মনসুর আলম রানা, চকরিয়া:
পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীন চকরিয়া উপজেলা ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডার সমূহের পূনর্বাসন প্রকল্পের সমাপ্ত ও চলমান কাজসমূহ পরিদর্শন করেছেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম সামছুল করিম। বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁরা চকরিয়া পৌঁছে মাতামুহুরী নদীর তীরবর্তী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে পাউবো’র ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডার সমূহের পূনর্বাসন প্রকল্পের ইতোমধ্যে শেষ হওয়া উন্নয়ন কাজ ও চলমান প্রকল্পের কাজসমূহ পরিদর্শন করেন। ওইসময় উপস্থিত ছিলেন পানি উন্নয়ন বোর্ড কক্সবাজার অঞ্চলের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. রুহুল আমিন, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরউদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, কক্সবাজার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান ও বান্দরবান পানি উন্নয়ন বোর্ডের মো. রাকিবুল হাসান, পাউবোর পেকুয়া উপজেলা শাখা কর্মকর্তা (এসও) মো.গিয়াস উদ্দিন, চকরিয়া শাখা কর্মকর্তা (এসও) তারেক বিন সগীর।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম সামছুল করিম এদিন মাতামুহুরী নদীর তীরবর্তী উপজেলার লক্ষ্যারচর-কৈয়ারবিল ইউনিয়ন ও ফাসিয়াখালী ইউনিয়নের দিগরপানখালী ১ নং গাইডবাঁধ এলাকার নদী ভাঙ্গন এবং বিভিন্ন ইউনিয়নে ঘুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীন চকরিয়া উপজেলার ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডার সমূহের পূনর্বাসন প্রকল্পের শেষ হওয়া কাজ ও চলমান প্রকল্পের কাজসমূহ পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে সচিব ও প্রধান প্রকৌশলী উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সমাপ্ত হওয়া কিছু কিছু প্রকল্পের কাজ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

পরিদর্শনকালে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী এ কে এম সামছুল করিমের কাছে চকরিয়া উপজেলার ক্ষতিগ্রস্ত পোল্ডারের অধীন চলমান উন্নয়ন কাজ ও চলতি বর্ষাকালের দুইদফা বন্যার তান্ডবে মাতামুহুরী নদীর ব্যাপক এবং একাধিক বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার বিষয়টি তুলে ধরেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম। চকরিয়া-পেকুয়া উপজেলাবাসির সম্পদের সুরক্ষা নিশ্চিত এবং জনগনের দুর্ভোগ লাগবের স্বার্থে তিনি দ্রুতসময়ে ক্ষতিগ্রস্ত এসব পোল্ডারের মেরামতের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থবরাদ্দ নিশ্চিত করতে সচিব ও প্রধান প্রকৌশলীর কাছে বিশেষভাবে অনুরোধ জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •