কক্সবাজার শহরের একটি পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি।

শাহেদ মিজান, সিবিএন:
বঙ্গবসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে প্রবল বৃষ্টিপাত হওয়ায় কক্সবাজার শহরের ৬, ৭, ৮, ৯, ১০ ও ১২ নং ওয়ার্ডে পাহাড়ি এলাকায় বসবাসকারী লোকজনকে সরে যেতে নির্দেশে দিয়েছেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন। রোববার (১০জুন) এক ‘জরুরী ঘোষণা’ ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে তিনি রোববার রাতের মধ্যেই সরে যেতে এই নির্দেশ দেন।

জেলা প্রশাসকের ‘জরুরী ঘোষণা’য় বলা হয়, বঙ্গবসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে প্রবল বৃষ্টিপাত অব্যাহত রয়েছে। আরো ২/৩দিন তা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। টানা বৃষ্টিতে কক্সবাজার শহরের ৬, ৭, ৮, ৯, ১০ ও ১২ নং ওয়ার্ডে ভূমিধ্বসের প্রবল আশঙ্কা রয়েছে। এতে ব্যাপক প্রাণহানি ঘটতে পারে। তাই পাহাড়ের ঢাল, পাদদেশ এবং নিকটবর্তী স্থানের বসবাসকারী লোকজন আজ রাতের মধ্যে নিরাপদ স্থানে সরে যেতে হবে। না সরলে সোমবার থেকে তাদের সরে যেতে বাধ্য করা হবে।

কক্সবাজার সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজিম উদ্দীন সিবিএনকে জানান, প্রবল বৃষ্টিপাত হওয়ায় পাহাড়ি এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারী লোকজনের নিরাপত্তা নিয়ে এক বৈঠক করা হয়। বৈঠকের পর ওইসব লোকজনকে সরে যেতে নির্দেশ জারি করা হয়। তার অংশ হিসেবে মাইকিংও করা হয়।

পৌর মেয়র মাহবুবুর রহমান সিবিএনকে বলেন, পৌর শহের দু’টি মাইক নামানো হয়েছে। পৌর শহরের প্রিপারেটরি উচ্চ বিদ্যালয়, ডি-ওয়ার্ড সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পাবলিক লাইব্রেরি খুলে দেওয়া হয়েছে। যারা আশ্রয়কেন্দ্রে থাকবেন তাদের সেহেরিরও ব্যবস্থা রয়েছে। তাদের মালপত্র নিরাপত্তার জন্য পাহারা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন সিবিএনকে বলেন, ‘পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারী কেউ থাকতে পারবে না। তাদেরকে সরে যেতেই হবে। না সরলেও আমরা আজকের মধ্যেই সরিয়ে দেবো।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •