হজে ইহরাম অবস্থায় নিষিদ্ধ কাজ করলে করণীয়

ধর্ম ডেস্ক:

হজ পালনকালে অনিচ্ছাবশত ত্রুটি-বিচ্যুতি বা নিয়মের ব্যতিক্রম ঘটে যায়। এগুলোকে হজের পরিভাষায় জিনায়াত বলা হয়। এ সব ত্রুটি বিচ্যুতির মধ্যে কিছু বিষয় আছে অনেক বড় আবার কিছু বিষয় আছে ছোট। আবার কিছু বিষয় আছে যা একেবারে সাধারণ পর্যায়ের; যার কোনো কাজা বা কাফফারা নেই।

তবে হজের সময় অনিচ্ছায় ঘটে যাওয়া ত্রুটি বা বিষয়গুলোর গুরুত্ব ও লঘুত্ব বিবেচনায় কয়েকটি বিধান রয়েছে। আর তাহলো- দম, বুদনা ও সাদকা।

দম
একটি ছাগল, ভেড়া বা দুম্বা জবেহ করা। গরু, মহিষ বা উট হলে তার ৭ ভাগের এক ভাগ দেয়া।

– যদি কেউ হজ বা ওমরার ওয়াজিব আদায়ে ভুল করে ফেলে অথবা ইহরামের নিষিদ্ধ কোনো কাজ করে ফেলে তবে তাকে দম দিতে হবে।
– আবার অনেক সময় একাধিক দমও দিতে হয়। কারণ ইহরাম অবস্থায় কিরান হজ পালনকারী হাজি তার ত্রুটির জন্য হজ ও ওমরা উভয়টির নিয়তের কারণে ওমরার আগেই ২টি দুম দিতে হয়। কেননা কিরান হজ পালনকারী ব্যক্তি এক ইহরামেই হজ ও ওমরা পালন করবে।

বুদনা
একটি পূর্ণ গরু বা উট কুরবানি দেয়া। এটা দুটি কাজের সংঘটিত হলে দিতে হয়-
– জানাবাত তথা গোসল ফরজ অবস্থায় অথবা হায়েজ (ঋতুস্রাব) ও নিফাস (সন্তান জন্মদানের পর রক্ত নির্গত হওয়া) অবস্থায় কাবা শরিফ তাওয়াফ করলে এবং
– ওকুফে আরাফা বা আরাফাতের ময়দানে অবস্থানের পর মাথা মুণ্ডনের আগে স্ত্রীর সঙ্গে সহবাস করলে পূর্ণ গরু বা উট কুরবানি দিতে হয়।

সাদকা
ফিতরা অথবা ১ কেজি ৭৫০ গ্রাম গম বা তার মূল্য দান করাকে বোঝায়।
– সাধারণত ইহরাম অবস্থায় নিষিদ্খ কাজগুলো কোনোটি করলে অথবা হরম এলাকায় নিষিদ্ধ কোনো কাজ করলে প্রতিবিধান স্বরূপ ‘দম’ দেয়ার পাশাপাশি ক্ষেত্র বিশেষ সাদকাও দিতে হয়।
– এ সব সাদকা আদায়ে কেউ এক বা দু মুষ্টি গম দ্বারা আদায় করতে পারে।
– আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে পৌনে ২ সের (১ কেজি ৭৫০ গ্রাম্র) গম বা আটা দ্বারা আদায় করতে পারে।
– আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে সাড়ে ৩ সের (৩ কেজি ৫০০ গ্রাম) গম বা আটা সাদকা হিসেবে দিতে হয়।

মনে রাখতে হবে
হজের যে ৩টি কাজ ফরজ এর কাজা আদায় করতে হবে। এ কাজে ভুল হলে তার কোনো কাজা নেই। পরের বছর পুনরায় এ কাজগুলো আদায় করার মাধ্যমে কাফফারা আদায় করতে হবে।

সুতরাং হজ ও ওমরা আদায়ে অবশ্যই নিষিদ্ধ কাজগুলোর ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। যাতে এমন কোনো নিষিদ্ধ কাজ না হয়; যার কারণে দম, বুদনা বা সাদকা দিতে হয়।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে হজ ও ওমরার কাজগুলো ধীরস্থিরভাবে পালন করার তাওফিক দান করুন। দম, বুদনা ও সাদকা দেয়ার মতো কাজ থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফ উপজেলা যুবদলের সম্মেলনকে ঘিরে প্রাণচাঞ্চল্য : চাপিয়ে দেয়া কমিটি মানবে না!

 বিচার শুরুর অপেক্ষায় খালেদা জিয়ার আরও ৭ মামলা

অক্টোবর থেকে সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল শুরু

প্রধানমন্ত্রীকে আল্লামা শফীর অভিনন্দন

রাত ১০-১১টার পর ফেসবুক বন্ধ চান রওশন এরশাদ

আফগানদের কাছে বাংলাদেশের শোচনীয় পরাজয়

আজ পবিত্র আশুরা

দেশের স্বার্থেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : প্রধানমন্ত্রী

সরকারের শেষ সময়ে আইন পাসের রেকর্ড

রাঙ্গামাটিতে ঘুম থেকে তুলে দু’জনকে গুলি করে হত্যা

শেখ হাসিনার গুডবুক ও দলীয় হাই কমান্ডের তরুণ তালিকায় যারা

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার নিয়ে ‘ধোঁয়াশা’ কাটবে এ মাসেই

বিষাদময় কারবালার ইতিহাস

পবিত্র আশুরা : সত্যের এক অনির্বাণ শিখা

নবাগত জেলা জজ দায়িত্ব গ্রহন করে কোর্ট পরিচালনা করলেন

নজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমান

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে  “শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, সংবাদপাঠ ও সাংবাদিকতা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা 

রামুর কচ্ছপিয়াতে রুমির বাল্য বিবাহের আয়োজন

সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে- এমপি কমল

আইসক্রিমের নামে শিশুরা কী খাচ্ছে?