রোহিঙ্গা শরণার্থী কার্যক্রমে ১০৫ কর্মচারীর চাকুরী স্থায়ীকরণে হাইকোর্টের রায়

সিবিএন ডেস্ক :

রোহিঙ্গা শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের কার্যালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন পদে কর্মরত ১০৫ জন অস্থায়ী কর্মচারীর চাকুরী আত্তীকরণের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। মাননীয় বিচারপতি মো: আশরাফুল ইসলাম এবং বিচারপতি মোহাম্মদ আলী সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বিগত ০৫ জুলাই রিট পিটিশন শুনানী অন্তে আদালত সন্তুষ্ট হয়ে রায়ে এ নির্দেশ দেন। রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে কর্মরত কর্মচারী মো: মনজুর আলম মজুমদার বাদী হয়ে সর্বমোট ১০৫ জনের জন্য করা একটি রিট আবেদনের প্রেক্ষিতে হওয়া রুলের উপর চূড়ান্ত শুনানী শেষে হাইকোর্ট কর্তৃক এই রায় প্রদান করা হয়। আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে ছিলেন সিনিয়র আইনজীবি মো: মাঈনুল ইসলাম, মো: এখলাছুল কবিরসহ অন্য দু’জন আইনজীবি। উল্লেখ্য যে, দীর্ঘ ২৫-২৬ বছর যাবত উক্ত কর্মচারীগণ সরকারের অধীনে রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে অস্থায়ী ভিত্তিতে কাজ করে আসছিলেন। যুগান্তকারী এ রায়ে ভূক্তভোগী সকল কর্মচারীগণ সন্তোষ প্রকাশ করেন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফ উপজেলা যুবদলের সম্মেলনকে ঘিরে প্রাণচাঞ্চল্য : চাপিয়ে দেয়া কমিটি মানবে না!

 বিচার শুরুর অপেক্ষায় খালেদা জিয়ার আরও ৭ মামলা

অক্টোবর থেকে সেন্টমার্টিনে জাহাজ চলাচল শুরু

প্রধানমন্ত্রীকে আল্লামা শফীর অভিনন্দন

রাত ১০-১১টার পর ফেসবুক বন্ধ চান রওশন এরশাদ

আফগানদের কাছে বাংলাদেশের শোচনীয় পরাজয়

আজ পবিত্র আশুরা

দেশের স্বার্থেই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন : প্রধানমন্ত্রী

সরকারের শেষ সময়ে আইন পাসের রেকর্ড

রাঙ্গামাটিতে ঘুম থেকে তুলে দু’জনকে গুলি করে হত্যা

শেখ হাসিনার গুডবুক ও দলীয় হাই কমান্ডের তরুণ তালিকায় যারা

মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার নিয়ে ‘ধোঁয়াশা’ কাটবে এ মাসেই

বিষাদময় কারবালার ইতিহাস

পবিত্র আশুরা : সত্যের এক অনির্বাণ শিখা

নবাগত জেলা জজ দায়িত্ব গ্রহন করে কোর্ট পরিচালনা করলেন

নজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমান

কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে  “শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, সংবাদপাঠ ও সাংবাদিকতা” বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা 

রামুর কচ্ছপিয়াতে রুমির বাল্য বিবাহের আয়োজন

সরকার শিক্ষাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে- এমপি কমল

আইসক্রিমের নামে শিশুরা কী খাচ্ছে?