ডেস্ক নিউজ:
বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় মৃত্যুর ৩২ বছর পরে বিষখালী নদীর ভাঙনে কবর থেকে বেরিয়ে আসে মৃত মোতাস্বের আলীর অক্ষত লাশ। এতে জনমনে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সোমবার উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের কালীবাড়ী গ্রামের বিষখালী নদীর তীর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। মোতাস্বের আলীর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৪ সালের প্রথম দিকে কাকচিড়া কালীবাড়ী গ্রামের খলিফা বাড়ির মোতাস্বের আলীর মৃত্যু হয়েছে। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে ছিল। মোতাস্বের আলী জীবিত থাকা অবস্থায়ই তার ছেলে মারা যায়। পরবর্তীতে তার মৃত্যুর পর স্ত্রী ও মেয়ে মারা যায়।

মৃত মোতাস্বের আলীর মেয়ের ঘরে এক নাতি আছেন এবং তিনি সৌদিপ্রবাসী। তিনি জীবনের প্রথম দিকে সাধারণ জীবনযাপন করতেন এবং ছারছীনা দরবার শরিফের অনুসারী ছিলেন। পরে বামনা উপজেলার চলাভাংগা দরবার শরিফের পীর মৃত মাওলানা আবদুর রশিদের নৌকার মাঝি হিসেবে দায়িত্বপালন করতেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কাকচিড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন পল্টু জানান, সোমবার স্থানীয় কিছু লোক নদীর তীরে ভাঙা কবরস্থানে সাদা কাপড় দেখতে পেলে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় কবর থেকে মোতাস্বের আলীর লাশটি উদ্ধার করা হয়।

লাশটি দেখার জন্য বহু লোকের সমাগম হয়েছে। পরে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে স্থানীয় মোকসেদ আলী মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদের পাশে নতুন কবরে লাশ দাফন করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •