ঈদগাঁওতে দুই সড়কের করুণ দশা : জনদুর্ভোগ চরমে

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও:

কক্সবাজার সদর উপজেলার ব্যস্তবহুল বানিজ্যিক এলাকা ঈদগাঁওর প্রধান দু যাতায়াত সড়কটি বর্তমানে করুন দশায় পরিনত হয়ে পড়েছে। ফলে জন ও যানবাহন চলাচলে চরম বিপাকে পড়ার পাশাপাশি জনদূর্ভোগ চরমে উঠেছে। দীর্ঘ একমাস ধরে ঈদগাঁও বাজারের দক্ষিন পাশ্বর্স্থ সড়কটির দুইপাশের গাইটওয়াল করার পর থেকে এখনো পর্যন্ত সড়ক সংস্কারের কোন প্রকার উদ্যোগ গ্রহন করা হয়নি। এছাড়াও সড়কের দুইপাশের ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা বানিজ্যিক নিয়ে মাথায় হাত দিয়েছে। অযোগ্য রাস্তার কারনে প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের লোকজন বাজারমুখী হচ্ছেনা। এ সড়ক পেরিয়ে চৌফলদন্ডী, জালালাবাদ, পোকখালী ও ঈদগাঁও ইউনিয়নের একাংশের হাজার হাজার লোকজন দৈনিক আসা যাওয়া করে থাকে বাজারে প্রয়োজনীর কাজেকর্মে।

ব্যবসায়ীরা জানান, দীর্ঘকালেও সড়কটি সংস্কার না হওয়ায় ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা বানিজ্য থেকে পিছপা হয়ে পড়েছে। আবার অল্প বৃষ্টিতেই জন ও যান বাহন চলাচলে কষ্ট সাধ্য হয়ে পড়ছে। সংস্কার কাজ মাঝপথে থেমে থাকায় ঠিকাদারকে দুষছেন পথচারীসহ সাধারণ লোকজন। পাশাপাশি যাতায়াতে আরেক বিকল্প সড়ক হিসেবে ব্যবহৃত ঈদগাঁও মাদ্রাসার পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া সড়কটিও মরন ফাঁদের কবলে। সড়ক জুড়েই বড় বড় গর্তে সয়লাভ হয়ে উঠেছে। সামান্য বৃষ্টিতে যত্রতত্র স্থানে গর্তে পানি জমে চলাফেরা অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বেকায়দায় পড়েছে স্কুল- কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। এমনকি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা নানা দুর্ভোগ আর দূর্গতি পেরিয়ে দৈনিক তাদের প্রিয় শিক্ষাঙ্গনে আসা যাওয়া করতে চোখে পড়ে। বর্তমানে মাদ্রাসা সড়ক দিয়ে জন ও যান চলাচল অনেকটা বৃদ্বি পেয়েছে। উক্ত সড়কটি গর্তের সৃষ্টির কারনে মরন দশার কবলে পড়ে চলাফেরার অযোগ্য বললেই চলে।

অন্যদিকে মাদ্রাসা গেইট সংলগ্ন দুপাশে গর্তের সৃষ্টি হলেই, সামান্য পরিমাণ বৃষ্টির পানি জমে জন ও যান চলাচল অনেকটা কষ্টকর হয়ে পড়ে। লঙ্কর-ঝঙ্কর মার্কা সড়ক পেরিয়ে শিক্ষালাভ করতে বিদ্যালয়মুখী হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। সন্ধ্যাকালীন সময়ে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে যেকোন মুহুর্তে অপ্রীতিকর দূর্ঘটনার আশংকাও প্রকাশ করেন চালকরা।

পথচারী আজিম,কালু, শফিও শাহাব উদ্দিন জানান, বর্তমানে ব্যস্তবহুল সড়ক হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে মাদ্রাসা সড়কটি। সড়ক জুড়েই প্রায় অংশে গর্ত আসলেই ঝুঁকিপূর্ণ রক্ষা পেতে হলে সংস্কারের বিকল্প নেই।

একাধিক শিক্ষার্থীরা জানান, যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম মাদ্রাসা সড়কটি সংস্কার অতীব জরুরী। প্রতিনিয়ত অযথা ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে ছাত্রছাত্রীসহ সাধারণ লোকজনদেরকে। তাই দ্রুত সময়ে এই গুরুত্ববহ সড়ক সংস্কারের দাবী সচেতন এলাকাবাসীর।

সর্বশেষ সংবাদ

‘নিয়ম ছিল না বলেই বদি আমন্ত্রণ পাননি’

দায়িত্বশীল ছাড়া কারও ডাকে সাড়া নয়

দেশের কোন গোয়েন্দা সংস্থার কী কাজ

কাশ্মিরে নিরাপত্তা বাহিনীর ওপর আবারও হামলা, সেনা কর্মকর্তাসহ নিহত ৬

ই-ফাইলিং এ কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সারাদেশে দ্বিতীয়

নাফে মাছ ধরার অনুমতি ও ইয়াবা বন্ধে সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া দিন : এমপি শাহীন আক্তার

সিবিএন এর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে সৌদি প্রবাসী বিএনপি নেতা ফরিদের শুভেচ্ছা

এমপি বদি’র সাথে ইউএই টেকনাফ সমিতি’র সৌজন্য সাক্ষাৎ

চাকরিচ্যুতির ভয় দেখিয়ে উপজাতি এনজিও কর্মীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ 

বন্ধ হলো অনলাইনে জুয়া খেলার ১৭৬ সাইট

শাজাহান খানকে সংসদে বেশি কথা বলতে দেয়ায় প্রতিবাদ

যুদ্ধ বিমানের প্রহরায় পাকিস্তানে নামলেন সৌদি যুবরাজ

অনুমোদন পেল আরও তিন ব্যাংক

আ’লীগের ভাবমুর্তি উজ্জ্বল করতে জনগনের সমর্থন চাই : ফজলুল করিম সাঈদী

তিন দিনের সফর শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কক্সবাজার ত্যাগ

শহরে দুর্বৃত্তদের হামলায় অন্তঃসত্ত্বাসহ ৯ নারী আহত

কৈয়ারবিল আইডিয়াল হাই স্কুলে অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত

কুতুবদিয়ায় মাহিন্দ্রা গাড়ী দূর্ঘটনায় স্কুল ছাত্র আহত

নির্বাচিত হলে শাসক নয়, সেবক হয়েই কাজ করবো- গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী

রামুতে রেল লাইনে যাচ্ছে ব্যক্তি মালিকানাধিন জমির বালি