cbn  

বলরাম দাশ অনুপম

বিশ্বকাপ ফুটবল শুরুর এখনো বাকী আরো ১৮ দিন। কিন্তু এরই মধ্যে বিশ্ব ছাড়িয়ে দেশের অন্যান্য স্থানের ন্যায় পর্যটন জেলা কক্সবাজারেও হাওয়া লেগেছে বিশ্ব ফুটবলের সবোর্চ্চ এই আসরকে কেন্দ্র করে। কক্সবাজার জেলা শহরের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাসা বাড়িতে ইতোমধ্যে উড়তে শুরু করেছে বিশ^ ফুটবলের দুই জনপ্রিয় দল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলসহ পছন্দের ফুটবল দলের পতাকা। শুধু তাই নয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকেও বিশ্বকাপ ফুটবলকে ঘিরে চলছে নানা আয়োজন। সামাজিক মাধ্যমগুলোতে নিজ নিজ দলের প্রতি সমর্থন জানিয়ে স্ব স্ব দলের ভক্তরা শুরু করেছেন নানা প্রচারণা। অনেকে আবার নিজের প্রোফাইল ও কভার ফটো পছন্দের দলের পতাকা এবং খেলোয়াড়ের ছবি দিয়ে সাজিয়েছেন। এতেই শেষ নয় বিশ^কাপ ফুটবল যতই কাছে আসছে ততই ভীড় বাড়ছে পতাকা তৈরির দোকান আর পছন্দের দলের জার্সির দোকানে। পাশাপাশি ছোট ছোট বিক্রেতারা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দেশের পতাকা কাধে নিয়ে ফেরী করে বেড়াচ্ছে। অবশ্যই বাংলাদেশের পতাকাতো রয়েছেই।

রবিবার সকালে শহরের এন্ডারসন রোড, পৌরসভা মার্কেট, হর্কাস মার্কেট, গোলদিঘীর পাড়, হাসপাতাল সড়ক, বার্মিজ মার্কেটসহ একাধিক এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে বিশ^কাপ ফুটবলকে ঘিরে আগাম উন্মাদনার দৃশ্য চোখে পড়েছে। বিভিন্ন দোকানে গিয়ে জানা গেছে- ভাল কাপড়ের প্রতিটি জার্সি বিক্রি হচ্ছে ৫০০ থেকে ৬০০ টাকায়। আবার কিছু কিছু জার্সি বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩০০ টাকার মধ্যে। বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা যায়-এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি বিক্রিত জার্সির মধ্যে আছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার। তবে জার্মানি, ইতালি, স্পেনের জার্সির ও পতাকার চাহিদাও রয়েছে।

শহরের বৌদ্ধ মন্দির সড়কে পতাকা বিক্রিরত অবস্থায় কথা হয় আবুল কাশেমের সাথে। তিনি এই প্রতিবেদককে জানান-ভালই বিক্রি হচ্ছে, ক্রেতাদেরও চাহিদা আছে। স্কুলের শিক্ষার্থীদের বেশী পতাকা বিক্রি করছেন বলে জানান কাশেম। শহরের গোলদিঘীর পাড়ের ব্যবসায়ী আর্জেন্টিনা ভক্ত কিরণ পাল বলেন-আমি ছোটকাল থেকেই ম্যারাডোনা ভক্ত হয়ে আর্জেন্টিনার সার্পোট করছি। খেলা শুরুর এখনো অনেক দিন বাকী থাকলেও প্রিয় দলের প্রতি অন্তরের টান থেকেই আগেভাগে পতাকা টাঙ্গিয়েছি।

অন্যদিকে ব্রাজিলের পাগল ভক্ত তরুন কণ্ঠশিল্পী প্রবাল পাল বলেন-আমি ছোটকাল থেকেই ব্রাজিলকে সাপোর্ট করি। এর একমাত্র কারণ ব্রাজিলের খেলোয়াড়দের পায়ের নৈপুণ্য মানুষকে মুগ্ধ করে। আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল কিংবা অন্যকোন দলের পতাকা তুলুক না কেন আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল কিংবা অন্য ফুটবল দলের সমর্থক যেই হোক না কেন সকলে বাংলাদেশের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সব পতাকার উপরেই বাংলাদেশের পতাকাকে সম্মান করে রাখছেন।

উল্লেখ্য-১৪ জুন থেকে রাশিয়ায় বসতে যাচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর। বিশ্বকাপের ২১ তম আসরে আটটি গ্রুপে খেলবে মোট ৩২টি দল। পাঁচ বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল ও দুই বারের বিশ^ চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা এবারও মনযোগের কেন্দ্রে থাকবে বাংলাদেশের অধিকাংশ ফুটবল অনুরাগীদের কাছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •