ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ারদের কাছে কেন সিভিল ব্যুরোক্রেসি জনপ্রিয় হয়ে উঠছে?

মোহাম্মদ ওমর ফারুক

৩৭তম বিসিএসে ইইই(ইলেক্ট্রিক্যাল ইলেক্ট্রনিক্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং) আর মাইক্রোবায়োলজির ছাত্র যথাক্রমে প্রশাসন ক্যাডার আর ফরেন ক্যাডারে প্রথম হওয়াতে অনেকেই গোস্যা হয়েছেন এবং এই গোস্যাকে শক্তিতে পরিণত করে শতশত লাইক কুড়ানো স্ট্যাটাস প্রসব করছেন! অনুসন্ধান করা দরকার, রাষ্ট্রের বিগ বাজেটের বিশেষায়িত শিক্ষায় শিক্ষিত মেধাবীরা কেন স্ব স্ব ক্ষেত্রভিত্তিক ক্যাডার বাদ দিয়ে ফরেন, পুলিশ আর প্রশাসন ক্যাডার পছন্দ করছে!

১) আমাদের দেশের পারস্পেক্টিভ হল, ক্লাশের সর্বোচ্চ মেধাবীরাই বুয়েট এবং মেডিকেলে পড়ার সুযোগ পায়। বুয়েট আর মেডিকেল থেকে বের হয়ে সর্বোচ্চ মর্যাদাপূর্ণ সরকারি চাকরি ক্যাডার সার্ভিসে প্রকৌশল ক্যাডার আর স্বাস্থ্য ক্যাডার হিসেবে জয়েন করে তারা এক প্রকার হতাশায় নিমজ্জিত হয়! কেননা, প্রথম পোস্টিং থেকেই তাদেরকে বশ্যতা স্বীকার করে নিতে হয় প্রশাসন ক্যাডারের। অথচ ক্লাশে ‘প্রশাসন ক্যাডার’ প্রাপ্ত বন্ধুটি ছিল বরাবরই ব্যাক বেঞ্চার! এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে অধিকতর সহজ ডিসিপ্লিনে পড়ে প্রশাসন ক্যাডার প্রাপ্ত হয়ে ‘ব্যাক বেঞ্চার’ বন্ধুটি তাদের উপর ছড়ি ঘুরাচ্ছে!

২) জেনারেল ক্যাডারের (এডমিন, ফরেন, পুলিশ, ট্যাক্স, কাস্টমস, ইত্যাদি) উপসচিব লেভেলের কর্মকর্তাকে ২৫-৩০ লাখ টাকা দামের প্রাইভেট গাড়ি প্রদান করা হয় এবং সেই গাড়ির মেইনটেনেন্স খরচ হিসেবে মাসিক ৪০ হাজার টাকা দেয়া হয়! অপরদিকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, প্রকৌশল ক্যাডারের সমপর্যায়ের কর্মকর্তার জন্য এ ধরনের কোন ব্যবস্থা রাখা হয়নি!

৩) মন্ত্রণালয়ের কার্যকরী প্রধান হলেন সচিব। তাকে কেন্দ্র করেই একটি মন্ত্রণালয়ের সফলতা-ব্যর্থতা নির্ণিত হয়। এজন্য ক্ষেত্রভিত্তিক বিশেষজ্ঞ কর্মকর্তা হিসেবে শিক্ষা সচিব হবেন একজন শিক্ষক, স্বাস্থ্য সচিব হবেন একজন ডাক্তার, এমনটিই হওয়ার কথা ছিল না? কিন্তু ঔপনিবেশিক শাসন-শোষনের সিলসিলাপ্রাপ্ত আমাদের সিভিল সার্ভিসের সিস্টেম তা মানতে রাজি নয়! আমাদের সিস্টেমের একটাই কথা, এডমিন ক্যাডাররাই সব কাজের কাজি!

তাই, ভাইলোক, ত্বকি আর শাকিল এডমিন আর ফরেন ক্যাডার হওয়াকে আপনারা যারা বিশেষজ্ঞ ইস্যুতে রাষ্ট্রের অর্থের অপচয় দেখছেন, আশাকরি আপনারা মন্ত্রণালয়ের সচিব পদে ডেপুটেশনে বিশেষজ্ঞ কর্মমকর্তা নিয়োগের জন্যও আওয়াজ তুলবেন।

আমিও বিশ্বাস করি, ত্বকি আর শাকিলের আমলা হওয়াটা মেধার অপচয়। কিন্তু বাস্তবতা হল, যতদিন না সিভিল সার্ভিসে প্রশাসন ক্যাডারের দৌরাত্ম্য কমবে, জেনারেল ক্যাডারের মত প্রফেশনাল ক্যাডারেও সমান সুযোগ সুবিধা এবং কার্যকর মর্যাদা নিশ্চিত হবে, ততদিন পর্যন্ত ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়াররা স্ব স্ব ক্ষেত্র বাদ দিয়ে আমলা, কূটনীতিক কিংবা পুলিশ হওয়াটাকেই প্রিফারেবল মনে করবে!

লেখক : প্রভাষক , রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগ , কক্সবাজার সিটি কলেজ।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

ওবাইদুল কাদের আসছেন আজ

ডুলাহাজারার আশরাফ উদ্দিন কাউখালী থানার ওসি

একান্ত সাক্ষাৎকারে অতি. পুলিশ সুপার ইকবাল হোসাইন : অপরাধীর সাথে আপোষ নয়

প্রসঙ্গ : প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চলতি দায়িত্ব

বৃহত্তর ঈদগাঁওয়ের প্রায় ১শ কি.মি সড়ক চলাচলের অনুপযোগী, সেতুমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ

টেকপাড়ায় মাঠে গড়াল বৃহত্তর গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্টের ৫ম আসর

মাতারবাড়ী কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্প পরিদর্শনে গেলেন বিভাগীয় কমিশনার

নতুন বাহারছড়ার সেলিমের অকাল মৃত্যু: মেয়র মুজিবসহ পৌর পরিষদের শোক

জেলা আ’ লীগের জরুরী সভা

মাদক কারবারীদের বাসাবাড়ীতে সাঁড়াশি অভিযান, ইয়াবাসহ আটক ৩

সৈকতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় উন্নয়ন মেলা কনসার্ট

পেকুয়ায় অটোরিকশা চালককে তুলে নিয়ে মারধর

পুলিশ সুপারের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ

ফেডারেশন অব কক্সবাজার ট্যুরিজম সার্ভিসেস এর সভাপতি সংবর্ধিত

কাউন্সিলর হেলাল কবিরকে বিশাল সংবর্ধনা

কলাতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, দুইজনকে জরিমানা

আ. লীগের কেন্দ্রীয় টিমের জনসভায় সফল করতে জেলা শ্রমিকলীগ প্রস্তুত

মানবপাচারকারী রুস্তম আলী গ্রেফতার

দেশে গণতান্ত্রিক অধিকার নেই, পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে : শাহজাহান চৌধুরী

১২দিনেও খোঁজ মেলেনি মহেশখালীর ১৭ মাঝিমাল্লার