পেকুয়ায় ইভটিজিংয়ের শিকার নবম শ্রেণীর ছাত্রী: ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ

পেকুয়া সংবাদদাতা :

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় একদল বখাটে কর্তৃক নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রী ইভটিজিংয়ের শিকার হয়েছে। ওই ছাত্রীর নাম জান্নাতুলে কাশেফা মুন্নি। সে পেকুয়া আদর্শ মহিলা দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী ও বারবাকিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম জালিয়াকাটা গ্রামের নুরুল আবছারের কন্যা। বর্তমানে বখাটেদের উপর্যপুরি হুমকিতে ওই ছাত্রীর পরিবার অসহায় হয়ে পড়েছে। এর প্রতিকার চেয়ে ওই ছাত্রীর প্রতিষ্টানের পক্ষ থেকে ইউএনওর কাছে বখাটেদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ছাত্রীর মা মনোয়ারা বেগম অভিযোগ করেছেন, দীর্ঘদিন ধরে মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার পথে তার মেয়েকে অশ্লীল গালিগালাজসহ নানান ধরনের অশালীন কথাবার্তা বলে ইভটিজিং করে আসছিল স্থানীয় একদল বখাটে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ৪ জুলাই দুপুর ২ ঘটিকার দিকে তার মেয়ে মাদ্রাসা থেকে বাড়ী ফেরার পথে গতিরোধ করে পশ্চিম জালিয়াকা গ্রামের জসিম উদ্দিনের পুত্র মো: তারেক (২০) ও মো: আরিফ (২৫), আবুল আহমদের পুত্র মো: আমজাদ হোসেন (২৫)সহ আরো দুই জন লোক। এসময় বখাটেরা তার মেয়েকে অপহরণ চেষ্টা চালায় এবং শরীরের কাপড়-ছোপড় টেনে ছিঁড়ে দিয়ে ব্যাপক মারধর। পরে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে।

এদিকে ঘটনার পর ওই ছাত্রীর মা মনোয়ারা বেগম বখাটেদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পেকুয়া আদর্শ মহিলা দাখিল মাদ্রাসার সুপার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে মাদ্রাসা সুপার বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য মাদ্রাসার সহ সুপার ও অপর একজন শিক্ষককে দায়িত্ব দেন। এরপর মাদ্রাসার সহ সুপার ও একজন শিক্ষক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রী, অভিভাবক ও এলাকাবাসীদের সাথে কথা বলে স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন এবং ঘটনার সত্যতা পান। তারা তদন্ত প্রতিবেদন মাদ্রাসা সুপারের কাছে জমা দেন।

পেকুয়া আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার সুপাার মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, মাদ্রাসার দুই শিক্ষকদ্বারা ওই ছাত্রীর মায়ের দায়ের করা অভিযোগটি তদন্ত করা হয়েছে। তদন্তে মাদ্রাসায় আসা যাওয়ার পথে তার মাদ্রাসার নবম শ্রেণীর ছাত্রী জান্নাতুল কাশেফা মুন্নিকে ইভটিজিং করার ঘটনার সত্যতা পাওয়া যাওয়ায় জড়িত ৫ জনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মাদ্রাসার পক্ষ থেকে গত ৯ জুলাই পেকুয়ার ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

পেকুয়ার ইউএনও মোহাম্মদ মাহবুবউল আলম জানান, রোববার (১৫জুলাই) মাদ্রাসার সুপার ও ইভটিজিংয়ের শিকার ছাত্রী ও তার অভিভাবকদের অফিসে আসার জন্য বলা হয়েছে। ইভটিজিংয়ের ঘটনা সত্য হয়ে থাকলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এদিকে ইউএনওর কাছে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ করা ওই ছাত্রী ও তার পরিবারকে বিভিন্ন হুমকি-ধমকি দিয়ে অভিযোগ প্রত্যাহারের জন্য বখাটের দল প্রকাশ্যে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

cbn
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির ভবন বর্ধিতকরণে দেড় কোটি টাকা বরাদ্দ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে জলবসন্ত রোগের প্রাদুর্ভাব

টেকনাফে ইয়াবাসহ রামুর নুর আটক

পেকুয়া বিএনপির ১১ নেতাকর্মী কারাগারে

চবি ছাত্রের কোটি টাকা উৎস ইয়াবা ব্যবসা!

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নতুন আতঙ্ক আরাকান আর্মি

মুসলিম উম্মাহকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

চট্টগ্রামে কাভার্ড ভ্যান চাপায় কলেজছাত্রীর মৃত্যু

২৭ ফেব্রুয়ারি বন্ধ হচ্ছে ৭ দিনের নিচের নেট প্যাকেজ

পেঁপে চাষে ভাগ্য বদল!

পেকুয়ায় পুকুরে পড়ে দুই সন্তানের জননীর মৃত্যু

উচ্ছেদ আতঙ্কে পশ্চিম বাহারছড়ার ৫০০ পরিবার

পেকুয়ার চেয়ারম্যান ওয়াসিমসহ ৭জন কারাগারে

জীবনে সফল হতে চান? আজ থেকেই পবিত্র কোরআনের চার পরামর্শ মেনে চলুন

প্রাথমিক-ইবতেদায়ির বৃত্তির ফল মার্চের প্রথম সপ্তাহে

আইসিসির নতুন প্রধান নির্বাহী ভারতীয় মানু সনি

জামায়াতের মনোযোগ সংগঠনে

কী ঘটতে যাচ্ছে ব্রিটেনে?

বদলে গেছে ফারজানা ব্রাউনিয়ার জীবন

আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছে বদির ভাই ও স্বজনেরা