ফাইনাল হেরে রেফারিকে দুষলেন ক্রোয়েশিয়া কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক:
স্কোরকার্ড বলছে রোববার বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে ফ্রান্সের কাছে ৪-২ ব্যবধানে উড়ে গিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। অথচ যারা ম্যাচ দেখেছেন বা ম্যাচের খুঁটিনাটি তথ্য বিশ্লেষণ করেছেন তারা জানেন স্কোরবোর্ড কতোটা মিথ্যা বলছে ফাইনাল ম্যাচে।

কেননা ম্যাচের প্রায় পুরোটা সময় আধিপত্য বিস্তার করেছে ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু ম্যাচের ৯০ মিনিট শেষে গোল বেশি ফ্রান্সের। ক্রোয়েশিয়ার জালে ফরাসিদের ৪ বার বল ঢুকলেও, এর মধ্যে দুইটিই ছিল বিতর্কিত। এই দুই গোলের দায় সরাসরি রেফারির ঘাড়েই দিচ্ছেন ক্রোয়েশিয়ার কোচ জ্বলাতকো দালিচ।

ম্যাচের ১৮তম মিনিটে গ্রিজম্যানের ফ্রিকিক থেকে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালেই বল ঢুকিয়ে দেন মারিও মানজুকিচ। ভিডিও রিপ্লেতে দেখা যায় ফ্রিকিক দেয়া হয়েছিল যে ফাউলের কারণে সেটি আদতে ফাউল ছিলই না। গ্রিজম্যান নাটক করে ফাউল আদায় করে নিয়েছিলেন।

পরে ম্যাচের ৩৫তম মিনিটে ডি বক্সের ভেতরে ক্রোয়েশিয়ার স্ট্রাইকার ইভান পেরেসিচের হাতে বল লাগলে ভিএআরের মাধ্যমে পেনাল্টি পায় ফ্রান্স। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে এগিয়ে যায় ফরাসিরা। ক্রোয়েশিয়ার কোচ সরাসরি প্রশ্ন তুলেছেন এই দুই গোল সম্পর্কে।

ম্যাচের পরে সংবাদ মাধ্যমে দালিচ বলেন, ‘প্রথমেই আমি ফ্রান্সকে অভিনন্দন জানাতে চাই। আমরা ভালো খেলেছি। প্রথম ২০ মিনিটে মূলত শুধু আমরাই ছিলাম মাঠে। এরপর প্রথমে আত্মঘাতী গোল খেলাম, তবু ম্যাচে ফিরলাম। তখনই আবার রেফারি পেনাল্টি দিয়ে দিল।’

দালিচ আরও বলেন, ‘আমি কখনোই রেফারিং নিয়ে কিছু বলিনি। এটা আমার সাথে যায় না। তবে একটা বাক্যই বলবো, বিশ্বকাপ ফাইনালের মতো ম্যাচে আপনি এমন কোন পেনাল্টি দিতে পারেন না। এটা খুবই দৃষ্টিকটু ছিল।’

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

উখিয়ায় অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন এসিল্যান্ড একরামুল ছিদ্দিক

কক্সবাজার শহরে বেড়েই চলছে চুরি ছিনতাই

হোটেল সী-গালের সংবর্ধনায় সিক্ত মেয়র মুজিবুর রহমান

বর্জ্য অপসারণে আরো একটি গাড়ি সংযোজন করলেন মেয়র মুজিব

মদ পানের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রু বহিষ্কার

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর

চকরিয়ায় পল্লীবিদ্যুতের ভুতুড়ে জরিমানা নিয়ে আতঙ্ক!

ঈদগাঁওয়ে পাহাড় কাটার দায়ে এক নারীকে ১ বছর কারাদন্ড

শুধু চালককে অভিযুক্ত করে লাভ নেই আমাদেরও সচেতন হতে হবে-ইলিয়াছ কাঞ্চন

মাওলানা সিরাজুল্লাহর মৃত্যুতে জেলা জামায়াতের শোক

কক্সবাজারের ৩দিন ব্যাপী ‘প্রাথমিক চক্ষু পরিচর্যা’ কর্মশালার উদ্বোধন

‘ঘরের ছেলে’র বিদায়ে ব্যথিত পেকুয়াবাসী

শিল্পী ফাহমিদা গ্রেফতার : জামিনে মুক্ত

‘মাশরুম একটি অসীম সম্ভাবনাময় ফসল’

তথ্য প্রযুক্তি’র সেবা সাধারণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে সরকার বদ্ধ পরিকর : শফিউল আলম

চট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