চকরিয়ায় অবৈধ বালুর স্তুপে বন্ধ হচ্ছে চলাচল সড়ক

চকরিয়া সংবাদদাতা:
চকরিয়ায় ছড়াখালে ড্রেজিং মেশিন বসিয়ে উত্তোলন করা বালুর স্তুপে বন্ধ হয়ে গেছে কয়েক হাজার মানুষের চলাচল সড়ক। ছড়াখালের বেড়িবাঁধ থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করায় পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি মানুষের জমিজমা নদীর গর্ভে বিলিন হয়ে যাচ্ছে। উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের শান্তিরঘাট ডুলাহারছড়া খাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। অবৈধভাবে ড্রেজারের মাধ্যমে উত্তোলনকৃত বালু স্তুপ করে রাখছে চলাচল সড়কের উপরে। এতে ইউনিয়নের শান্তিরঘাট, উলুবনিয়া, কাটাখালী, পূর্বডুমখালী, রিজার্ভ পাড়া এলাকার কয়েক হাজার লোকজন চলাচল চরম ভোগান্তিতে পড়ছে।
সূত্র মতে, শান্তিরঘাটের ডুলাহারছড়া খাল থেকে ইজারা বহির্ভূত বালু উত্তোলনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সাবেক উলুবনিয়া গ্রামের ও বর্তমান শান্তিরঘাট এলাকার বাসিন্দা মৃত হাফেজ আহমদের পুত্র ছাবের আহমদ। বর্ণিত ডুলাহারছড়া খাল সংলগ্ন তার বাসভবনের সামনে একটি বসতভিটে বলুর স্তুপে ডুবে যাচ্ছে। অপর একটি বসতঘরের তলদেশ থেকে বালু উত্তোলন করায় যেকোনো সময় বসতঘরটি পানির স্রুতে তলিয়ে যেতে পারে।
পার্শ্ববর্তী পূর্বডুমখালী এলাকার মৌলানা ফজল আহমদ নামক এক ব্যক্তি অভিযোগে জানান ডুলাহারছড়া খালের সাথে সংযুক্ত তার বিএস খতিয়ানের দুই দাগের জমি রয়েছে। ইতোমধ্যে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করায় তার জমি সীমানার পাড় ভেঙ্গে প্রায় দশ শতক জমি খালের সাথে বিলিন হয়ে গেছে। অবৈধ বালু উত্তোলনে এখনো জমির অংশ ভাঙ্গতে থাকায় জড়িত ছাবেরকে নিষেধ করলে উল্টো তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি প্রদর্শন করে। অথচ ২০১০ সালের বালুমহাল আইনে বলা আছে, বিপণনের উদ্দেশ্যে কোনো উন্মুক্ত স্থান, বাগানের ছড়া বা নদীর তলদেশ থেকে বালু বা মাটি উত্তোলন করা যাবেনা।
এ ছাড়া সেতু, কালভার্ট, ড্যাম, ব্যারাজ, বাঁধ, সড়ক, মহাসড়ক, বন, রেললাইন ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা অথবা আবাসিক এলাকা থেকে বালু ও মাটি উত্তোলন নিষিদ্ধ। অভিযুক্ত ছাবের আহমদ বলেন তার নিজের নামে কোন ইজারা নেই। যাদের নামে বালু তোলার ইজারা আছে তাদের সাথে সে চুক্তি করে বালু উত্তোলন করছে।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মু. শিবলী নোমান জানান, বিষয়টি এসিল্যান্ড সাহেবকে জানিয়ে দিচ্ছি। কেউ যদি ছড়া থেকে ডেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

`রাঙামাটির রূপ দিনদিন হারিয়ে যেতে চলেছে’

বান্দরবানে শ্রেষ্ঠ উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কালাম হোসেন

বর্তমান সরকারই পাহাড়ের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে : বীর বাহাদুর এমপি

কুতুবদিয়ায় শহীদ উদ্দিন ছোটনসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

লামায় ক্যাম্প প্রত্যাহার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও রাজার সনদ বাতিল দাবীতে মানববন্ধন

লবণ আমদানি হবেনা, মজুদদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা -শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

১ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন লবণ উদ্বৃত্ত, তবু আমদানির চক্রান্ত

ঈদগাঁও থেকে দোকানদার অপহরণঃ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী!

‘হিংসাবিহীন মানুষ পাওয়া কঠিন’

যখন দশম শ্রেণির ছাত্রী এই সময়ের পিয়া

উখিয়ায় অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন এসিল্যান্ড একরামুল ছিদ্দিক

কক্সবাজার শহরে বেড়েই চলছে চুরি ছিনতাই

হোটেল সী-গালের সংবর্ধনায় সিক্ত মেয়র মুজিবুর রহমান

বর্জ্য অপসারণে আরো একটি গাড়ি সংযোজন করলেন মেয়র মুজিব

মদ পানের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রু বহিষ্কার

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর