নিউজ ডেস্ক:
রাজশাহী ও যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ও বুধবার ভোরে এসব বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

রাজশাহীতে র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাজ্জাদ হোসেন নামে এক মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ২টার দিকে নগরীর দামকুড়া থানার কসবা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাজ্জাদ নগরীর উপকণ্ঠ হরিপুর বনপাড়া গ্রামের সাইম উদ্দিনের ছেলে। তার মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে।

র‍্যাবের ভাষ্য, নিহত সাজ্জাদ তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে থানায় মাদক ও ডাকাতিসহ ৭-৮টি মামলা রয়েছে।

র‍্যাব জানায়, মাদক কেনাবেচার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-৫ এর একটি দল দামকুড়া থানার কসবায় অভিযানে যায়। এ সময় র‍্যাব সদস্যদের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারিরা হামলা করে। আত্মরক্ষায় র্যাবও পাল্টা গুলি ছোড়ে।

উভয়পক্ষের গুলি বিনিময়ের পর ঘটনাস্থলে এক ব্যক্তিকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তবে অন্যরা পালিয়ে যান। পরে ওই ব্যক্তিকে রামেক হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিসৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এরপর খোঁজ নিয়ে নিহতের নাম পরিচয় নিশ্চিত হয় র‍্যাব।

এদিকে যশোরে ডাকাতদের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুইজন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। বুধবার ভোরে যশোর-মনিরামপুর সড়কের কানাইতলায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানান, যশোর-মণিরামপুর সড়কের কানাইতলায় দু’দল ডাকাতদের মধ্যে গোলাগুলি হচ্ছে বলে রাতে পুলিশ খবর পায়। খবর পেয়ে সেখানে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এ সময় সেখানে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই জনকে পড়ে থাকতে দেখে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে গাছ কাটা করাত, ৩টি হাঁসুয়া ও কিছু দড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম পরিচয় এখনও শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •