হাতির আক্রমণে ৯ মাসে ১১ রোহিঙ্গাসহ ১৫ জনের মৃত্যু

হুমকির মুখে হাতির আবাসস্থল ও খাদ্য সংকট

রফিক মাহমুদ উখিয়া:
রোহিঙ্গা ক্যাম্প আর পাহাড়ে জনবসতি বৃদ্ধি পাওয়া, পাহাড় ও বন নিধনের কারনে দেশের পার্বত্যাঞ্চলে দিনদিন কমে আসছে বন্যহাতির আবাসস্থল। বন্যহাতি বিলুপ্ত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।
পাশাপাশি চলাচলের পথও বন্ধ হয়ে পড়ায় মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে বাংলাদেশে থাকা এশিয়ান প্রজাতির হাতি। আবাসস্থল ও খাবার সংকটে মাঝেমাঝেই জনবসতিতে হামলা চালাচ্ছে এসব হাতি। গেল ৯ মাসেই কক্সবাজারের উখিয়া ও রামুতে হাতির আক্রমণে ১১ রোহিঙ্গাসহ প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ১৫ জন।

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল এবং মধ্যাঞ্চলে দেখা মেলে এশিয়ান প্রজাতির হাতির। এরমধ্যে মধ্যাঞ্চলে দেখা পাওয়ার হাতির সবই অনাবাসিক। এসব হাতি বাংলাদেশ ও ভারতে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকে। অন্যদিকে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে থাকা আবাসিক হাতির সংখ্যা ২৬০ থেকে ২৬৫টি। আবাসিক এই হাতিগুলো চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজারের টেকনাফ পর্যন্ত ১২টি করিডোর বা পথ ধরে চলাচল করে।

হাতি চলাচলের করিডোরের মধ্যে কক্সবাজারেই রয়েছে প্রধান ২টি, রোহিঙ্গা বসতির জন্য যা এখন বন্ধ। ফলে খাদ্যের সংকটে প্রায়ই লোকালয়ে ঢুকে তাণ্ডব চালাচ্ছে এসব হাতি, ঘটছে প্রাণহানি। এছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও জনবসতি বেড়ে যাওয়ায় আবাসস্থল সংকটে মারাত্মক ঝুঁকিতে রয়েছে হাতিগুলো। জানালেন, হাতি বিশেষজ্ঞ ও প্রকৃতি নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংস্থা আইইউসিএন’র সাবেক কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ইশতিয়াক উদ্দিন আহমদ।

এদিকে, লোকালয়ে হাতির অবাধে ঢুকে পড়া কমাতে কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছে বনবিভাগ। ওয়াচ টাওয়ার বসানোর পাশাপাশি গঠন করা হয়েছে ১০ সদস্যর একটি প্রশিক্ষিত এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিম। কক্সবাজার দক্ষিণ বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আলী কবীর।

প্রকৃতি নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংস্থা আইইউসিএনের তথ্যানুযায়ী করিডোর বন্ধ হয়ে যাওয়ায় উখিয়ায় অর্ধশতাধিক হাতি আটকা পড়েছে। এসব হাতিই হামলা চালাচ্ছে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে।

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

বিএনপি নেতা হাবিব-উন-নবী খান সোহেল গ্রেফতার

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

কক্সবাজারে প্রথম নির্মিত হচ্ছে সি,আই কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রি

মহেশখালী পৌর ছাত্রদলের আংশিক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

এসপি মাসুদ হোসাইনের কক্সবাজারে যোগদান, ডিসি’র সাথে সৌজন্য সাক্ষাত

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ইওসি স্থাপন

পেকুয়ায় প্রবাহমান খালে মাটি ভরাট করলেন প্রভাবশালী

কোনাখালীতে দোকান পুড়ে ছাই

বুবলীর সঙ্গে শাকিবের বিয়ে, গুঞ্জন নাকি সত্যি?

সাবেক ডিসি ও ইউএনওসহ তিনজনের কারাদণ্ড

ইয়াবাসহ আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আটক

চকরিয়া উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ

চকরিয়ায় কথিত চিকিৎসকের ভূল চিকিৎসার শিকার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

মালুমঘাটে প্রভাবশালীর সহযোগিতায় চলছে বাল্য বিবাহ!

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ

নিরাপদ সড়ক চাই: নিজে বাঁচব, অপরকে বাঁচাব

বিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত

চবি উপাচার্যের সাথে মিশর আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে সংবর্ধনা