cbn  

আবুল বশর, মহেশখালী :
মহেশখালীর হোয়ানক পানিরছড়ায় উঠানে বৃষ্টির পানি চলাচল নিয়ে সংঘর্ষে ৫জন অাহত হয়েছে। অাহতদের মহেশখালী হাসপাতালে ভর্তি ও চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে,৩১মে সন্ধ্যা ৬ ঘটিকার সময় হোয়ানকের পানির ছড়ার বারঘর পাড়া গ্রামে।

স্থানীয় সুত্রে জানায় যায়,হোয়ানক বারঘর পাড়া গ্রামের কালু মিয়ার পুত্র মোহাম্মদ হোছন গংদের সাথে একই এলাকার মৃত অালী হোছনের পুত্র অাবুল কাশেম গংদের ভিটি বাড়ী সংক্রান্ত বিরোধ চলে অাসছিল। ৩১মে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হঠাৎ বৃষ্টি হলে উঠানের পানি নিচের দিকে যাচ্ছিল। কেন পানি অাবুল কাশেম এর বাড়ী দিয়ে  যাবে এ বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশী ২পক্ষের মধ্যে  সংঘষ হয়। এতে অাবুল কাশেম, অাজিজুল হক,সিরাজুল হক, সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে ইফতারের পূর্ব মূহুর্তে কালু মিয়ার পুত্র ফরিদুল অালম,মেয়ে হাফেজা খাতুন ও ফরিদুল অালম এর স্ত্রী রাশেদা বেগমকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। অাহতদের দ্রুত মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে অাসলে মাথায় অাঘাত হওয়ায় ফরিদুল অালম ও হাফেজা খাতুনকে ভর্তি করে। তারা বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অপরদিকে ঘটনার দীর্ঘ সময় পরে অালী হোসেন এর পুত্র অাবুল কাশেম ২ জন মেয়েকে অাহত দেখিয়ে হাসপাতালে নিয়ে অাসে।হাসপাতালে চিকিৎসার দৃশ্য দেখে প্রত্যক্ষদর্শীরা মনে করেন, টুম্পা ও মিনুয়ারা নামের দুইজনকে ব্লেট বা কোন পাতলা ধারালো যন্ত্র দিয়ে একজনের হাতের কব্জির নীচে ও বাহুর উপরের অংশে কয়েকটি কাটা দাগ দিয়ে হাসপাতালে
চিকিৎসা করতে অাসে। সৃষ্ট ঘটনায় মোহাম্মদ হোসেন বাদী হয়ে অাবুল কাশেম,অাজিজুল হক,সিরাজুল হক,সাইফুল সহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় এজাহার জমা দিয়েছে। এঘটনায়, মিম নামের ৪ মাসের এক শিশু গুরুতর অাহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অাছে। এ ব্যাপারে,মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, পানিরছড়ায় ভিটিবাড়ী সংক্রান্ত একটি ঘটনার সংবাদ পেয়েছি।তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •