আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
আগামী ১৮ আগস্ট পাকিস্তানের ২১তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন ইমরান খান। সরকার গঠনের জন্য দেশটির পার্লামেন্ট ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির ৩৪২ আসনের মধ্যে প্রয়োজন ১৭২ আসন। ৩৩ নারী আসনসহ ইমরানের ঝুলিতে রয়েছে ১৫৮ আসন। এখন প্রধানমন্ত্রীর পদের জন্য আর মাত্র ১৪ আসনের দূরত্বে রয়েছেন তিনি।

শনিবার পাক নির্বাচন কমিশন পার্লামেন্টের ৭০ সংরক্ষিত আসন রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ভাগ করে দেয়। রাজনৈতিক দলগুলির প্রাপ্ত আসনের অনুপাতে সংরক্ষিত আসন ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। তাতে ৭০ সংরক্ষিত আসনের মধ্যে ৩৩ পেয়েছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক ই-ইনসাফ (পিটিআই)। এর মধ্যে ২৮টি সংরক্ষিত নারী আসন এবং বাকি পাঁচটি সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত।

ইমরান খানের দল পিটিআইকে যে ২৮টি নারী সংরক্ষিত আসন দেয়া হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে পঞ্জাবের ১৬টি, সিন্ধু প্রদেশের ৭টি, খাইবার পাখতুনখোয়ায় ৭টি এবং বালুচিস্তানের ১টি। আর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জন্য মোট ১০ আসনে মধ্যে পাঁচটি পিটিআইয়ের। বাকি ৫টির মধ্যে ২টি পাকিস্তান মুসলিম লিগের, ২টি পাকিস্তান পিপলস পার্টির এবং ১টি মজলিস ই-আমলের।

সংরক্ষিত আসন নিয়ে ইমরান খানের দল পিটিআই পেল ১৫৮ আসন। সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করে সরকার গঠনের জন্য আর মাত্র ১৪ আসনের প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে ছোট দলগুলির সাহায্য নিতে হবে ইমরানকে। সবকিছু ঠিক থাকলে ১৮ আগস্টেই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পাকিস্তানের হাল ধরবেন দেশটির ক্রিকেট বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক ইমরান খান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •