ইসলামপুরে ছাত্রলীগ নেতার ঘরসহ জমি দখলের পাঁয়তারা

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, কক্সবাজার সদর:

কক্সবাজার সদরের ১নং ইসলামপুরে এক ছাত্রনেতার বসতবাড়ি, জমি দখল ও হামলার করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।জীবন হানীর আশংকায় পালিয়ে বেড়াছে ছাত্রলীগ নেতা ও তার পরিবার। জীবনের নিরাপত্তা এবং ন্যায় বিচারের আশায় প্রশাসনের ধারে ধারে ঘুরছে ভুক্তভোগির পরিবার।

ইসলামপুর ইউনিয়ন  ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দীন পিন্টু অভিযোগ করে জানান, ইসলামপুর ইউনিয়নের নাপিতখালী এলাকার আলী আকবর ১৯৭৩/৭৪ সালে তৎকালীন বঙ্গবন্ধু সরকারের আমলে নাপিতখালী মৌজায় ১একর ২৭ শতক জমি বন্দোবস্তি নেয়।দীর্ঘদিন তিনি স্ব-পরিবার নিয়ে বর্ণিত স্থানে বসাবাস করে আসছিল। জমির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় হঠাৎ লোলুপ দৃষ্টি পড়ে স্থানীয় জাফর আলম ও তার পুত্র নুরুল হুদার। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী মহলের ইন্দনে বাবার নামে বন্দোবস্ত জমি, বসতবাড়ি দখল ও হামলার পায়াতাঁরা চালাচ্ছে।এমন কি তারা প্রতিনিয়ত জানে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়ে যাচ্ছে।

অভিযোগ মতে, ওই সময় সম্পাদিত চুক্তি বা দলিল মোতাবেক  এই জমিগুলো গ্রহিতা আলী আকবর স্থায়ী ভাবে এর মালিক হয়।এতে বিপত্তি তোলে জাফর আলম গং উঠে পড়ে লেগে জমিগুলো দখলে নিতে। ব্যর্থ হয়ে এখন নিয়মিত হুমকি দিয়ে আসছে এ চক্রটি।

নাছিরের বাবা আলী আকবর জানান, জাফর আলম ও তার ছেলে কয়েকমাস আগে জোরপূর্বক বেশ কিছু জমি দখলপুর্বক পাহাড়ী টিলা ও গাছ কেটে পরিবেশের ক্ষতি  করে একটি ঘর নির্মাণ করলেও তৎকালীন বন কর্মকর্তারা কার্যকর কোন ব্যবস্থা নেয়নি।ফলে তারা আরো বেপরোয়া হয়ে উঠে ভুমিদস্যু চক্রটি।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে নুরুল হুদা বলেন,উক্ত জমিটে তাদেরও অংশ রয়েছে।এমন কি বন্দোবস্তিকৃত জমি গুলো ইতিপুর্বে বাতিল হয়ে গেছে।তবে নাছির উদ্দীন পিন্টু বলেন,বাতিল হওয়ার বিষয়টি সত্য নয়।এটা তাদের নতুন কৌশল।
ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ইনচার্জ মিনহাজ মাহমুদ ভুঁইয়া জানায়,এ সক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছিলাম। উভয়পক্ষকে  প্রয়োজনীয় দলিলপত্র নিয়ে স্থানীয়ভাবে বসার অনুরোধ জানানো হয়েছে। শৃংখলা বজায় রাখতে পুলিশও তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি।

সর্বশেষ সংবাদ

কেন শেখ হাসিনাকেই আবার ক্ষমতায় দেখতে চায় ভারত

দাঁতের ইনফেকশন থেকে হতে পারে হার্ট অ্যাটাক

দৈনিক স্বদেশ প্রতিদিন পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার নিযুক্ত হলেন আনছার হোসেন

তারেকের বিষয়ে ইসির কিছুই করার নেই

গণফোরামে যোগ দিলেন সাবেক ১০ সেনা কর্মকর্তা

৬০ আসনে জামায়াতের ‘দর-কষাকষি’

চকরিয়ায় মধ্যরাতে স্কুল মাঠে ঘর তৈরির চেষ্টা

চকরিয়া-পেকুয়ায় মনোনয়ন পেতে মরিয়া জাফর আলম

তারেকের ভিডিও কনফারেন্স ঠেকাতে স্কাইপি বন্ধ করল বিটিআরসি

খুটাখালী বালিকা মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ

চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের পদ শূন্য ঘোষনা

ইসির নির্দেশনা বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা জানেন না জেলা নির্বাচন অফিসার

প্রশাসন ও পুলিশে রদবদল করতে যাচ্ছে ইসি

আ’লীগের প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

মাদকের কারণে কক্সবাজারের বদনাম বেশি -অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আদিবুল ইসলাম

বঙ্গবন্ধুর দেখানো পথে কক্সবাজারকে এগিয়ে নিতে চান আনিসুল হক চৌধুরী সোহাগ

আগাম নির্বাচনি প্রচার সামগ্রী না সরানোয় জরিমানার নির্দেশ ইসি’র

টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিশ্ব টয়লেট দিবস পালিত

রাঙামাটিতে যৌথ অভিযানে তিন বোট কাঠসহ আটক ৭

বিএনপি’র প্রতীক ‘ধানের ছড়া’ না ‘শীষ’?