সিবিএন ডেস্ক:

প্রথম দিকে বেশির ভাগ ‍নাগরিক জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) গুরুত্ব সম্পর্কে খুব বেশি সচেতন ছিলেন না। কিন্তু বর্তমানে দিন দিন নাগরিকের কাছে এনআইডির গুরুত্ব বাড়ছে। এখন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে শুরু করে পাসপোর্ট করা, মোবাইল সিম কেনা, জমিজমা ক্রয়-বিক্রি করাসহ নানা কাজে এর ব্যবহার হচ্ছে। আর এসব কাজ করতে গিয়ে দেখা যাচ্ছে অনেকের এনআইডিতেই বিভিন্ন তথ্য ভুল রয়েছে বা তা সংশোধন করার প্রয়োজন পড়ছে।

সম্প্রতি এনআইডি সংশোধনের কিছু ধরণ চিহ্নিত করে কী ডকুমেন্টস লাগবে তার একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। যা দেখে নাগরিক নিজেও বুঝতে পারবেন যে, তার এনআইডি সংশোধনে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস কী লাগবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নাগরিকদের এনআইডি সংক্রান্ত জটিলতা কমাতে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আর এ জন্য এনআইডি’র কী ধরণের সংশোধনের জন্য কী কী ডমুমেন্টস বিবেচনায় নিতে হবে তার একটি তালিকাও তৈরি করা হয়েছে। যা সম্প্রতি ইসি বৈঠকেও উপস্থাপন করা হয়।

সূত্র জানায়, ইসির বৈঠকে উপস্থাপন করা ওই কার্যপত্রে এনআইডি সংশোধনের ৩৫টি ধরণ চিহ্নিত করা হয়েছে। পাশাপাশি কোন ধরণের সংশোধনে কী কী ডমুমেন্টস বিবেচনায় নিতে হবে কর্মকর্তাদের জন্য এ সংক্রান্ত নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, আমরা চাই না এনআইডি সেবা থেকে কোনো নাগরিক বাদ পড়ুক। নাগরিকদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে আমরা বদ্ধ পরিকর। সেজন্য আমরা বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করছি এবং সে অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •