তাহাজ্জুদ না পড়েও নামাজের সাওয়াব পাবেন যারা

ধর্ম ডেস্ক:
আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের অন্যতম মাধ্যম নফল নামাজ আদায় করা। আর রাতের নামাজ আল্লাহর কাছে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য। যারা রাতের বেলায় তাহাজ্জুদ নামাজে অভ্যস্থ তারা যদি কোনো কারণে রাতে নফল বা তাহাজ্জুদ নামাজ আদায় করতে না পারেন তবে হাদিসের ঘোষণায় তাদের ঘুমে রয়েছে সাওয়াব ও সাদকা। হাদিসের বর্ণনায় এসেছে-

০ হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি রাতে কিছু (নফল) নামাজ আদায়ে অভ্যস্থ হয়। আর যদি কোনো রাতে তার ঘুম প্রবল হয়ে যায় এবং সালাত আদায় করতে না পারে তবে সে ব্যক্তির ঘুম তার জন্য আল্লাহ্‌র তরফ থেকে সাদকা স্বরূপ হবে এবং আল্লাহ্‌ তার জন্য নামাজের সওয়াব লিখে দেবেন।’ (নাসাঈ)

০ হজরত আবু দারদা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, ‘যে ব্যক্তি তাহাজ্জুদের নামাজ আদায় করার নিয়তে বিছানায় আসে (ঘুম যায়) কিন্তু দু’চোখে ঘুম প্রবল হয়। আর ভোর পর্যন্ত সে ঘুমিয়ে থাকে, তার জন্য তার নিয়ত অনুসারে সওয়াব লেখা হবে। আর আল্লাহ তাআলঅর পক্ষ থেকে ঘুম তার জন্য সদকা স্বরূপ হয়ে যাবে।’ (নাসাঈ)

আরও পড়ুন > ফজর ও আসর নামাজ শেষ মুহূর্তে পড়লে কি হবে?

উল্লেখিত হাদিসের আলোকে বুঝা যায়, যারা নিয়মিত তাহাজ্জুদ পড়েন। তারা যদি কোনো রাতে তাহাজ্জুদ বা নফল আদায় করতে না পারেন তবে আল্লাহ তাআলা ওই বান্দাকে তাহাজ্জুদের সাওয়াব দান করবেন আর তার ঘুম হয়ে যাবে তার জন্য সাদকা।

আবার যারা তাহাজ্জুদ নামাজে অভ্যস্ত তারা যদি ঘুম বা অসুস্থতার কারণে রাতের বেলায় তাহাজ্জুদ পড়তে না পারেন তবে দিনের যে কোনো সময়েও তা আদায় করে নিতে পারেন। এ প্রসঙ্গে হাদিসে এসেছে-

উম্মুল মুমিনিন হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন ঘুম বা অসুখ-বিসুখ কিংবা ব্যথা-বেদনার কারণে রাতে তাহাজ্জুদের নামাজ আদায় করতে না পারতেন, তখন তিনি দিনের বেলা ১২ রাকআত নামাজ আদায় করে নিতেন।’ (নাসাঈ)

সুতরাং একান্তই যারা রাতে নফল কিংবা তাহাজ্জুদ পড়তে অপারগ হয়ে যান; তারা দিনের বেলায় তা আদায় করে নিতে পারেন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে নিয়মিত তাহাজ্জুদ নামাজসহ নফল নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। নফল নামাজ আদায়ের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সর্বশেষ সংবাদ

সাতকানিয়া লোহাগাড়া সমিতির ইফতার মাহফিল ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ

আন্তর্জাতিক ব্যানার ডিজাইন প্রতিযোগীতায় প্রথম হল বগুড়ার ছেলে

পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নিয়ে প্রকাশিত সংবাদ ‘কাল্পনিক’ দাবি

৫টি অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে দিল কউক

সেবা গ্রহীতাদের নিয়ে কউক’র গণশুনানী

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে বাইরে ফেলে দিলো পুলিশ

শেরে বাংলা গোল্ডেন এ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্রফেসর এ.কে.এম ফজলুল করিম চৌধুরী

আটকে গেল বালিশ ফ্রিজ কেটলি তোলার সব বিল

পেকুয়ায় শিশু গৃহকর্মীর আত্মহত্যার চেষ্টা, আটক ১

তাজিকিস্তানে কারাগারে সংঘর্ষ, নিহত ৩২

খালেদা জিয়ার অবস্থা ‘বিপজ্জনক পর্যায়ে’: রিজভী

রূপপুর প্রকল্পে দুর্নীতি: তদন্ত প্রতিবেদন হাইকোর্টে দাখিলের নির্দেশ

সবক্ষেত্রে বাবার নামের সঙ্গে মায়ের নাম সংযুক্ত করতে হাইকোর্টের রুল

বেনাপোলে ৩৫০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল উদ্ধার

প্রেম’স কালেকশনে ৩০ ফুট লম্বা পাঞ্জাবী!

নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদে বরণ ও বিদায় অনুষ্ঠান

সমৃদ্ধ দেশ ও জাতি গঠনে নৈতিকতা সম্পন্ন মেধাবী জনগোষ্ঠী দরকার

সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেলেন রুমিন ফারহানা

লামার হায়দারনাশী উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগে অনিয়ম

আন্দোলন প্রত্যাহার করলেন ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা ঢাবি প্রতিনিধি