জাকির নায়েককে প্রত্যর্পণে ভারতের আবেদন নাকচ

অনলাইন ডেস্ক : ইসলামী বক্তা জাকির নায়েককে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে মালয়শিয়া। আজ শুক্রবার এই কথা জানিয়েছে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ।

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসবাদের উস্কানি’ ও মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগে মামলা করেছে ভারত সরকার। যদিও তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। মামলার পর গ্রেফতার এড়াতে মালয়শিয়ায় আশ্রয় নেন জাকির। মালয়শিয়া সরকার তাঁকে স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদাও দিয়েছে।

তবে ভারত এবং মালয়শিয়ার সঙ্গে যেহেতু বন্দি প্রত্যর্পণের চুক্তি রয়েছে তাই জাকিরকে ফেরত পাঠানোর জন্য মালয়শিয়া সরকারের কাছে অনুরোধ করে ভারত।

কেন তাকে ভারতে পাঠানো হবে না, এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির বলেন, “জাকির নায়েক এখানে কোনো সমস্যার সৃষ্টি করেননি। তা ছাড়া উনি আমাদের দেশে স্থায়ী বাসিন্দা। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো সমস্যা সৃষ্টি করছেন না, ততক্ষণ তাকে ফেরত পাঠানো হবে না।”

গত কয়েকদিন ধরে নামহীন সূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়া জাকিরকে মালয়েশিয়া থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে মর্মে খবর প্রকাশ করে আসছিলো। ইসলামী বক্তা জাকির নায়েককে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে মালয়শিয়া। আজ শুক্রবার এই কথা জানিয়েছে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ।

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসবাদের উস্কানি’ ও মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগে মামলা করেছে ভারত সরকার। যদিও তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। মামলার পর গ্রেফতার এড়াতে মালয়শিয়ায় আশ্রয় নেন জাকির। মালয়শিয়া সরকার তাঁকে স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদাও দিয়েছে।

তবে ভারত এবং মালয়শিয়ার সঙ্গে যেহেতু বন্দি প্রত্যর্পণের চুক্তি রয়েছে তাই জাকিরকে ফেরত পাঠানোর জন্য মালয়শিয়া সরকারের কাছে অনুরোধ করে ভারত।

কেন তাকে ভারতে পাঠানো হবে না, এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির বলেন, “জাকির নায়েক এখানে কোনো সমস্যার সৃষ্টি করেননি। তা ছাড়া উনি আমাদের দেশে স্থায়ী বাসিন্দা। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো সমস্যা সৃষ্টি করছেন না, ততক্ষণ তাকে ফেরত পাঠানো হবে না।”

গত কয়েকদিন ধরে নামহীন সূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়া জাকিরকে মালয়েশিয়া থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে মর্মে খবর প্রকাশ করে আসছিলো।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা

কক্সবাজারে হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ফিরে পেলেন পর্যটক

সুষ্ঠু নির্বাচনে জাতীয় ঐক্য

সঠিক কথা বলায় বিচারপতি সিনহাকে দেশত্যাগে বাধ্য করেছে সরকার : সুপ্রিম কোর্ট বার

সিনেমায় নাম লেখালেন কোহলি

যুক্তরাষ্ট্রের কথা শুনছে না মিয়ানমার

তানজানিয়ায় ফেরিডুবিতে নিহতের সংখ্যা শতাধিক

যশোরের বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে পিস্তল,গুলি, ম্যাগাজিন ও গাঁজাসহ আটক-১

তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা অনেক বেশি জরুরি- কক্সবাজারে মোস্তফা জব্বার

চলন্ত অটোরিকশায় বিদ্যুতের তার, দগ্ধ হয়ে নিহত ৪

খরুলিয়ায় বখাটেকে পুলিশে দিলো জনতা, রাম দা উদ্ধার

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়

খুরুশকুলে সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্র আহত

নুরুল আলম বহদ্দারের কবর জিয়ারত করলেন লুৎফুর রহমান কাজল

জীবনের প্রথম প্রচেষ্টাতে ঈর্ষনীয় সাফল্য মৌসুমীর

এলআইসিটি বেস্ট অ্যাওয়ার্ড পেলো চবি শিক্ষার্থী নিপুন