ডেস্ক নিউজ:
উখিয়ায় চেক প্রতারণা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত এক আওয়ামী লীগ নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার (৫ আগস্ট) দিবাগত রাত ১০টার দিকে উখিয়ার কোটবাজার এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আবদুস সালাম মধু (৩৮) উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব পাইন্যাশিয়া এলাকার হাজি নুরুল ইসলাম ওরফে গাছ কালুর ছেলে। ২০১৫ সালে তার বিরুদ্ধে দায়ের করা একটি চেক প্রতারণা মামলায় সম্প্রতি তাকে এক বছরের সাজা দিয়েছেন আদালত।

উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মো. খায়রুজ্জামান জানান, গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত আবদুস সালাম মধুকে কোটবাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে চেক প্রতারণা মামলায় এক বছরের সাজা রয়েছে। মামলায় পরোয়ানা জারির পর থেকে তিনি পলাতক ছিলেন।

সূত্র জানায়, টেকনাফের এক ইটভাটা ব্যবসায়ীর পাওনা টাকার বিপরীতে একটি চেক দেন আবদুস সালাম মধু। কিন্তু কৌশলে উখিয়া-টেকনাফ আসনের সাংসদ আবদুর রহমান বদির কাছাকাছি যেতে পেরে চেকের সব টাকা পরিশোধে গড়িমসি শুরু করেন তিনি। তাকে বারবার তাগাদা দেয়া হলেও আওয়ামী লীগ নেতা পরিচয়ে ভোগাতে থাকেন। এতে অতিষ্ট হয়ে ২০১৫ সালে তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার আদালতে মামলাটি করেন পাওনাদার টেকনাফের ফয়েজ। তার সেই মামলায় সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে সম্প্রতি সাজা দেয় আদালত।

উল্লেখ্য, আবদুস সালাম মধু ইতোপূর্বে ইয়াবাসহ কুমিল্লায় আটক হয়ে বেশ কিছুদিন কারাভোগ করেন। এরপরই তিনি আওয়ামী রাজনীতির সাথে নিজেকে জড়াতে স্থানীয় সাংসদকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করেন। সাংসদ বদির সাথে তোলা ছবিগুলো তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল পিকচার হিসেবে ব্যবহার করে অপকর্ম করে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি চেক করে বদির সাথে ঘনিষ্ঠতামূলক ছবি ব্যবহারের সত্যতা মিলেছে।

তবে আবদুস সালাম মধু আওয়ামী লীগের কোন সারির নেতা তা কেউ নিশ্চিত করতে পারেননি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •