অা‌ন্দোলনে ছাত্রদল ও ছাত্র শি‌বি‌রের অনুপ্র‌বেশ ঘট‌ছে

ডেস্ক নিউজ:
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অাসাদুজ্জামান খান কামাল ব‌লে‌ছেন, ছাত্র‌দের এ অা‌ন্দোলন ভিন্ন খা‌তে প্রবা‌হিত করার জন্য ছাত্রদল ও ছাত্র শি‌বি‌রের অনুপ্র‌বেশ ঘট‌ছে। তি‌নি ব‌লেন, শিক্ষার্থী‌দের দা‌বি যৌ‌ক্তিক কিন্তু তা‌দের অা‌ন্দোলন‌কে রাজ‌নৈ‌তিক রূপ দেয়ার চেষ্টা চল‌ছে।

আন্দোলনকারীদের সব দাবি পূরণে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়ে তাদের এখন ঘরে ফেরার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি; এক্ষেত্রে অভিভাবক ও শিক্ষকদের সহায়তাও চেয়েছেন তিনি।

ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে গত ২৯ জুলাই বাসচাপায় দুই কলেজছাত্রের মৃত্যুর পর টানা পাঁচদিন ধরে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে রাজধানীর সড়কগুলো দিনভর অচল রয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দাবি পূরণে প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন নির্দেশনা ও কর্তৃপক্ষের নানা পদক্ষেপ তুলে ধরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলন ক‌রেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

শিক্ষার্থীদের দাবির যৌক্তিকতা মেনে নিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক আন্দোলনে রাজনৈতিক ইন্ধন দেখা যাচ্ছে। আমরা দেখেছি, এই আন্দোলনের মধ্যে শিবির ও ছাত্রদল সম্পৃক্ত হয়েছে। আমাদের কাছে ছাত্রদল ও শিবিরের কথোপকথনের অডিও রয়েছে। সেখানে ছাত্রদলকে স্কুল ও কলেজের ড্রেস পরে আন্দোলনে সম্পৃক্ত হওয়ার নির্দেশ দিতে শোনা গেছে।

শিক্ষার্থীদের সতর্ক করে তিনি বলেন, এই আন্দোলন সহিংসতার দিকে টার্ন করতে পারে। কারণ, আমরা দেখেছি কাফরুল থানায় আক্রমণ করা হয়েছে। রাজারবাগ ও মিরপুরের পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টে ঢিল ছোঁড়া হয়েছে। মিরপুর ১৪ নম্বর সেকশনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ। এসময় পুলিশের সঙ্গে লাঠিহাতে একদল যুবককেও দেখা যায়।

মিরপুর ১৪ নম্বর সেকশনে শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের সঙ্গে সরকার সমর্থক যুবকদের হামলার অভিযোগের বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেখানেও ছাত্রদলের কর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছিল, তখন তা প্রতিরোধে স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়েছিল বলে তিনি খবর পেয়েছেন।

গত পাঁচদিনের আন্দোলনে যানবাহনের ক্ষয়ক্ষতির চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, এই কয়দিনে ৩১৭টি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। আটটি গাড়ি পোড়ানো হয়েছে। তাই আমরা এই আন্দোলন কনটিনিউ না করার আহ্বান জানাচ্ছি।

শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মধ্যে বৃহস্পতিবার সায়েন্স ল্যাবরেটরি মোড়ে এক ট্রাফিক সার্জেন্টের মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়া হয়।

অভিভাবক ও শিক্ষকদের সহায়তা চেয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি, তারা যে সাহসিকতা দেখিয়েছে, তা দেশবাসী জেনে গেছে। সুতরাং এই ধরনের পরিস্থিতিতে একটা সাবোটাজ ঘটতে পারে। তাই অভিভাবক, শিক্ষক ও গভর্নিং বডির সদস্য ও প্রতিবেশীকে অনুরোধ করব, এই কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যাতে মাঠে না নামে, তাদেরকে বোঝাতে।

আন্দোলন থেমে গেলে এই শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হবে কি না- জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা অনেক ছোট। এই কারণে তাদেরকে কোনো দুর্ভোগ পোহাতে হবে না।

শিক্ষার্থীর বিভিন্ন দাবি পূরণে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়ার কথাও বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, কোনো স্কুল-কলেজের পাশে রাস্তা থাকলে সেখানে ট্রাফিক পুলিশ থাকবে এবং শিক্ষার্থীদের রাস্তা পারাপারে সহযোগিতা করবে।

যেখানে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কলেজছাত্রী নিহত হয়েছেন, সেখানে ফুট ওভারব্রিজ নির্মাণ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। সড়ক দুর্ঘটনায় সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে নতুন আইন শিগগিরই সংসদে উপস্থাপন করা হবে বলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রচন্ড গরম, পুড়ছে মানুষ বাড়ছে রোগি

হতাশ হবেন না, বিএনপি নিঃশেষ হয়ে যায়নি : ফখরুল

লোহাগাড়ায় দুই দিন ব্যাপী জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ সমাপ্ত

দশ টাকার টিকিট কেটে চোখ দেখালেন প্রধানমন্ত্রী

গৃহযুদ্ধকবলিত লিবিয়ায় ৫০০ বাংলাদেশি আটকে পড়ার আশঙ্কা

সাগরে সার্ফিং শিখতে গিয়ে ভেসে যাওয়া থেকে তরুণ উদ্ধার

‘খালেদা জিয়া-তৃতীয় বিশ্বের কণ্ঠস্বর’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

চৌফলদন্ডী রবিজিয়া তাহফিজুল কোরআন হেফজখানার দস্তারবন্দি

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ঠিকাদারের হাতে তত্ত্বাবধায়ক লাঞ্ছিত

সাড়া ফেলেছে শাহজাহান শুভ’র ‘তোর কারণে’

হ্যান্ডবল বনাম পিস্তল

রোজা মুখে ঊর্ধ্বমুখী সবজির দাম

কক্সবাজার জেলা কৃষকলীগের পূর্ব কথা ! 

টেকনাফে সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত-২ , আহত-১১

শনিবার ডিসি কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন মন্ত্রীপরিষদ সচিব শফিউল আলম

চাকমারকুল জারাইলতলীর আবদুর রহিম তহশিলদার আর নেই

৩৫০ কোটি টাকা হাতিয়ে পালাতে চেয়েছেন আ.লীগ নেতা

সুপারিশ ছাড়া রোহিঙ্গা অধ্যুষিত ৩২ উপজেলায় ভোটার নিবন্ধন নয়

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি!

সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে ৪ ধাপ নিচে নেমেছে বাংলাদেশ