খুটাখালীতে পাগলা কুকুরের উপদ্রুব, আতংকিত পথচারী

সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও:

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে আশংকাজনক হারে বেড়ে গেছে বেওয়ারিশ-পাগলা কুকুরের উপদ্রুব। ফলে ভয়ভীতির মধ্যে রয়েছে পথচারিরা। দীর্ঘদিন ধরে ইউনিয়নের বিভিন্ন যায়গায় ওই সব বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রুব থাকলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উদাসীন রয়েছে বলে মনে করেন স্থানীয়রা। পাগলা কুকুরের দল বিভিন্ন সড়ক,বাজার এবং গ্রামাঞ্চলে বিচরন করছে যার কারনে সকল বয়সী মানুষ আতঙ্কিত। তবে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার্থে বেওয়ারিশ কুকুর নিধন জরুরি বলে দাবী করছেন স্থানীয় বাসিন্দা এবং কুকুরের আক্রমণের শিকার ভুক্তভোগী অনেকে।

ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে, শত শত পাগলা কুকুর এদিক-ওদিক ঘুরছে বেপরোয়াভাবে। খাদ্য সন্ধানী ওই সব কুকুর পাগল হয়ে একাধিক মানুষকে আহত করেছে বলে জানা গেছে। কেউবা সখের বসে বাড়িতে পোষার কারণে বৃদ্ধি পেয়েছে আবার এলোপাতাড়ি ভাবেই বিভিন্ন যায়গায় বেড়ে উঠেছে এসব কুকুর। যার কারণে আতঙ্কিত হচ্ছে সাধারন জনগন। অধিকাংশ কুকুর পাগলা হয়ে শিশু থেকে বৃদ্ধ এমনকি বাইসাইকেল, মটর সাইকেল ও অন্যান্য ছোট খাটো যান চালানো অবস্থায় পথচারীদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে কামড়িয়ে আহত করেছে। এছাড়াও বাড়ির হাস মুরগি গরু ছাগলসহ অন্যান্য প্রাণীদের আহত করছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।

ইউনিয়নের মেদাকচ্চপিয়ার বাসিন্দা মোঃ আলী হোসেন বলেন, সম্প্রতি ওই পাগলা কুকুরে কামড়ানোর কারণে তাকে বেশ ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। আর্থিকভাবে পাঁচ হাজার টাকা খরচও হয়েছে। কিন্তু এখনো শারীরিক অস্বস্থি ও কুকুরের ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পথ চলতে হয় তাকে। এলাকায় পাগলা কুকুরের উপদ্রুবে ছোট্ট বাচ্চাদের আতঙ্কে পথ চলতে হচ্ছে।

ইউনিয়নের শান্তি বাজারের ব্যবসায়ী মো: হোসেন বলেন, কুকুরের উপদ্রবে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে সাধারন জনগন। প্রতিনিয়ত চলতি পথে কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এবং বাজারে চলাচল করতে আতঙ্কিত হতে হচ্ছে। জানা মতে শহরাঞ্চলে বেওয়ারিশ কুকুর নিধনের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হয়। গ্রামাঞ্চলেও ওই ব্যবস্থা চালু হলে পাগলা কুকুর থেকে সাধারন মানুষ রক্ষা পাবে।

স্থানীয় চিকিৎসক ফখরুল কায়ুম বলেন, পাগলা কুকুর জনজীবনে বড়ই হুমকি স্বরূপ। কোন ব্যক্তিকে কামড়ালে তাকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে কষ্ট হয়। তাছাড়া গরু-ছাগলকে কামড়ালে তারাও কুকুরের মত আচরণ করে। বিষের যন্ত্রণায় এমনকি মানুষও একই আচরণ করে এরই নাম জলাতঙ্ক রোগ।

পাগলা কুকুরের উপদ্রুব ও সাধারণ মানুষকে ক্ষতিগ্রস্থ ও আতঙ্ক থেকে রক্ষা করতে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের সুদৃষ্টি কামনা করছেন ভুক্তভোগীরা ।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

নবাগত জেলা জজ দায়িত্ব গ্রহন করে কোর্ট পরিচালনা করেছেন

নজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমান

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে  “শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, সংবাদপাঠ ও সাংবাদিকতা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা 

রামুর কচ্ছপিয়াতে রুমির বাল্য বিবাহের আয়োজন

সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে- এমপি কমল

আইসক্রিমের নামে শিশুরা কী খাচ্ছে?

উদীচী কক্সবাজার সরকারি কলেজ শাখার দ্বিতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

পেকুয়ায় বৃদ্ধকে কুপিয়ে জখম

আনিস উল্লাহ টেকনাফ উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত

চকরিয়া উপজেলা যুবদলের কমিটি বিলুপ্ত ও আহবায়ক কমিটি গঠিত

জেলা আ.লীগের জরুরি সভা শুক্রবার

চবি উপাচার্যের সাথে হিস্ট্রি ক্লাবের সাক্ষাৎ

পেকুয়ায় কুপে আহত ব্যবসায়ী হাসপাতালে যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে

সদর-রামু আসনে নজিবুল ইসলামকে নৌকার একক প্রার্থী ঘোষণা পৌর আ. লীগের

যোগাযোগ মন্ত্রীর আগমনে ঈদগাঁওতে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

রাষ্ট্রপতির প্রতি আহবান: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে স্বাক্ষর না সংসদে ফেরৎ পাঠান

উত্তপ্ত চট্টগ্রাম কলেজ, সক্রিয় বিবদমান তিনটি গ্রুপ

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠে আন্ত:ফুটবল টুর্ণামেন্ট উদ্বোধন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হোপ ফাউন্ডেশনের ৪০শয্যার হসপিটাল উদ্বোধন

পৌর কাউন্সিলরসহ ৪ মাদক কারবারির বাড়িতে অভিযান, নারীসহ দুই জনের সাজা