রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিতে মিয়ানমারের প্রতি জার্মানির আহ্বান

রাখাইন প্রদেশের রোহিঙ্গাদের ওপর নিপীড়ন ও সহিংসতা বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় দেশ জার্মানি। দেশটির পার্লামেন্টে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব আনা হয় সরকার দলীয় জোট ও কয়েকটি বিরোধী দলের পক্ষ থেকে।  আইনপ্রণেতাদের ব্যাপক সমর্থনে প্রস্তাবটি পাস হয়েছে। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সির খবরে জানানো হয়েছে, প্রস্তাবে চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেলের জোট সরকারকে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষের ওপর প্রভাব খাটিয়ে রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার হরণ বন্ধ ও স্বীকৃতি দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। পাস হওয়া প্রস্তাবে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করে তাদের পূর্ণাঙ্গ রাজনৈতিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। 

গত বছরের আগস্টে রাখাইনে নিরাপত্তা বাহিনীর তল্লাশি চৌকিতে হামলার পর রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। খুন, ধর্ষণ আর অগ্নিসংযোগের মুখে প্রতিবেশি বাংলাদেশে পালিয়ে আসে প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং রাষ্ট্র সেই সেনা অভিযানকে জাতিগত নিধনযজ্ঞ বলে বর্ণনা করেছে।

স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার রাতে জার্মান পার্লামেন্টে  রোহিঙ্গা নিপীড়ন বন্ধে পাস হয়। ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ‘রোহিঙ্গাদের পূর্ণাঙ্গ নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার ও মিয়ানমারের নাগরিকত্ব মেনে নিতে হবে।’ ১৯৮০’র দশকে সামরিক জান্তা সরকারের আমলে পাস হওয়া এক আইনের বলে রাখাইনের রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্বের অধিকার কেড়ে নেয় মিয়ানমার। দীর্ঘদিন ধরে রাষ্ট্রহীন থাকা এই জনগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে কাঠামোগত সহিংসতা জোরালো হলে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে রোহিঙ্গারা। জার্মান পার্লামেন্টে পাস হওয়া প্রস্তাবে ‘রোহিঙ্গাদের নিরাপদ, স্বেচ্ছা এবং কার্যকর প্রত্যাবাসনের’ আহ্বান জানানো হয়।

জার্মানির সরকারি জোট এবং কয়েকটি বিরোধী দল যৌথভাবে এই প্রস্তাব আনে। এর মধ্যে রয়েছে ক্ষমতাসীন ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স, তাদের জোটসঙ্গী সোস্যাল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এসপিডি) ও বিরোধী ফ্রি ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এফডিপি) এবং দ্য গ্রিনস। প্রস্তাবে সমর্থন জানায় সোস্যালিস্ট লেফট পার্টি। তবে প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে ডানপন্থি অলটারনেটিভ ফর জার্মানি (এএফডি)।

সর্বশেষ সংবাদ

কানিজ ফাতেমা সহ সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি’দের শপথ বুধবার

দক্ষিণ সাহিত্যিকা পল্লী সমাজ কমিটি গঠিত

নাইক্ষ্যংছড়িতে বন্য হাতি গুড়িয়ে দিল এক উপজাতির বসত ঘর

ইন্ঞ্জিনিয়ার শফি উল্লাহ আর নেই : বুধবার সকাল ১০ টায় জানাজা

চট্রগ্রাম রেঞ্জের শ্রেষ্ট ওসি’র সম্মাননা পেলেন টেকনাফের ওসি প্রদীপ

সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ দু’দিনের সফরে এখন কক্সবাজারে

নাইক্ষ্যংছড়িতে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে শাহাজান কবিরের মনোনয়ন দাখিল

নিজের অশ্লীল ভিডিও সরালেন সালমান

যে ছবি কক্সবাজারবাসীকে গৌরবান্বিত করে

জেলাজজের বদান্যতায় ১৭ বছর জেলে থাকা আনোয়ারার জামিন

কবি আল মাহমুদ স্মরণ সভা আজ বিকেল ৪ টায়

জেলা সদর হাসপাতালের দুর্নীতি তদন্তে দুদক টিম

সৌদি যুবরাজের নির্দেশে মুক্ত হচ্ছেন ২১০০ পাকিস্তানি বন্দি

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে জবি রণক্ষেত্র, সাংবাদিকসহ আহত ৩০

কাশ্মীরের পক্ষ নেয়ায় ধর্ষণের হুমকি, অতঃপর নিখোঁজ শিক্ষিকা

ভারতে না গিয়ে দেশে ফিরে গেলেন প্রিন্স সালমান

হাসপাতালের ডাস্টবিনে ৩১ নবজাতকের লাশ

কালিরছড়ায় একটি ব্রীজের অভাবে দূূর্ভোগে ৫ সহস্রাধিক মানুষ

রাঙামাটিতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯৩ প্রার্থী

সালমান মুক্তাদিরের খোঁজ চাইলেন আইসিটি মন্ত্রী