চকরিয়ায় সাফারি পার্ক বন্ধের দিনও খোলা রাখা নিয়ে গুলি বর্ষণ

ডুলাহাজারা সংবাদদাতা:
চকরিয়াস্থ ডুলাহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক বন্ধের দিনও খোলা রাখার বিষয় নিয়ে ইজারাদার ও পার্ক কর্তৃপক্ষের মধ্যে মারমুখী অবস্থান বিরাজ করে। এসময় আত্মরক্ষার্থে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করা হয়। মঙ্গলবার (১৯ জুন) দুপুরে দিকে সংঘটিত এ ঘটনায় সাফারি পার্ক এলাকাজুড়ে দিন ব্যাপী টানটান উত্তেজনা বিরাজ করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় সরকারি নিয়ম অনুযায়ী মঙ্গলবার সাফারি পার্ক বন্ধ রাখার কথা রয়েছে। এ নিয়ম উপেক্ষা করে ওই দিন সাফারি পার্কের টিকেট কাউন্টারে টিকেট বিক্রি করেন ইজারাদার। অপরদিকে পার্ক কর্তৃপক্ষ প্রবেশ পথ বন্ধ রাখায় টিকেট ক্রয় করা দর্শনার্থীদের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করে। সরেজমিনে ঘটনার দিন দুপুরে প্রবল বৃষ্টিতে শতাধিক দর্শনার্থী পার্ক গেইটের বাইরে ভিজতে দেখা যায়। পরে দেড়টার দিকে পার্কের প্রধান গেইট দিয়ে দর্শনার্থী প্রবেশ করতে লক্ষ্য করা যায়। কিছুক্ষণ পর গেইট বন্ধ করে দেওয়া হলে দর্শনার্থী ও ইজারাদার পক্ষ থেকে চরম উত্তেজনা শুরু হয়। একপর্যায়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ। তবে পার্ক কর্তৃপক্ষ জানায় ইজারাদার পক্ষ থেকে গুলি বর্ষণ করা হলে তারাও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুড়েন। সাফারি পার্কের বিট কর্মকর্তা মাজাহারুল ইসলাম বলেন ‘সরকারি নির্দেশনা মতে মঙ্গলবার পার্ক বন্ধ রাখা হয়েছে। টিকেট বিক্রির অনুমতি না দেওয়ার শর্তেও ইজারাদার তা মানেনি। স্থানীয় সজিব নামক যুবকসহ ইজারাদার পক্ষ থেকে তালা ভেঙ্গে দর্শনার্থী প্রবেশ করায়। বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হলে তারা গুলি বর্ষণ করেন, আত্মরক্ষার্থে পার্ক কর্মচারীরাও পাল্টা গুলি ছুড়েন। পরে সাফারি পর্কের টুরিস্ট পুলিশ ও থানা পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।’ একই বক্তব্য জানায় সাফারি পার্কের রেঞ্জ কর্মকর্তা মোর্শেদুল আলম। তালা ভাঙ্গার বিষয়টি সত্য হলে গেইটে লাগানো সিসি ক্যমরাই তার প্রমাণ দেবে বলে উল্লেখ করেন স্থানীয় যুবক সজিব। তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবী করেন। এব্যপারে পার্কের কর্তব্যরত টুরিস্ট পুলিশের ইনচার্জ মোঃ আরিফুল ইসলাম জানায় আমি দুইটা উনচল্লিশ মিনিটে বিট কর্মকর্তা মাজাহারুল ইসলামের একটি ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছি। আমারা ফোর্সসহ পৌঁছার আগে গুলি বর্ষণ হয়েছে বলে শুনেছি। এসময় পার্কের ভেতর প্রবেশ করা সকল দর্শনার্থীদের বের করা হয় এবং তাদের টিকেটের দাম ফিরিয়ে দিতে ইজারাদারদের নির্দেশ দেওয়া হয়। ঘটনার পর ইজারাদার নাছির উদ্দিনের বড়ভাই চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌং ও ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অপরদিকে গেইট ইজারাদার নাছির উদ্দিন জানায় সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ থেকে টিকেট বিক্রি করতে বলা হয়েছে তাই কাউন্টার খুলে টিকেট বিক্রি করা হয়েছে। ডিএফও’সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মৌখিক অনুমতি নিয়েই টিকেট বিক্রি করা হয়েছে। গুলি ছোড়া ও তালা ভাঙ্গার বিষয়টি অস্বীকার করেন তিনি।
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা

কক্সবাজারে হারিয়ে যাওয়া ব্যাগ ফিরে পেলেন পর্যটক

সুষ্ঠু নির্বাচনে জাতীয় ঐক্য

সঠিক কথা বলায় বিচারপতি সিনহাকে দেশত্যাগে বাধ্য করেছে সরকার : সুপ্রিম কোর্ট বার

সিনেমায় নাম লেখালেন কোহলি

যুক্তরাষ্ট্রের কথা শুনছে না মিয়ানমার

তানজানিয়ায় ফেরিডুবিতে নিহতের সংখ্যা শতাধিক

যশোরের বেনাপোল ঘিবা সীমান্তে পিস্তল,গুলি, ম্যাগাজিন ও গাঁজাসহ আটক-১

তরুণদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়াটা অনেক বেশি জরুরি- কক্সবাজারে মোস্তফা জব্বার

চলন্ত অটোরিকশায় বিদ্যুতের তার, দগ্ধ হয়ে নিহত ৪

খরুলিয়ায় বখাটেকে পুলিশে দিলো জনতা, রাম দা উদ্ধার

টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

সতীদাহ প্রথা: উপমহাদেশের ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়

খুরুশকুলে সন্ত্রাসী হামলায় কলেজ ছাত্র আহত

নুরুল আলম বহদ্দারের কবর জিয়ারত করলেন লুৎফুর রহমান কাজল

জীবনের প্রথম প্রচেষ্টাতে ঈর্ষনীয় সাফল্য মৌসুমীর

এলআইসিটি বেস্ট অ্যাওয়ার্ড পেলো চবি শিক্ষার্থী নিপুন