কক্সবাজার পৌর ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ড হবে দৃষ্টি নন্দন ও নাগরিকবান্ধব-ইয়াসমিন আক্তার

বিশেষ প্রতিবেদক ॥

‘যে শহরে জন্মেছিলেন কীর্তিমানেরা, যাদের কথা আজো আমার শহরের মানুষের মুখে মুখে, তাদের পথ অনুসরণ করেই চলতে চাই, আমার শহরের মানুষ যেনো সুখে থাকে, তাদের শত বিপদে আমি তাদের পাশে থাকতে চাই, নাগরিকদের এ শান্তির শহর কক্সবাজার পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডকে আমি সাজাতে চাই, পৌরসভা হবে আরো দৃষ্টিনন্দন ও নাগরিক বান্ধব’।

উপরোক্ত কথাগুলো ভোটারদের কাছে উপস্থাপন করছেন চশমা প্রতীক নিয়ে মহিলা কাউন্সিলর পদপ্রার্থী গরিব নেতৃত্বের অন্যতম নারী নেত্রী ইয়াছমিন আক্তার।

তিনি বলেন‘ অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি, পর্যটন রাজধানী খ্যাত কক্সবাজার পৌরসভার শান্তপ্রিয় জনসাধারণরা আমাকে ভালোবেসে যদি তাদের সেবা করার সুযোগ দেন তাহলে থাদেরকে নিয়েই আমি আমার কাজগুলো শুরু করবো, তারা যেটা করলে ভালো হবে মনে করবেন সে কাজকেই আমি সবার আগে বাস্তবায়ন করে দেখাতে চাই।

তিনি বিভিন্ন পথসভায় বলেন, সাধারণ মানুষ দলমত নির্বিশেষে আমাকে তাদের কাছে টেনে নিচ্ছেন, তাদের নানা সমস্যার কথাগুলো আমাকে বলছেন এবং তাদের আনন্দের ভাগিদার করছেন আমাকে। এই শহরের ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের মানুষেরা জলাবদ্ধতার ভোগান্তিতে থাকেন। রাস্তাঘাট অনেক এলাকায়ই সংস্কার করা প্রয়োজন। অনেক এলাকায় সড়কবাতি নেই, রয়েছে ইভটিজিংসহ নানা সামাজিক সমস্যাও। আমি এ সমস্যাগুলোর সমাধানে সকলকে সঙ্গে নিয়ে ভুমিকা রাখতে চাই। আমার এলাকার প্রিয় নাগরিকদের বড় সমস্যাগুলোর সমাধান আমি করবো। এই আশ^াস আমি ব্যক্ত করছি।’

আপামর মানুষের ভালোবাসা চাইতে আমি দুয়ারে দুয়ারে হাজির হচ্ছি, তারা যেনো আমাকে সে সুযোগটা দেন, আমি সারাজীবন তাদের সেবা করে যেতে চাই, সাধারণ মানুষের পাশে থাকতে চাই, জনবান্ধব পৌরসভা গঠনে আমি তাদেরকে নিয়ে কাজ করতে চাই, এ শহরটাকে আরো সুন্দর ও সমৃদ্ধ করে তুলতে চশমা প্রতীককে বিজয় নিশ্চিত করতে পাশে থাকুন। ভোট দিন। সন্ত্রাসমুক্ত পৌরসভা গঠনে সহায়তা করুন। সম্মানিত নাগরিকদের কাছে এই প্রত্যাশাই করি।

উল্লেখ্য যে ইয়াছমিন আক্তার কক্সবাজার পৌরসভার বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন চৌধুরী পাড়া এলাকার বাসিন্দা ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সদস্য মরহুম ডা. খলিলুর রহমানের পুত্রবধূ। তার পুত্র নুরুল হুদা চৌধুরীর স্ত্রী নারী নেত্রী ইয়াছমিন আক্তার। তার বাবা ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান, রামু থানার অন্তর্গত খুনিয়া পালং ইউনিয়নের জনদরদী সাবেক চেয়ারম্যান আব্দু রহমান সওদাগর ও তার মা নুরনাহার বেগম ও একাধিকবার ইউপি সদস্য ছিলেন। ইয়াছমিন আক্তার বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সদস্য, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের কক্সবাজার জেলা শাখার অন্যতম সদস্য এবং জেলার বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সেবামূলক সংগঠনের সাথে জড়িত।

সর্বশেষ সংবাদ

ভোটারের ভালোবাসায় সিক্ত ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী রফিকুল ইসলাম

উখিয়ায় ফলাফল বিপর্যয়,পাশের চেয়ে ফেল বেশী

কাঙ্খিত উন্নয়নের স্বার্থে মুজিবুর রহমানকে মেয়র নির্বাচিত করুন- হাবিবুর রহমান সিরাজ

চকরিয়ায় বজ্রপাতে যুবক নিহত, মহিলাসহ আহত ৫

‘রোহিঙ্গা ইয়াবা হামিদ মিথ্যাচারী যৌতুকলোভী ও ধর্ষক’

পাশের সংখ্যায় কক্সবাজার সিটি কলেজ জেলায় ১ম

বর্তমান সরকারের মাধ্যমে এলাকাবাসী মাছ চাষে সফলতা অর্জন করেছে- ইলিয়াছ এমপি

কুতুবদিয়া কৈয়ারবিল ইউনিয়ন গ্রাম আদালতের শুনানী কার্যক্রম উদ্বোধন

জেলা পর্যায়ে শীর্ষস্থানে মঈন উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজ

চকরিয়ায় শখের বশে ফুটবল খেলতে গিয়ে পানিতে ডুবে শ্রমিকের মৃত্যু

সদর হাসপাতালে রোগী থাকে বারান্দায়!

মুজিবুর রহমানের ২০ দফা ইশতেহার ঘোষণা

প্রসূতি মায়ের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করেছে শেখ হাসিনার সরকার-এমপি বদি

‘গাছের মতো উপকারী বন্ধু আর নেই’ 

উখিয়ায় জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন

উগ্রবাদ বিষয়ে রচনা লিখে জাতিসংঘে যাচ্ছে পেকুয়ার কলেজ ছাত্রী তনিমা

৯ ওয়ার্ডে শওকত আলমের পাঞ্জাবি মার্কার পক্ষে গণজোয়ার

পুলিশ-আওয়ামী লীগ মিলে নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে -সরওয়ার কামাল

এইচএসসি ফলাফলে কক্সবাজার সরকারী কলেজ গৌরব ধরে রেখেছে

নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবির উদ্যোগে মাছের পোনা অবমুক্ত ও বৃক্ষ রোপণ