প্রসঙ্গ : নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রীর বিবাহপূর্ব মাতৃত্ব ছুটি

তানভীরুল মিরাজ রিপন :
ভূমি , জলবায়ু , আবহাওয়া এগুলো প্রতিটি অঞ্চলভেদে মানুষের মস্তিষ্ক , সমাজ-ভাবনা,রীতি-নীতি , উদারতা , কিংবা উগ্রতা যা , যা আছে মানুষের মানুষিক অস্তিত্বের কিংবা বাহ্যিক অথবা অন্তর্কেন্দ্রীক যা , যা আছে সবকিছুকে নিয়ন্ত্রন করে এবং প্রভাব ফেলে । মানুষের চিন্তার সীমাবদ্ধতা কিংবা মানুষের উদারতা হলো আপেক্ষিক । শুধু ব্যক্তিকেন্দ্রীক আপেক্ষিক নয়, স্থান, পরিবেশ , পরিমন্ডলগত আপেক্ষিকতা থাকে । নীতি নৈতিকতাও আপেক্ষিক, স্থান ও জলবায়ুর ভিন্নতাক্রমে অঞ্চল ভেদে মানুষের ভিন্নতা আছে।নিউজিল্যান্ডের সমাজ কাঠামো , চিন্তা , চেতনা বা য়ুরোপ কিংবা যেকটা মহাদেশ আছে কোন মহাদেশের মানুষের আচার রীতিআ, ক্রোধ , চাহিদা , ভাবনা , গ্রহন বর্জন সম্পূর্ন আলাদা।তাই নিউজিলন্ডের রীতি বাংলাদেশে কখনো , কোনোদিন খাপ খাবে না।এটা বুঝতে হবে আমাদের, য়ুরোপীয় রীতিনীতি মানলে যে লিবারেল হবে এটা মোটেও নয়।য়ুরোপীয় সমাজ কাঠামোকে রুল মডেল ভাবাটা হলো চিন্তাগত উপনিবেশিকতা ও নিজেকে গোলামের মতো এখনো ভাবা।নিউজিলন্ডের (নিউজিল্যান্ড) প্রধানমন্ত্রী মাতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েছে । তিনি বিয়েও করেননি । এটি তাঁদের সমাজ কাঠামোতে এক্সেপ্টেবল , আমাদের এখানে নয় । সুতরাং, এমন রীতিনীতি না মানলে যে আমরা বৈশ্বিক আধুনিকায়নের একটি সমৃদ্ধ রাষ্ট্রের স্বীকৃতি পাবো না,এটা ভাবাটা হবে ভুল।

মাথায় রাখা উচিত;প্রতিটি মানুষের নিজস্ব অস্তিত্ব আছে।থাকবে বৈচিত্র্যময় সবকিছুই । এ্যারাবিয়ানরা নিজেদের ধাঁচে চলে বলে ,য়ুরোপে ছেলেদের পোশাক মেয়েরা পড়ে বলেই যে , আমাদেরও নিজেদের আধুনিক ভাবার জন্য , আধুনিক হয়েছি সেটা পরিচয় দেওয়ার জন্য ওদের অনুসরন করত হবে এটা মোটেও সঠিক সিদ্ধান্ত নয় । বরং আমরা সকলে সকল সময়ে অনির্দিষ্ট ভিন্নতা নিয়ে একসাথে সমবেত হলে গোটা বিশ্বকে মানুষের করে তুলা যাবে।
যৌনতা গবেষক অর্নব সাহা’র “১৯ শতকের বাঙালি মেয়ের যৌনতা” বইটিতে তিনি উল্লেখ করেছেন ( বাঙালি মেয়েদের আগে পোশাকের ক্ষেত্রে কোন বাধ্যবাধকতা ছিলো না । পোশাক নিয়ে কোন উগ্রতামিও দেখা যেতো:সংযোজন । ) য়ুরোপীয় শিক্ষাব্যবস্থা যখন আমাদের উচ্চবিত্তদের কাছে পৌছালো তখন তারা সর্বপ্রথম হস্তক্ষেপ করলো নারীদের।নারীর পোশাকে;নারীর গোসলে;বাঙালি মেয়েরা আগে গোসল করতো খোলামেলাভাবে-তখন য়ুরোপীয় শিক্ষাব্যবস্থা সেটাকে বলেছে বিশ্রী , অসভ্যতামি । ভারতবর্ষের কোলকাতার মেয়েরা আগে যেভাবে চলাফেরা করতো য়ুরোপীয় শিক্ষাব্যবস্থা সেটাকে শিক্ষার নাম দিয়ে সীমাবদ্ধতার ভেতরে নিয়ে এসেছে । য়ুরোপের বর্তমান নারীদের পোশাক কি খুবই আধুনিক ? শরীরের সাথে মিলেনা । আধুনিক মানে ছেলেদের পোশাকও নারীরা পরবে তা নয়।মোটেও নয় । বরং নারীরা তাদের পোশাককে নিজস্ব প্রয়োজনে আধুনিক করে তুলবে নিজেদের গুলোই। পুরুষের পোশাক পড়তে চাওয়ার অধিকারটা কখনো নারীর নিজস্বতা কে আধুনিক করে তুলবে না । মুক্ত ভাবে বেড়ে উঠতে দিবে না । সমাজে বৈষম্য নাই বলার জন্য পুরুষের পোশাক পড়তে চাওয়ার মানে হচ্ছে পুরুষতান্ত্রিকতাকে সাধুবাদ জানানো ।

