সুপারী বাগান থেকে ১কোটি ২০ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

গিয়াস উদ্দিন ভুলু,টেকনাফ :
সীমান্ত এলাকা টেকনাফের বেশীর ভাগ ইয়াবা কারবারী পাচার কার্য্যক্রম এখনো অব্যাহত রাখার চেষ্টা করছে। তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়,এই উপজেলার প্রতিটি এলাকায় নিত্য-নতুন পাচারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনুসন্ধানে আরো জানা যায় এই সমস্ত ইয়াবা কারবারীদের নাম প্রশাসনের তালিকার মধ্যে নেই। তাই তারা মনের আনন্দে সু-কৌশলে ইয়াবা পাচার অব্যাহত রাখার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে এরা কারা,মাদক বিরোধী চলমান অভিযানের মধ্যেও কিভাবে এই অপকর্ম চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে।
এদিকে ৪ জুলাই গভীর রাতে টেকনাফ ২ বিজিবি সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সাবরাং ইউনিয়ন চান্দলী পাড়া একটি সুপারী বাগানে অভিযান চালিয়ে কারবারীদে লুকিয়ে রাখা ৪০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। এই খবরটি চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে স্থানীয়দের মাঝে দেখা দিয়েছে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া। কেউ বলছে মাদক বিরোধী চলমান অভিযানের মধ্যেও কিভাবে কারবারীরা সক্রিয় রয়েছে, কিভাবে এই মরন নেশা ইয়াবা পাচারে এখনো তারা লিপ্ত রয়েছে। এরা কারা, তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসছে না কেন। আবার অনেকেই বলছে চলমান মাদক বিরোধী অভিযান থেকে নিজেকে বাঁচানোর জন্য দীর্ঘদিন আগে মিয়ানমার থেকে নিয়ে আসা হাজার হাজার ইয়াবা সু-কৌশলে মাঠির নিচে লুকিয়ে রেখেছে স্থানীয় ইয়াবা কারবারীরা। অভিযান একটু জিমিয়ে পড়ার সাথে সাথে যেন পাচার কার্য্যক্রম আবার শুরু করতে পারে। বিজিবি সুত্রে জানা যায়, ৪ জুলাই বিজিবি সদস্যরা সাবরাং ইউনিয়ন চান্দলী পাড়া একটি সুপারী বাগানে অভিযান চালিয়ে ৪০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। তবে এসময় কোন পাচারকারী আটক পারেনি বিজিবি।
২ বিজিবি অধিনায়ক লে.কর্ণেলআছাদুদ- জামান চৌধুরী জানান, বুধবার দিনগত রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সাবরাং বিওপির একটি টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চান্দলী পাড়া এলাকায় একটি সুপারী বাগানে তল্লাশী চালিয়ে ইয়াবা গুলো উদ্ধার করে।
সুপারী বাগানে একটি ঝুপের ভেতর কালো পলিথিনে মোড়ানো অবস্থায় ইয়াবা গুলো রাখা ছিল বলে জানান তিনি। যার আনুমানিক মূল্য এক কোটি ২০ লাখ টাকা।
তবে এই ইয়াবা গুলোর সাথে সুপারী বাগানের মালিক জড়িত আছে কিনা সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে কোন কিছু জানাতে পারেনি বিজিবি। এদিকে মাদক বিরুধী অভিযানের মাঝে ইয়াবা চালান উদ্ধারের ঘটনা অনেকটা কমে এসেছে। কিন্তু উক্ত অভিযানের মধ্যেও বিজিবির ৪০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার হওয়ার ঘটনায় সাধারন মানুষের মাঝে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

সর্বশেষ সংবাদ

এড. কবির ছিলেন একজন সফল মানুষ : জেলা জজ হাসান মোঃ ফিরোজ

কক্সবাজার সরকারি কলেজে ইতিহাস বিভাগের ৪র্থ বর্ষে পদার্পণ উৎসব

চতূর্থবারের মতো চট্টগ্রাম রেঞ্জের শ্রেষ্ঠ টেকনাফের ওসি প্রদীপ

চকরিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে মাদকসেবীকে ৩ মাসের সাজা

বদরমোকাম সমাজের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠিত

সাংবাদিক হানিফসহ তিনজনকে শ্রেষ্ঠ সন্তান ও ছয় জনকে শ্রেষ্ঠ প্রবীণ সম্মাননা

নবম শ্রেণির প্রশ্নে সানি লিওন-মিয়া খলিফা!

আবুধাবি দূতাবাসে বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ উদযাপন

এক পা দিয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে টিউশনি করে পড়াশোনা ও সংসারের ঘানি টানছেন যিনি

হোপ ট্রেনিং সেন্টারের নতুন ফ্লোর উদ্বোধন

লামায় সতেরটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্ঘটনার ঝুঁকি নিয়ে চলছে পাঠদান

চকরিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে মাদকসেবীকে ৩ মাসের সাজা

জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল সৌদি আরব প্রবাসী কক্সবাজার জেলা কমিটি অনুমোদন

শুক্রবার মরিচ্যা উচ্চ বিদ্যালয়ের সুবর্ণ জয়ন্তী

কক্সবাজারে ১৫ আনসার ব্যাটালিয়নের বার্ষিক ফায়ারিং অনুষ্ঠান সম্পন্ন

জামিন পেলেন হিরো আলম

হাসপাতালের সুপার প্রটোকলে ব্যস্ত : দুদকের শুনানীতে আইসিইউ ইনচার্জ

উপকূলে প্যারাবন রক্ষা ও টেকসই বেড়িবাঁধ নিশ্চিত করতে হবে

‘আমি মারা গেলে আমার ভাতা যেন চেয়ারম্যান-মেম্বারদের বন্টন করে দেয়া হয়’

চকরিয়ায় স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, পাষন্ড স্বামী আটক