প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে আবুল কালামের চ্যালেঞ্জ

গত ২৫ মে শুক্রুবার “আতঙ্কে বাস টার্মিনালের ইয়াবা ব্যবসায়ীরা” শিরোনামে যে সংবাদটি দৈনিক কক্সবাজারসহ কয়েকটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল একই সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তার একাংশ সংবাদ মিথ্যা, ভানোয়াট ও ভিত্তিহীন। যা বাস্তবতার সাথে বিন্দু মাত্রও মিল নেই।

উক্ত মিথ্যা সংবাদে আমি আবুল কালামের বক্তব্য হচ্ছে, জন্ম থেকে আমি পশ্চিম লাহারপাড়া এলাকার একজন স্থানীয় বাসিন্দা। আমার পৈতৃক সুত্রে পাওয়া জায়গা-যবিন বিক্রি করে কিছু মূলধন নিয়ে ২০০৪ সালের দিকে সিলেটি পাথর ও বালি সাপলাইয়ারের ব্যবসা শুরু করি। কক্সবাজার হোটেল-মোটেল জোনে আধিকাংশ ভবন আমার দেওয়া পাথর ও বালি দিয়ে নির্মাণ কাজ হয়েছে। এর পর ক্রমান্বয়ে আমি মূল ঠিকাদারি পেশায় যোগ দিয়।

বর্তামানে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তর, কক্সবাজার এলজিআইডি, গণপূর্তের অর্ন্তভূক্ত একজন প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার। মহেশখালী কুতুবজুম হাইস্কুল, খাউয়ারখোপ হাইস্কুল, মহেশখালী কলেজ, কক্সবাজার মহিলা কলেজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্টানের সংস্কার ও পুনঃনির্মানের কাজ আমি করিতেছি। বর্তমানে লামা, আলিকদম ও আমার কাজ চলছে। এছাড়া বিভিন্ন এনজিও সংস্থা যেমন, ইউনিসফে, আইআরসি, এফও এসসহ তাদের অনেক প্রজেক্ট এর কাজের কন্ট্রাক আমি নিয়েছি। রাত-দিন এসব কাজ নিয়ে এক্লান্ত পরিশ্রমের করে ওখান থেকে আমি জীবিকা নির্বাহ করি। পাশাপাশি প্রতিবছর সরকারকে আমি প্রায় ২০ লক্ষ টাকা আয়কর দিয়ে যাচ্ছি।

কিন্তু দুঃখের বিষয় আমি যে এলাকায় বসবাস করি সেটা একটা মাদক অধ্যষুতি এলাকা। যার কারণে যে কোন ব্যক্তি একটু ভাল ও স্বচ্ছলভাবে চললে সে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলে প্রতিপক্ষ লোকজন ফাঁসিয়ে দেয়ওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকে প্রায়শ। এছাড়া সাংবাদিক ও প্রশাসনের কাছে মিথ্যা অপপ্রচারে লিপ্ত থাকে।

এরই ধারবাহিকথায় বিশেষ করে আমার প্রতিপক্ষ কথিপয় ঠিকাদার আমার ব্যবসা-বাণিজ্যের সফলতা দেখে হীন মানসিকথায় বিভিন্ন সময় সাংবাদিক ভাইদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীনভাবে সংবাদ পরিবেশন করিয়েছে। যা শুধু মাত্র আমাকে ব্যবসায়িকভাবে হয়রানি ও সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে। যা দেখে আমি খুবই রিতিমত হতভাগ হয়ে পড়ি। এছাড়া প্রতিপক্ষ চক্রটি একইভাবে প্রশাসনের কাছে মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমাকে নানা হয়রানি করার অপচেষ্টা অব্যহত রেখেছে।

প্রশাসনের কাছে আমি বলতে চাই এ পর্যন্ত মাদক নিয়ে আমার বিরুদ্ধে থানায় কিংবা অন্য কোথায় একটি মামলা নেই। আমি মাদকের সাথে বিন্দু মাত্র জড়িত নয়। আমি চ্যালেঞ্জ করছি অবৈধ ব্যবসার সাথে জড়িত আছি তার যদি বিন্দু মাত্র প্রমান দিতে পারে তাহলে আমার উপযুক্ত বিচার করা হউক। আর যদি সেটা প্রমান করতে না পারে তাহলে সাংবাদিক কিংবা প্রশাসন যেন আমাকে অহেতুক হয়রানি না করুক সেটার জন্য প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে সহযোগিতা কামানা করছি।
পরিশেষে উক্ত মিথ্যা সংবাদ নিয়ে আমি আবারো চ্যালেঞ্জিং করে প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী
আবুল কালাম
পশ্চিম লারপাড়া, কক্সবাজার

কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

`রাঙামাটির রূপ দিনদিন হারিয়ে যেতে চলেছে’

বান্দরবানে শ্রেষ্ঠ উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কালাম হোসেন

বর্তমান সরকারই পাহাড়ের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে : বীর বাহাদুর এমপি

কুতুবদিয়ায় শহীদ উদ্দিন ছোটনসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

লামায় ক্যাম্প প্রত্যাহার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও রাজার সনদ বাতিল দাবীতে মানববন্ধন

লবণ আমদানি হবেনা, মজুদদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা -শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

১ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন লবণ উদ্বৃত্ত, তবু আমদানির চক্রান্ত

ঈদগাঁও থেকে দোকানদার অপহরণঃ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী!

‘হিংসাবিহীন মানুষ পাওয়া কঠিন’

যখন দশম শ্রেণির ছাত্রী এই সময়ের পিয়া

উখিয়ায় অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন এসিল্যান্ড একরামুল ছিদ্দিক

কক্সবাজার শহরে বেড়েই চলছে চুরি ছিনতাই

হোটেল সী-গালের সংবর্ধনায় সিক্ত মেয়র মুজিবুর রহমান

বর্জ্য অপসারণে আরো একটি গাড়ি সংযোজন করলেন মেয়র মুজিব

মদ পানের অভিযোগে প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রু বহিষ্কার

এই জনপদটি ইয়াবা নামক বিষ বৃক্ষের আবক্ষে নিম্মজ্জিত : সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন

যুগ্মসচিব হলেন কক্সবাজারের সন্তান শফিউল আজিম : অভিনন্দন

ধর্মীয় শিক্ষা মানুষের মাঝে মূলবোধের সৃষ্টি করে-এমপি কমল

কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ১৪জন আসামী গ্রেফতার

কক্সবাজার জেলা পুলিশকে আইসিআরসির ২৫০ বডি ব্যাগ হস্তান্তর