ইয়াবা ব্যবসায়ীদের অবৈধ বিলাস বহুল প্রাসাদ জব্দ করা হবে- জেলা প্রশাসক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
মাদক বিরোধী অভিযানের পর আত্মগোপনে রয়েছে টেকনাফে চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ীরা। ইয়াবার টাকায় তৈরি তাদের বিলাস বহুল প্রাসাদ খালি পড়ে আছে। ওইসব প্রাসাদের তালিকা করা হয়েছে। প্রাসাদগুলো অতি শীঘ্রই জব্দ করে সরকারি কর্মকান্ডে ব্যবহৃত হবে।

২৬ জুন মঙ্গলবার সকালে বিয়াম ফাউন্ডেশনের মিলনায়তনে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন এ কথা বলেন। জেলা প্রশাসক আরও বলেন, মাদকবিরোধী অভিযান গৌরবান্বিত। সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে গৌরবের এই অভিযানে অংশীদার হতে হবে। তিনি মাদকের বিরুদ্ধে সংগ্রামকারীদের আলাদাভাবে সম্মানিত করা হবে বলে জানান।

জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর আয়োজিত অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট সাইফুল আফসারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার ড.একেএম ইকবাল হোসেন, ৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্ণেল মনজুরুল হাসান খান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা, সহকারি সিভিল সার্জন ডাঃ মহিউদ্দিন মুহাম্মদ আলমগীর ও ট্যুরিস্ট পুলিশের এএসপি ফজলে রাব্বি।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার ড.একেএম ইকবাল হোসেন বলেন, মাদক বিরোধী অভিযান চলমান রয়েছে। ক্রমান্বয়ে সব মাদক ব্যবসায়ীদের আইনের আওতায় আনা হবে। বাদ পড়া মাদক কারবারীদের নতুন তালিকা করার কাজ এগিয়ে রয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফা বলেন, মাদক ব্যবসায়ীদের সামাজিকভাবে বয়কট করা প্রয়োজন। রাস্তায় তারা হাটলে যেন কেউ সালাম না দেয়। যে কোন স্থানে বসতে চাইলে চেয়ারও দেয়া যাবে না। যদি মাদক ব্যবসায়ীরা জনপ্রতিনিধি হতে চাইলে। ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের দমন করতে হবে। অভিভাবকদের নিজ সন্তানদের প্রতি তদারকি রাখা দরকার। যাতে তারা ভুল পথে পা না মাড়ায়। জানতে হবে সন্তানদের টাকার উৎস।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন জৈষ্ঠ সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক সোমেন মন্ডল। সভায় মাদকের করাল গ্রাস থেকে ফিলে আসা ১০জন যুবককে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন অতিথিরা। দীর্ঘ ২০ মাদকের সাথে জড়ানোর কালো ইতিহাস নিয়ে অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন জাহাঙ্গীর আলম।

সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সুপার বজলুল রশিদ আখন্দ, সদর ইএনও মোঃ নোমান হোসেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম জয়, জেলা মাদকদ্রব্য অধিদপ্তরের পরিদর্শক আবদুল মালেক তালুকদার। পরে অতিথিরা রচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। এরপর বের করা হয় বর্ণাঢ্য র‌্যালী।

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবস পালনে কক্সবাজারে ব্যাপক প্রস্তুতি

নির্বাচন কমিশন সচিবের সংগে মতবিনিময় করলেন ঢাকাস্থ রামু সমিতি

বঙ্গবন্ধু বাংলার সাধারণ মানুষের ভালোবাসার কথা ভাবতেন : চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার

চট্টগ্রামে জব্বারের বলীখেলায় কুমিল্লার শাহজালাল চ্যাম্পিয়ন

বাংলাদেশ কমিউনিটি মেটস প্রবাসীদের ১লা বৈশাখ উদযাপন

চকরিয়ায় পাওনা টাকা দাবির জেরে বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর, আহত ৬

ইউজিপি-থ্রি প্রকল্প পরিচালকের কলাতলী – মেরিন ড্রাইভ চলমান কাজ পরিদর্শন

দারুল আরক্বম তাহফীযুল কুরআন মাদরাসার সবিনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন

আলোকিত উখিয়ায় প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

আদালতের আদেশনামা গোপন করে শপথ নিয়েছে জমিরী- রফিক উদ্দীন

জেরায় বিমর্ষ সোনাগাজী থানার সেই ওসি মোয়াজ্জেম

পেকুয়ায় শরতঘোনা পয়েন্টে বেড়িবাঁধ বিলীন

পেকুয়ায় মুক্তিযোদ্ধার ছেলেকে হত্যাচেষ্টা

চকরিয়ায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের উপজেলা প্রশাসনের আর্থিক সহায়তা

কিশলয় বালিকা স্কুলে দুর্নীতি বিরোধী বির্তক প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা

প্রবাসীদের আত্মকথা

সৈকত আবাসিক এলাকার প্লট অ-আবাসিক/বাণিজ্যিক অনুমতি নীতিমালা প্রণয়ন সভা

প্রচন্ড দাবদাহে জনজীবনে নাভিশ্বাস

কক্সবাজারে পালিত হচ্ছে বিশ্ব টিকাদান সপ্তাহ

রামুতে পালিত হয়েছে বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস