জাকির নায়েককে প্রত্যর্পণে ভারতের আবেদন নাকচ

অনলাইন ডেস্ক : ইসলামী বক্তা জাকির নায়েককে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে মালয়শিয়া। আজ শুক্রবার এই কথা জানিয়েছে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ।

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসবাদের উস্কানি’ ও মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগে মামলা করেছে ভারত সরকার। যদিও তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। মামলার পর গ্রেফতার এড়াতে মালয়শিয়ায় আশ্রয় নেন জাকির। মালয়শিয়া সরকার তাঁকে স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদাও দিয়েছে।

তবে ভারত এবং মালয়শিয়ার সঙ্গে যেহেতু বন্দি প্রত্যর্পণের চুক্তি রয়েছে তাই জাকিরকে ফেরত পাঠানোর জন্য মালয়শিয়া সরকারের কাছে অনুরোধ করে ভারত।

কেন তাকে ভারতে পাঠানো হবে না, এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির বলেন, “জাকির নায়েক এখানে কোনো সমস্যার সৃষ্টি করেননি। তা ছাড়া উনি আমাদের দেশে স্থায়ী বাসিন্দা। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো সমস্যা সৃষ্টি করছেন না, ততক্ষণ তাকে ফেরত পাঠানো হবে না।”

গত কয়েকদিন ধরে নামহীন সূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়া জাকিরকে মালয়েশিয়া থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে মর্মে খবর প্রকাশ করে আসছিলো। ইসলামী বক্তা জাকির নায়েককে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে মালয়শিয়া। আজ শুক্রবার এই কথা জানিয়েছে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মহাথির মহম্মদ।

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে ‘সন্ত্রাসবাদের উস্কানি’ ও মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগে মামলা করেছে ভারত সরকার। যদিও তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। মামলার পর গ্রেফতার এড়াতে মালয়শিয়ায় আশ্রয় নেন জাকির। মালয়শিয়া সরকার তাঁকে স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদাও দিয়েছে।

তবে ভারত এবং মালয়শিয়ার সঙ্গে যেহেতু বন্দি প্রত্যর্পণের চুক্তি রয়েছে তাই জাকিরকে ফেরত পাঠানোর জন্য মালয়শিয়া সরকারের কাছে অনুরোধ করে ভারত।

কেন তাকে ভারতে পাঠানো হবে না, এই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির বলেন, “জাকির নায়েক এখানে কোনো সমস্যার সৃষ্টি করেননি। তা ছাড়া উনি আমাদের দেশে স্থায়ী বাসিন্দা। যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো সমস্যা সৃষ্টি করছেন না, ততক্ষণ তাকে ফেরত পাঠানো হবে না।”

গত কয়েকদিন ধরে নামহীন সূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়া জাকিরকে মালয়েশিয়া থেকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে মর্মে খবর প্রকাশ করে আসছিলো।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

চবি উপাচার্যের সাথে মিশর আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে সংবর্ধনা

বিমানবন্দর থেকে ইয়াবাসহ বরিশালের দুই তরুণী

ইয়াবা পাচারের দায়ে টেকনাফের যুবকের ১০ বছর জেল

মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে আ. লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন সিরাজুল মোস্তফা!

উলঙ্গ থাকার বিধান কী?

গ্যারেজে চাকরি করা প্রবাসী, কাগজ ব্যবসায় কোটিপতি

হঠাৎ স্যামসাং স্মার্টফোন বিস্ফোরণ! তারপর…

হাটহাজারীতে পিকআপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

দেড় লাখ ইভিএম কেনার সিদ্ধান্ত

দেশে দারিদ্র্যের হার আরও কমেছে

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় ১০ অক্টোবর

জাতীয়করণ হতে যাচ্ছে রাঙামাটির ৮০টি বিদ্যালয়!

চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্রলীগের কমিটিতে পদ বঞ্চিতদের বিক্ষোভ

প্রধানমন্ত্রী সমীপে মহেশখালীর প্রবীণ রাজনীতিবিদ ডাঃ নুরুল আমিন জাহেদের খোলাচিঠি

টেকনাফে বিজিবি’র অভিযানে তিন কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার

নুরজাহান আশরাফী কুতুবদিয়া উপজেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষিকা নির্বাচিত

প্রতিবন্ধী কোটা বহাল রাখার দাবী চবি শিক্ষার্থীদের

এবার স্কুলের দেয়াল পরিষ্কারে নেমেছেন কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ

রোহিঙ্গা যুবতী প্রেমিকসহ আটক শীর্ষক সংবাদের সংশোধনী