ঘুষ গ্রহণের মামলায় কতুবদিয়া থানার সাবেক এসআই কারাগারে

বিশেষ প্রতিবেদক:
ঘুষ গ্রহণের মামলায় কক্সবাজারের কতুবদিয়া থানার সাবেক উপ পরিদর্শক (এসআই) এবিএম কামালউদ্দিনকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। এক ‘ভূক্তভোগী’র দায়ের করা একটি মামলার ২নং আসামী হিসাবে তিনি আজ সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় কক্সবাজারের সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক মীর শফিকুল আলম এসআই কামালের জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। বিকালে তাকে কক্সবাজার কারাগারে পাঠানো হয়। তিনি বর্তমানে ঢাকার ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের এসআই হিসাবে কর্মরত রয়েছেন। ঘুষ গ্রহণ মামলার এক নম্বর আসামী কুতুবদিয়া থানার সাবেক ওসি আলতাফকে গত ১৯ জুন কারাগারে পাঠানো হয়।

এসআই কামালের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার এজাহারে বাদির দাবী, কুতুবদিয়ার ছিন্নি খাইয়া পাড়ার মৃত নজির আহম্মদ এর ছেলে উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মচারী ফরিদুল আলমকে পারিবারিক অভাব অনটনের কারণে ২০১৪ সালের ১৮ জুন সকালে তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম ডেজি ও ছেলে অহিদুল আলম (রিয়াদ) হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের মা নুর জাহান বেগম বাদী হয়ে মামলা করতে গেলে কুতুবদিয়া থানার ওসি আলতাফ হোসেন এক লক্ষ টাকা ঘুষ দাবী করে। ছেলে হত্যার ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় ওই বৃদ্ধা এসআই এবিএম কামাল উদ্দিনের মাধ্যমে ওসি আলতাফ হোসেনকে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দেন। কিন্তু ওসি আলতাফ হোসেন নুরজাহানের দায়ের করা এজাহারটি আমলে না নিয়ে উল্টো নিহতের ছেলে মোহাম্মদ তৌহিদুল আলমের কাছ থেকে মোটা অংকের ঘুষ নিয়ে অন্য একটি মামলা গ্রহণ করে। যে মামলায় নিহতের বৃদ্ধ মা নূর জাহান, নিহতের দুই ভাই ইস্কান্দর মির্জা ও মাহবুব আলমকে আসামী করা হয়। সেই মামলায় দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন দুই ভাই।

এনিয়ে ইস্কান্দর মির্জার স্ত্রী জামিলা আকতার বাদি হয়ে কক্সবাজার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে কুতুবদিয়া থানার ওসি আলতাফ ও এসআই এবিএম কামাল উদ্দিনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন।

এ বিষয়ে দুদকের পিপি এডভোকেট আবদুর রহিম বলেন, বাদীনির লিখিত অভিযোগ পেয়ে কক্সবাজার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতের তৎকালীন বিচারক সাদিকুল ইসলাম তালুকদার মামলাটি আমলে নিয়ে দুদককে তদন্তের নির্দেশ দেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৭ সালের ১৫ মার্চ ওসি এবং এস আই ‍দুইজনকেই অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দেয় তদন্ত কর্মকর্তা অজয় ঘোষ। এরপর তাঁদের বিরুদ্ধে আদালত থেকে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করা হয়। সেই গ্রেফতারি পরোয়ানা মূলে মামলার ২ নং আসামী এসআই কামাল আজ সোমবার আদালতে আতœসমর্পন করলে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। একই মামলায় আদালত গত ১৯ জুন ওসি আলতাফ হোসেনকে জেল হাজতে পাঠায়।

সর্বশেষ সংবাদ

বাইশারীতে বিদুৎ সংযোগ উদ্বোধন

জাতিসংঘের গণহত্যা বিষয়ক প্রধান আদামা দিয়েং এখন কক্সবাজারে

গ্রহনযোগ্য নির্বাচন হয়েছে : এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা

অদম্য গতিতে এগিয়ে চলার মূল প্রেরণা রাষ্ট্রের স্বাধীনতা

চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ-এ গণহত্যাদিবস উদযাপন

শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হলেন অধ্যাপক ফরিদ

দুবাই কনস্যুলেটে গণহত্যা দিবস পালিত

ভাইরাল সেই ছবি নিয়ে যা বললেন আবুল কালাম চেয়ারম্যান …..

পিইসিতে মেধা তালিকায় দুইজনসহ কক্সন মাল্টিমিডিয়া স্কুলের ঈর্ষণীয় সাফল্য

কক্সবাজার জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হলেন রফিকুল ইসলাম খান

শহীদ এটিএম জাফরের পক্ষে স্বাধীনতা পদক গ্রহণ করলেন ছোট ভাই শাহ আলম

জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভা

এপ্রিলে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

সদর উপজেলায় প্রার্থীতা ফিরে পেলেন নুরুল আবছার

ইকবাল বদরী : একজন বিরল সমাজ সেবক

জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ স্কাউট শিক্ষক কোরক বিদ্যাপীঠের আনচারুল করিম

সাগরপাড়ের শিশুদের নিরাপত্তায় পদক্ষেপ নেয়া হবে

সোমবার স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন কক্সবাজারের শহীদ জাফর আলম

ঈদগাঁও পল্লী বিদ্যুতের সাব জোনাল অফিসকে জোনালে উন্নতিকরন

আমিরাতে রিহ্যাব ক্ষুদে আঁকিয়ে সিরিজের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা