প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

শিক্ষা, সংস্কৃতি, শিল্প-সাহিত্য ও দর্শনের আলোয় সমাজ বিনির্মাণের প্রত্যয় নিয়ে প্রতিষ্ঠিত পালং একাডেমি- এর উদ্যোগে আহমদ ছফার জন্মদিন পালিত হয়। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও পালং একাডেমির পরিচালক আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সুফী গবেষক মুহাম্মদ হোসাইনের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্টান পরিচালিত হয়।

‘আহমদ ছফা ও তাঁর সৃষ্টি’- সম্পর্কে গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আলম চৌধুরী। আহমদ ছফার বহুমাত্রিক সৃষ্টিশীলতা নিয়ে সুলিখিত প্রবন্ধে তিনি বলেন, ‘জীবনঘনিষ্ট এমন লেখক বাংলা সাহিত্যকে অনন্য মর্যাদা দিয়েছেন। তাঁর যা দেবার তা আমাদের দিয়েছেন। কিন্তু আমরা তাঁর প্রাপ্যটুকুও দিতে পারিনি। মানসিক দীনতা পরিহার না করলে ভবিষ্যতের দিনগুলো আরও বেশি সঙ্কটময় হবে’।

পালং একাডেমিকে কক্সবাজার জনপদের গন্ডিতে আবদ্ধ না থেকে সমগ্র দেশব্যাপী কার্যক্রম পরিচালনার গতি বাড়ানোর প্রস্তাবে সকলে সম্মতি প্রদান করেন। বঙোপসাগরের সাথে সংযুক্ত রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের দারিয়ার দিঘি থেকে বর্তমানে এ প্রতিষ্টানটি কার্যক্রম পরিচালনা করছে। আনুষ্টানিক সভা শেষে দুস্থ ও এতিম শিশুদের খাবার প্রদান করা হয়।

সমাজের গুণীব্যক্তিবর্গ ও বিশিষ্টজনরা এতে উপস্থিত ছিলেন। ডা. আবদুর রাজ্জাক সিকদার, সিকদার নূরুল হুদা মানিক, অধ্যাপক নূর হোসাইন, অধ্যাপক মুহাম্মদ সুজন, মাস্টার আমজাদ হোসেন, মুহাম্মদ নোমান, সিকদার ইমরান খান জুয়েল ও সাহেদুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •