কঠিন চ্যালেঞ্জের সামনে ইমরান খান, কী করবেন?

রয়টার্স:
পাকিস্তানের সদ্যসমাপ্ত নির্বাচনে পিটিআইয়ের ইমরান খানের বিজয়কে স্বাগত জানিয়েছে ইকুইটি ও বন্ড মার্কেট। তবে বিশ্বকাপজয়ী সাবেক এ ক্রিকেটারের সামনে অসংখ্য চ্যালেঞ্জ অপো করছে। চলমান মুদ্রা সঙ্কট ও আর্থিক অচলাবস্থা নিরসনে দীর্ঘমেয়াদি পদপে গ্রহণ জরুরি হিসেবে দেখা দেবে ইমরান সরকারের কাছে।

ইমরানকে প্রথম যে বড় ইস্যুতে সিদ্ধান্ত নিতে হতে পারে তা হলো, রুপির ওপর চাপ কমাতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছে বেইলআউটের আবেদন করা হবে কি হবে না। আশির দশকের পর এ নিয়ে ১২ বার আইএমএফের সহযোগিতায় বেইলআউট নিয়েছে পাকিস্তান।

দেশটির মানুষকে কর প্রদানে উদ্বুদ্ধ করা হবে খানের সামনে আরো বড় চ্যালেঞ্জ। সরকারি তহবিল ফুরিয়ে ফেলা ভর্তুকি উদ্যোগ ও লোকসানি রাষ্ট্রীয় উদ্যোগ বন্ধ করতেও প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হবে পিটিআই নেতৃত্বাধীন সরকার।
স্থানীয় ব্রোকারেজ হাউজ শাজার ক্যাপিটালের হেড অব রিসার্চ সুলায়মান মানিয়া বলেন, ‘দেশের অবস্থা বর্তমানে এমন অবস্থায় দাঁড়িয়েছে যে, দীর্ঘ দিন স্থিতাবস্থা (স্ট্যাটাস কুয়ো) টিকিয়ে রাখা যাবে না।’ খুব দ্রুতই কার্যকর পদপে গ্রহণ জরুরি বলে মনে করেন তিনি।

গত ডিসেম্বরের পর রুপির চারবার অবমূল্যায়ন করেছে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংক (এসবিপি)। প্রায় ৩০ হাজার ৫০০ কোটি ডলারের অর্থনীতির লেনদেন ভারসাম্য (ব্যালান্স অব পেমেন্টস) সঙ্কট ঠেকাতে রুপির মান ২০ শতাংশেরও বেশি অবমূল্যায়ন করা হয়েছে। যদিও ১৩ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫ দশমিক ৮০ শতাংশ হারে দেশটির অর্থনীতি সম্প্রসারিত হচ্ছে, তবে পাকিস্তানের চলতি হিসাবে চাপ কমার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না।
এ ছাড়া বৈশ্বিক তেলের মূল্যবৃদ্ধিতে উদ্বিগ্ন এসবিপি। কারণ দেশটি মোট তেলের ৮০ শতাংশই আমদানি করে। এ বিশাল আমদানি প্রয়োজন মেটাতে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে চাপ পড়ে, যা গত সপ্তাহে ৯০০ কোটি ডলারে নেমে এসেছে। ২০১৭ সালের মে মাসে যেখানে বৈদেশিক মুদ্র্রার রিজার্ভ ছিল এক হাজার ৬৪০ কোটি ডলার। ৩০ জুন শেষ হওয়া সর্বশেষ অর্থবছরে পাকিস্তানের চলতি হিসাবে ঘাটতি ৪৩ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৮০০ কোটি ডলারে দাঁড়িয়েছে এবং রাজস্ব ঘাটতি গিয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থনীতির ৬ দশমিক ৮০ শতাংশে।

বৃহস্পতিবার বিজয়ী বক্তৃতায় নিজের সংস্কার এজেন্ডার দিকে ইঙ্গিত করে পিটিআই প্রধান বলেন, ‘ইতিহাসে সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জের মুখে দাঁড়িয়েছে পাকিস্তান।’ ইমরান খান বলেন, ‘আমাদের অকার্যকর প্রতিষ্ঠানের কারণে অর্থনীতি নি¤œœমুখী হচ্ছে। আমাদের এ সরকার ব্যবস্থাপনা (গভর্ন্যান্স) ঠিকঠাক করতে হবে।’

সর্বশেষ সংবাদ

খালেদা জিয়াকে কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হচ্ছে

কর্ণফুলী টানেলের মূল নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

পুত্রসন্তানের ‘বাবা’ হলেন সমকামী প্রধানমন্ত্রী!

মেসির হ্যাটট্রিকে জিতল বার্সেলোনা

আবেদন হারাচ্ছে ঐক্যফ্রন্ট!

নৌকার প্রার্থী জুয়েল আসবেন আজ, বিকেল তিনটায় বিমানবন্দরে সংবর্ধনা

প্রবাসী বাংলাদেশিরাও পাবে জাতীয় পরিচয়পত্র!

যুক্তরাষ্ট্রে সৌদি আরবের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত রাজকুমারী রিমা

অমাখোঁ পরিবারের আনন্দ ভ্রমণ সম্পন্ন

বদরখালীতে অপরিকল্পিত গ্যাসপাইপ স্থাপনে ক্ষতিরমুখে ঘের মালিক ও লবণ চাষী

নির্বিচারে পাহাড় ও বৃক্ষনিধন অব্যাহত

সুদানে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

চকরিয়ায় বাড়িতে ঢুকে ৮ম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টা!

পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রাজুর আবেগঘন ফেসবুক স্ট্যাটাস….

খেলাফত মজলিস কক্সবাজার জেলা কমিটি পুন:গঠিত

কক্সবাজারে সপ্তাহব্যাপী সঞ্চয় সপ্তাহ শুরু

আ. লীগের মনোনয়ন পেলেন জুয়েল, হোসাইন, ফরিদ, কাসেম, রিয়াজ, হামিদুল, মোঃ আলী

টেকনাফ সীমান্তে বিজিবির ১৭ টহল ট্রলার

রিয়াজুল’ই রামু উপজেলা পরিষদে নৌকার মাঝি থাকছেন

মহেশখালী আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন হোছাইন ইব্রাহীম