সর্বোপরি বিশ্বায়নের বিরোধীতা করাটা ভুল হবে । কিন্তু বিশ্বায়নের কাতারে সমগ্র বিশ্বের মানুষ গুলোর যেমন একটি ভিন্ন ভিন্ন রাষ্ট্রীয় পরিচয় থাকে , সংস্কৃতিগত পরিচয় থাকে । আমাদেরও নিজস্ব পরিচয় আছে ; আমরা বাঙালি; আমাদের নিজস্ব সমাজ ব্যবস্থা , নিজস্ব নীতি নৈতিকতার কাঠামো যেমন আছে এবং আমাদের একটি সমৃদ্ধ সংস্কৃতিগত পরিমন্ডলও আছে।আমরা সেটিকে বর্জন করলেই যে আধুনিক হবো ! এটি মোটেও সুন্দর চিন্তা নয় । সেটি হবে “বানরের গলাতে মুক্তোর হার”-যেটা কখনো মানাবে না, কখনো মানায়নি আজও পর্যন্ত । সুতরাং আমাদের নিজস্ব পরিমন্ডলে যেটা গ্রহনযোগ্য গ্রহন করা যাবে ,সমাজে ছড়িয়ে দেওয়া যাবে । আমাদের মস্তিষ্ক ও আমাদের আবহাওয়া , খাবার , রীতিনীতির সাথে যেটির মেলবন্ধন সুদৃঢ় হবে সেটি গ্রহন করা ,সেটি নিয়ে এগিয়ে যাওয়া হলো সবচেয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত ।কারন আমরা বাঙালি সামাজিক জীব;বাঙালি সমাজ কাঠামো হলো নিজস্ব সমাজ কাঠামো।তবে এখানে কথা থেকে যায়-আমরা অন্ধতা থেকে মুক্ত হবো ; আলো জ্বালাবো কল্যানের । কিন্তু আমরা আলো বলতে কোনটা বুঝি ? সেটাও ভাববার বিষয় । গোড়ামি কিংবা অন্ধতা সুন্দর জাতি নির্মানে কখনো সহযোগিতা করে না।
সুতরাং নিউজিলন্ডের প্রধানমন্ত্রী বিয়ে না হওয়ার আগে গর্ভবতী হলেন সেটা এখানে গ্রহন না করার নাম যদি পিছিয়ে পড়া হয়ে যায় তাহলে সেটাকে আমরা বলবো উপনিবেশিক এবং গোলামি চিন্তা।যে চিন্তায় নিজস্ব অনুভূতি নেই।

হিজাব পরা মানেও জঙ্গী নয় , আবার ঘরে ঘরে কোরআন থাকার মানেও উগ্রতা নয় । উগ্রতা হলো সবকিছুকে নিজস্ব চোখে নিজের চিন্তাগত দিক দিয়ে দেখা।পৃথিবী একটা-সমগ্র বিশ্বের মানুষই মানবজাতি কিন্তু তার মানে আমরা আলাদা ভাববো না ? সমগ্র মানুষের সকল কিছুতে ভিন্নতা আছে । তবে, মানুষের একটা মৌলিক ঐক্যবদ্ধতা আছে যেখানে সকল মানুষ এক।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

তিন মাসের জন্য প্রত্যাহার আনোয়ার চৌধুরী

মনোনয়ন দৌড়ে শতাধিক ব্যবসায়ী

ফখরুল-মোশাররফ-মওদুদ যাচ্ছেন ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে

এবার ভারতের কাছেও শোচনীয় হার বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় ২০০ কোটি টাকা অনুদান বিশ্বব্যাংকের

বিরোধীরা সব জায়গায় সমাবেশ করতে পারবে

চাকরি না পেয়ে সুইসাইড নোট লিখে খুবি ছাত্রের আত্মহত্যা

নবাগত এসপি মাসুদ হোসেনের চকরিয়া থানা পরিদর্শন

উখিয়ার একজন অনন্য কারুকাজ শিল্পী প্রমোতোষ বড়ুয়া

বিশ্বে অাজ মুসলিমরা এত বেশি নির্যাতিত কেন?

নাইক্ষ্যংছ‌ড়ি‌তে ডাকাত আনোয়ার বলি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

মহেশখালীতে আদিনাথ ও সোনাদিয়া পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার

পেকুয়া জীম সেন্টারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

২৩ সেপ্টেম্বর ওবাইদুল কাদেরের আগমন উপলক্ষে পেকুয়ায় প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন

পেকুয়ায় ৬দিন ধরে খোঁজ নেই রিমা আকতারের

রে‌ডি‌য়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ডের মাধ্য‌মে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য নতুন প্রজ‌ন্মের কা‌ছে পৌঁছা‌বে -মোস্তফা জব্বার

অনূর্ধ ১৭ ফুটবলে সহোদরের ২ গোলে মহেশখালী চ্যাম্পিয়ন

টাস্কফোর্সের অভিযানঃ ৪৫০০ ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে ৭৫৫০টি ইয়াবাসহ দুইজন আটক

এলোমেলো রাজনীতির খোলামেলা আলোচনা