সিবিএন ডেস্ক:

নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশে অবস্থিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের দেওয়া বক্তব্যকে ‘বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে শিষ্টাচারবহির্ভূত নাক গলানোর অপপ্রয়াস’ বলে অভিহিত করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

মন্ত্রী তার সচিবালয় কার্যালয়ে আজ (৭ আগস্ট) দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় এ মন্তব্য করেন। তিনি দূতাবাসকে সেই বক্তব্য প্রত্যাহারের অনুরোধও করেন।

রাজধানীর ধানমন্ডি এলাকায় সংঘর্ষের সত্যতাকে মেনে নিয়ে ইনু বলেন, তবে সেই সংঘর্ষ আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর করা হয়নি।

তার মতে, রাজধানীতে কিছু বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ হলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সেগুলো থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। এ ধরনের পরিস্থিতিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস যে বিবৃতি দিয়েছে তা দুঃখজনক।

মন্ত্রী বলেন, মার্কিন দূতাবাসের বিবৃতিতে বলা হয়েছে যে শিক্ষার্থীদের ওপর বর্বরোচিত হামলার মাধ্যমে তাদের আন্দোলনকে দমন করা হয়েছে। কিন্তু, সত্য ঘটনা হলো যে এ রকমের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

ঢাকার ঘটনাগুলোকে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে এমন মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী দূতাবাসের সেই বক্তব্যকে প্রত্যাহারের অনুরোধ করেন। তিনি এ ধরনের বক্তব্যকে ‘বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে শিষ্টাচারবহির্ভূত নাক গলানোর অপপ্রয়াস’ বলেও মন্তব্য করেন।

একই সঙ্গে, শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নিন্দা করে জাতিসংঘের দেওয়া বক্তব্যেরও সমালোচনা করেন ইনু। তিনি সেই বক্তব্য প্রত্যাহারেরও অনুরোধ করেন।

সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবাদলিপি মার্কিন দূতাবাস ও জাতিসংঘের ঢাকা কার্যালয়ে পাঠানো হবে বলেও উল্লেখ করেন তথ্যমন্ত্রী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •