মেধাবী ছাত্র তানভীর হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে উত্তাল কক্সবাজার

ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজার সরকারি কলেজের গণিত বিভাগের মেধাবী ছাত্র এএইচএম তানভীর আহমেদ এর নৃশংস হত্যাকান্ডে জড়িত খুনীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে কক্সবাজার। গত ১ সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ, মানববন্ধন, গণস্বাক্ষরসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।
খুনীদের ফাঁসি চেয়ে সোমবার (৯ জুলাই) দুপুরে কক্সবাজার আদালত প্রাঙ্গণজুড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শহীদ এএইচএম তানভীর স্মৃতি সংসদ ও দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়া সর্বস্তরের জনসাধারণের ব্যানারে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোকজন স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করে। তারা অবিলম্বে খুনের ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি দাবীর পাশাপাশি শহরকে সন্ত্রাসমুক্ত করতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবী জানান। বশর বাহিনীসহ চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে পর্যটন শহরকে আতঙ্কমুক্ত করার আহবান জানায় বক্তারা।
বিক্ষোভে বাংলাদেশ লয়ার্স এন্ড ল’স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন, কক্সবাজার আইডিয়াল মাদরাসা, প্রতিভা কক্স গ্রুপসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন অংশ গ্রহণ করে। এতে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন ২৫ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য কক্সবাজার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী সরওয়ার কামাল, রফিকুল ইসলাম, সমাজসেবক মোঃ জাফর আলম, তানভীরের মামা অধ্যাপক শওকত আলম, বড় ভাই আবু সিনা প্রমুখ।
একই দাবীতে রোববার (৮ জুলাই) দুপুরে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে শহীদ তানভীরের প্রিয় ক্যাম্পাস কক্সবাজার সরকারি কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।
এতে বক্তব্য রাখেন- কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর একেএম ফজলুল করিম চৌধুরী, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসাইন, তানভীরের প্রতিষ্ঠিত প্রতিভা কোচিং সেন্টারের আইসিটি শিক্ষক ফয়সাল তাওহিদ, প্রতিভা কোচিং সেন্টারের পরিচালক মোহাম্মদ আবু হানিফা, কলেজের প্রাক্তন ছাত্র ওয়াইপিডি প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বেলাল উদ্দীন জয় প্রমুখ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, তানভীরের মতো একটি সম্ভাবনাময়ী প্রতিভাকে অকালে নিভিয়ে দিলো সন্ত্রাসীরা। অপরাধীদের শাস্তির আওতায় আনা না গেলে ভবিষ্যতে আরো অনেক সম্ভাবনাময়ী ছেলে ঝরে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে।
তারা বলেন, আমরা তানভীরকে আর ফিরে পাবো না। কিন্তু হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হলে তানভীরের আত্মা শান্তি পাবে। পাশাপাশি আর কোনো সম্ভাবনাময়ী তানভীরকে এভাবে অকালে প্রাণ দিতে হবে না। খালি হবেনা কোন মায়ের বুক। স্বস্তি পাবে এলাকাবাসী।
প্রসঙ্গত, গত ২৯ জুন কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়ার আশুরঘোনা এলাকায় জুমার নামাজের পর একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে কথা বলার জের ধরে এইচএম তানভীরকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। সে ওই এলাকার মোহাম্মদ সোলাইমানের ছেলে। ঘটনায় নিহতের ভাই আবু সিনা বাদি হয়ে সদর থানায় মামলা করেছেন। মূল আসামী আবুল বশর প্রকাশ ডাকাত বশরসহ দুইজন গ্রেফতার হয়েছে। বাকী আসামীসহ সব সন্ত্রাসীদের ধরার চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে জানান কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি মো. ফরিদ উদ্দিন খন্দকার।

সর্বশেষ সংবাদ

৯ শর্তে আত্মসমর্পণ করছে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা

শুরু হচ্ছে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের আত্মমসমর্পণ অনুষ্ঠান

জনপ্রিয় হয়ে উঠছে পার্চিং পদ্ধতি

ঈদগড়ের সবজি দামে কম, মানে ভাল

রক্তদানে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে

যে মঞ্চে আত্মসমর্পণ

লামার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইসমাইল আর নেই

আজ আত্মসমর্পণ করবে টেকনাফের ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ী

আত্মসমর্পণের উদ্যোগের মধ্যেও ঢুকছে ইয়াবার চালান

বনাঞ্চলের কাঠ পোড়ানো হচ্ছে ইটভাটায়

চলে গেলেন কবি আল মাহমুদ

২ লক্ষ ইয়াবাসহ আত্মসমর্পণ করবে আত্মস্বীকৃত ইয়াবাবাজরা

এমপি আশেককে কালারমারছড়া ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন কানিজ ফাতেমা

সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের একুশের অনুষ্ঠান ১৯, ২০, ২১ ফেব্রুয়ারি

‘অধিগ্রহণের আগে মহেশখালীর মানুষকে পুনর্বাসন করুন’

পেকুয়ায় চার প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন এমপি জাফর আলম

জেলা টমটম মালিক ও টমটম গ্যারেজ মালিক সমিতির যৌথ সভা

রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ৯২ কোটি ডলার চায় জাতিসংঘ

পালিয়ে থাকা ইয়াবা ব্যবসায়ীদের রক্ষা নাই -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী