কক্সবাজারেও তারেকের পিছনে জনস্রোত !

বিশেষ প্রতিবেদক:
মহেশখালীর সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা এবং জনপ্রতিনিধি হিসেবে ইতিমধ্যে ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেছেন কালারমারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান তরুণ নেতা তারেক শরীফ। তাকে নিয়ে পুরো উপজেলাজুড়ে রয়েছে ব্যাপক সাড়া বিরাজ করে সব সময়। গত নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নিজ দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে লড়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নির্বাচিত হয়েছেন চেয়ারম্যান। উপজেলার শ্রেষ্ঠ জনপ্রিয় চেয়ারম্যান হিসেবে খ্যাতি পেয়েছেন।

এবার দেখা গেলো আরো আশ্চর্য্য চিত্র! শুধু মহেশখালী নয়; কক্সবাজার শহরেও তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়।  বুধবার (১৮ জুলাই) কক্সবাজার পৌরসভার নির্বাচনের আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী মুজিবুর রহমানের পক্ষে গণসংযোগ করেন তিনি। পৌর সভার ১নং ওয়ার্ড এর সমিতি পাড়া, কুতুবদিয়া পাড়া, নাজিরারটেক বিভিন্ন পাড়ায় গণসংযোগ করেন। গণসংযোগকালের তার পিছনে নারীসহ বিপুল মানুষের সারি বেঁধে যায়।

জানা গেছে, কুতুবদিয়া পাড়ায় তারেক শরীফের পিতা মরহুম ওসমান গণি চেয়ারম্যানের একটি বাড়ি রয়েছে। তিনি জীবিত থাকালে সেখানে মাঝে মধ্যে এসে থাকতেন। এ কারণে তিনি ওই এলাকার মানুষের কাছে পরিচিত। সে সুবাদে ছোটবেলায় তারেক শরীফও মাঝে-মধ্যে ওই এলাকায় যেতেন। তবে সবার কাছে খুব একটা পরিচিত ছিলেন না। কিন্তু তিনি কালারমারছড়ায় রাজনীতিতে নামার পর গরীব-দুঃখীসহ সাধারণ মানুষের সুখে-দুঃখে এগিয়ে তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। ধীরে ধীরে মহেশখালী উপজেলা ছাড়িয়ে পুরো জেলাতে ছড়িয়ে যায়।

কুতুবদিয়াপাড়ার লোকজন জানান, তারেক ১নং ওয়ার্ডে মাঝে মাঝে আসতেন। তখন এলাকার মানুষের সাথে মোটামুটি যোগাযোগ করতেন। মানুষের সুখ-দুঃখের কথা জানতে চেষ্টা করতেন। তবে এলাকার প্রায় মানুষ জানতেন তিনি ব্যাপক জনপ্রিয়-জনদরদী একজন নেতা ও চেয়ারম্যান। যা এখানে এলেও আমরা দেখতে পেতাম। সে কারণে এখানকার মানুষ তার ভক্ত হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তারেক চেয়ারম্যান বলেন, ‘কুতুবদিয়া পাড়ায় আমাদের একটা বাড়ি আছে। বাবা বেঁচে থাকাকালে সেখানে এসে থাকতেন। সে সুবাদে আমিও মাঝে মাঝে আসতাম। তখন থেকে পুরো ১নং ওয়ার্ডের মানুষকে আপন করে নিই। সেখানকার লোকজনও আমাকে ভালোবাসেন। দলের প্রার্থী মুজিবুর রহমানের পক্ষে গণসংযোগ করতে যাই। সেখানে বিপুল মানুষ আমার সাথে ছিলেন। সবাইকে আমি নৌকা ভোট দিতে আহ্বান জানিয়েছি। তারাও আমাকে নৌকায় ভোট দেয়ার কথা দিয়েছেন।’

সর্বশেষ সংবাদ

ভারতের রাজনীতিতে যেভাবে প্রভাব ফেলবে বাংলাদেশের নির্বাচন

চার পয়েন্টকে গুরুত্ব দিয়ে তৈরি হচ্ছে আ.লীগের ইশতেহার

মহেশখালীতে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

দলের সিদ্ধান্ত কতটুকু মানবেন বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীরা?

মওলানা ভাসানীর ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বিয়ের আগেই ৪৫০ কোটি টাকার বাংলো উপহার

ভারতের তামিলনাডুতে ‘গাজা’র আঘাতে প্রাণ গেল ৩০ জনের

প্রিন্স সালমানই খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিলেন : সিআইএ

শতভাগ সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না: কবিতা খানম

নির্যাতিত হয়ে সৌদি আরব থেকে ফেরত আসলেন ২৪ নারী কর্মী

মিয়ানমারের মানবতাবিরোধী অপরাধের তদন্ত করবে জাতিসংঘ

চট্টগ্রামের প্রয়াত চারনেতার বিশেষত্ব ছিল এরা দুঃসময়ে সাহসী : নাছির

বদরখালীতে কিশোরের জুতার ভেতর থেকে ইয়াবা উদ্ধার

জাতীয়করণ হলো টেকনাফ এজাহার বালিকা উচ্চবিদ্যালয়

৪ বছরের শিশু নিহানকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

অপরাধ দমনে চট্টগ্রামে আইপি ক্যামেরা বসাচ্ছে সিএমপি পুলিশ 

বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত হয়নি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়

রামুতে ৩৮ হাজার ইয়াবার ট্রাক সহ আটক ২

খুরুস্কুল বাসীকে কাঁদিয়ে চির বিদায় নিল মেধাবী ছাত্র মিশুক

টেকনাফে অভিযানেও থামছে না ৩ ভাইয়ের ইয়াবা বানিজ্য