বিশেষ প্রতিবেদক:

আন্তর্জাতিক সীমান্তরেখা নাফনীতে রবিবার ফের যৌথ টহল দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি ও মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ। গত মার্চ মাসে দুদেশের মধ্যকার এই যৌথ টহল চালু হওয়ার পর এটি ১৬তম যৌথ টহল। মাদক পাচার (বিশেষ করে ইয়াবা) এবং নারী-শিশুসহ মানব পাচার প্রতিরোধের লক্ষ্যে এই যৌথ টহল দেয়া হচ্ছে বলে জানায় বিজিবি।

বিজিবির কক্সবাজার রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল রাকিবউল্লাহ জানান, রবিবার সকাল ১০টা ২০ মিনিটে এই যৌথ টহল শুরু হয় এবং এক ঘন্টা পাঁচ মিনিট পর বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে শেষ হয়। যৌথ টহলে বাংলাদেশের পক্ষে ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলামের নেতৃত্বে দমদমিয়া বিওপির ১২জন সদস্য অংশ নেন। অন্যদিকে মিয়ানমার পক্ষে বিজিপি-২ এর ইয়তায়োঁ টং ক্যাম্পের পুলিশ ক্যাপ্টেন মংমং লিনের নেতৃত্বে একই সংখ্যক সদস্য যৌথ টহলে অংশ নেন। এরমধ্যে বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষীরা দুটি স্পীডবোট নিয়ে এবং মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষীরা ছোট সাজোয়া ট্রলার নিয়ে টহলে অংশ নেয়।

বিজিবি জানায়, এনিয়ে চলতি মাসে এই পর্যন্ত ৩টি যৌথ টহল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া গত মাসে (জুলাই) ৫টি, জুনে ৪টি এবং মার্চ মাসে ৪টি যৌথ টহল অনুষ্ঠিত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •