ঈদগাঁওতে পানিবন্দি অসহায় লোকজনের মাঝে ঈদের আমেজ নেই

এম আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও:

বেশ কদিন ধরে অব্যাহত টানা ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় ঈদগাঁওর নিন্মাঞল এলাকা প্লাবিত হয়ে পড়েছে। এতে করে, হাজার হাজার ঘরবাড়ী পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে। সেসব পরিবারের লোকজনের মাঝে আসন্ন আনন্দঘন ঈদের আমেজ নেই বলে জানান অনেকে।

জানা যায়, জেলা সদরের ঈদগাঁও বাজার ছাড়াও পার্শ্ববতী বৃহত্তর ঈদগাঁওর অন্যান্য ইউনিয়নের নিন্মাঞল এলাকা প্লাবিত হয়ে পড়ে। তৎমধ্য ইসলামাবাদ ইউনিয়নে বিভিন্ন গ্রাম প্রবল বৃষ্টি ও বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়ে এখনো ২/৩ হাজার মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান নুর ছিদ্দিক।

আবার উপকূলীয় পোকখালী ইউনিয়নের পশ্চিম পোকখালীসহ বেশ কয়েকটি গ্রামাঞ্চল ঢলের পানিতে প্লাবিত হয়ে ৪/৫ শত পরিবারের প্রায় ১০/১৫ হাজার লোকজন পানিবন্দি  রয়েছে। সে সাথে গোমাতলীতে অতিরিক্ত জোয়ারের পানিতে মাছের প্রজেক্টেসহ কিছু কিছু বাড়ীঘরে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। পানিবন্দি পরিবারের অসহায় লোকজনের মাঝে এবার ঈদের বাঁধভাঙ্গা আনন্দ ভাটা পড়বে। কারন মানুষজন পানিবন্দি ঘরবাড়ী নিয়ে দারুন ভাবে বিপাকে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন। তবে এসব পানিবন্দি এলাকার অসহায় লোকজনের মাঝে আসন্ন ঈদের আনন্দকে ঘিরে চোখে মুখে হতাশার কালো ছায়া বিরাজ করতে দেখা যাচ্ছে । আনন্দ এখন নিরানন্দে কাটবে বলেও আশংকা প্রকাশ করেন স্থানীয়রা। পাশাপাশি ঢলের পানিতে ভেসে গেছে ঈদগাঁও বাশঁঘাটা হয়ে ইসলামাবাদ যাতায়াতের একমাত্র কাঠের সেতুটি। সেখানে বর্তমানে কর্মমুখী লোকজন নদীর এপার ওপার হচ্ছে নৌকা দিয়ে। জাহানারা বিদ্যালয়ের সামনে বিশাল অংশ ভেঙ্গে যোগা যোগ সড়কে বর্তমানে চলাচল বন্ধ রয়েছে। পোকখালী ও ইসলামাবাদের প্রত্যান্ত গ্রামাঞ্চলের মানুষজন চলাফেরায় সীমাহীন কষ্ট পাচ্ছে। দ্রত সময়ে যদি এ ভাঙ্গন সংস্কার করা না হয় তাহলে আরো ব্যাপক আকারে ভাঙ্গনের আশংকা প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।

ঈদগাঁওর  ব্যবসায়ী বাবুল রুদ্র জানায়, ঈদগাঁওর পশ্চিম ভোমরিয়া ঘোনা,রুদ্র পাড়া, চৌধুরী পাড়া,কুলাল পাড়ার বহু বাড়ীঘর প্লাবিত হয়ে পড়ে। পানিবন্দি হওয়া লোকজন অতিকষ্টে দিন পার করে যাচ্ছে বলেও জানান।

এ ব্যাপারে স্থানীয় দুই জন প্রতিনিধি আবদুল হাকিম ও প্রিয়তোষ পাল মুন্না জানান, তাদের এলাকায় ৫/৬ শতাধিক পরিবার পানিবন্দি রয়েছে। মেম্বার মুন্না জানান, কষ্টের বিনিময়ে কোনরকম ঈদ উদযাপন করবে পানিবন্দি এলাকার অসহায় মা বোনসহ সাধারন লোকজন।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

মরহুম এড. খালেকুজ্জামান স্মরণে মসজিদে মসজিদে দোয়া

হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশের অভিযানে ৫হাজার ইয়াবা সহ আটক-২

এলাকার উন্নয়নই আমার স্বপ্ন -কাউন্সিলর সাহাব উদ্দিন সিকদার

শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের ন্যায় বিচার কোথায়?

আইনগত ভিত্তি পেলেই ইভিএম ব্যবহার : সিইসি

খাগড়াছড়িতে ব্রিজ ভেঙে ট্রাক নদীতে, নিখোঁজ ১

সাগরে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে ফিশিং ট্রলার ডুবি

‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’

ফাইভ-জি মোবাইল নেটওয়ার্কে বিকিরণের ঝুঁকি বেশি?

রাখাইনে এখনো থামেনি সেনা ও মগের বর্বরতা

জাতীয় ঐক্য নিয়ে অস্বস্তিতে আ’লীগ

প্রধানমন্ত্রীর জাতিসঙ্ঘ সফরে প্রাধান্য পাচ্ছে রোহিঙ্গা ইস্যু

সাকা চৌধুরীর কবরের ‘শহীদ’ লেখা নামফলক অপসারণ করলো ছাত্রলীগ

তিন মাসের জন্য প্রত্যাহার আনোয়ার চৌধুরী

মনোনয়ন দৌড়ে শতাধিক ব্যবসায়ী

ফখরুল-মোশাররফ-মওদুদ যাচ্ছেন ঐক্য প্রক্রিয়ার সমাবেশে

এবার ভারতের কাছেও শোচনীয় হার বাংলাদেশের

রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষায় ২০০ কোটি টাকা অনুদান বিশ্বব্যাংকের

বিরোধীরা সব জায়গায় সমাবেশ করতে পারবে