পেকুয়ায় ৬ গ্রামের মানুষের একমাত্র ভরসা বাশেঁর সাকো, লোকজনের দুর্ভোগ

রিয়াজ উদ্দিন, পেকুয়া:
পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের ৬ গ্রামের মানুষের একমাত্র চলাচল মাধ্যম বাঁশের সাকো। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, ওই ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের পূর্ব পাহাড়িয়াখালী, ছনখোলা পাড়া, আবাদিঘোনা, হরিল্লাছিগা, লাইনেরশিরা, হারকিলারধারার প্রায় ২৫ হাজার জনগন ওই সাঁকো দিয়ে ঝুঁকিপূর্ন ভাবে চলাচল করে আসছে। ওই ইউনিয়নের পাহাড়ী এলাকা ছনখোলারপাড়া এলাকায় প্রচন্ড বৃষ্টির সময় ছনখোলারছড়া দিয়ে পানি নীচের নেমে আসে। এ সময় স্কুল, মাদ্রাসা পড়ুয়া ছাত্র/ছাত্রী ও এলাকার স্থানীয় জনগন যাতায়াতের সময় দারুন ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে। এলাকার বাসিন্দা আবদুল সালাম জানান, গত তিন বছর আগে স্থানীয় মেম্বার জাহাঙ্গীর আলম লোকজনের সহযোগিতায় নিজস্ব অর্থায়নে এলাকার লোকজনের চলাচলের সুবিধার স্বার্থে ছনখোলার ছড়ার উপর দুটি সাঁকো নির্মাণ করে। তিনি জানান, ওই সাঁকো দিয়ে ভারী মালামাল বহন করে নিয়ে যাওয়া কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে। তাছাড়া বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রীদের সাঁকো দিয়ে চলাচল করতে গিয়ে অনেকে পানিতে ভেসে মৃত্যুমুখে পতিত হচ্ছে। এ দিকে পাহাড়ী অঞ্চলের লোকজনের একমাত্র উপার্জনের মাধ্যম কাঠ কেটে বাজারে বিক্রি করা। অতি বর্ষনের ফলে ওই সাঁকোর অবস্থা খুবই নাজুক হয়ে পড়ে। ফলে লাকড়ী ও কাঠ নিয়ে ওই সাঁকো দিয়ে যাতায়াত করা সম্ভবপর নয়। অথচ ওই সাঁকো দিয়ে শত শত লোকজন মালামাল নিয়ে যাতায়াত করে থাকে। স্থানীয় সমাজ সর্দার জামাল মাঝি, সমাজ সর্দার শাহ আলম, নন্নামিয়া, সাহাব উদ্দিন, জসিম উদ্দিন, শফি আলম ওই গ্রামের লোকজনের যাতায়াতের সুবিধার জন্য ছনখোলাছড়ার উপর ব্রীজ নির্মাণের জন্য সরকারের নিকট দাবী জানান। তারা আরো জানান, শুধু বারবাকিয়া ইউনিয়নের লোকজন সাঁকো দিয়ে চলাচল করে না। পাশর্^বর্তী টইটং ইউনিয়নের লোকজনও চলাচল করে থাকে। স্থানীয় মেম্বার জাহাঙ্গীর আলম জানায়, তিনি জনগনের সহযোগিতায় নিজস্ব অর্থায়নে লোকজনের চলাচলের জন্য দুটি বাঁশের সাকো নির্মাণ করেছেন। তিনি দু:খ করে বলেন, পাহাড়ে হাজার হাজার লোকজনের একমাত্র চলাচল মাধ্যম বাঁশের সাঁকো হলেও সরকারীভাবে কোন অনুদান এখনও পাওয়া যায়নি। তিনিও ওই ছড়ার উপর পাকা সেতু নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

সিইসির কাছে হেলিকপ্টার চাইলেন কক্সবাজারের ডিসি

শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বিশ্বে বাংলাদেশের মর্যাদা বেড়েছে- জাফর আলম

ভারত সরকারের ত্রানের বিপুল পরিমান কম্বল বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ

বদরখালীতে স্কুলের জমি ও রাস্তা-নালা দখলে বাধা, হামলায় আহত ৪

নির্বাচনের দিন রোহিঙ্গা ক্যাম্প সিল করে দেয়া হবে: ইসি সচিব

উখিয়া-টেকনাফে ধানের শীষের পথসভায় বাধা ও মিথ্যা মামলায় গ্রেফতারের অভিযোগ

বান্দরবানে বীর বাহাদুরের জন্য ভোট চাইলেন শেখ হাসিনা

অফিস ভাংচুর ও পোস্টার ছিঁড়ে জনপ্রিয় হওয়া যায় না- লুৎফুর রহমান কাজল

মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের সফল সমাপ্তি

খরুলিয়ায় ৯ নং ওয়ার্ড আ’লীগের নির্বাচনী মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

উখিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত ২  

বায়তুশ শরফ আত্মশুদ্ধি ও মানব সেবার  অনন্য প্রতিষ্ঠান- আল্লামা কুতুব উদ্দীন

হাটহাজারীতে নির্বাচনী লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই : সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম

সাংবাদিক জাবেদের বড় ভাই জাহাঙ্গীরের মৃত্যুতে টেকনাফ পৌর প্রেসক্লাবের শোক

কক্সবাজার পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডে ধানের শীষের সমর্থনে সভা অনুষ্ঠিত

পেকুয়ায় জমি জবরদখল ও স্থাপনা নির্মাণ চেষ্টা

পেকুয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

কক্সবাজারের ডিজিটাল জনসভাকে জনসমুদ্রে পরিনত করার আহবান

শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় নেয়া আমার প্রধান লক্ষ্য- ড. আনসারুল করিম

মহেশখালীতে আনসার ও ভিডিপি সমাবেশ অনুষ্টিত