপ্ত চট্টগ্রাম কলেজ, সক্রিয় বিবদমান তিনটি গ্রুপ

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠে আন্ত:ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হোপ ফাউন্ডেশনের ৪০শয্যার হসপিটাল উদ্বোধন

পৌর কাউন্সিলরসহ ৪ মাদক কারবারির বাড়িতে অভিযান, নারীসহ দুই জনের সাজা

কক্সবাজার সিটি কলেজে পদার্থ বিজ্ঞান ও প্রাণ-রসায়ন অনার্স অধিভুক্তি লাভ

সাবেক এমপি মরহুম এড. খালেকুজ্জামান স্মরণে সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচী

কুতুবদিয়ায় অস্ত্রসহ আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৩ সদস্য আটক

কক্সবাজারে ‘শেখ হাসিনার উন্নয়নের গল্প’ প্রচারে ছাত্রনেতা ইশতিয়াক

লামায় কারিতাস টেকনিক্যাল ট্রেনিং কোর্সের সনদ বিতরণ

গোলদিঘীর সৌন্দর্য্য বর্ধন, মাস্টার প্ল্যান নিয়ে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সাথে কউকের মতবিনিময়

টেকনাফের ইয়াবা রানী ইয়াসমিনসহ দুইজন আটক, মিললো বস্তাভর্তি ৭২ হাজার ইয়াবা