প্রধানমন্ত্রী কী এনেছেন, জানতে চান এরশাদ

প্রধানমন্ত্রী কী এনেছেন, জানতে চান এরশাদ

প্রধানমন্ত্রী ভারত সফর থেকে দেশের জন্য কী এনেছেন তা জানতে চান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ভারত থেকে অামাদের জন্য কি এনেছেন? অামরা জানি না, জানতে চাই। তিস্তার কোনো সমাধান কি করতে পেরেছেন? অাশা করি, উনি এ বিষয়ে সুস্পষ্ট বক্তব্য রাখবেন।

শনিবার রাজধানীর বিজয়নগরে একটি হোটেলে জাতীয় ইসলামী মহাজোট অায়োজিত অালোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, মাদক নির্মূলের নামে যাদের হত্যা করছেন তারা এদেশের নাগরিক। মানুষ মারার অধিকার অাপনাদের কে দিয়েছে? দেশে কি অাইন বা অাদালত নেই।

এরশাদ বলেন, রমজান শান্তি ও সংযমের মাস। কিন্তু অামরা কেউ শান্তি ও স্বস্তিতে নেই। অাগামীকাল কে বন্দুকযুদ্ধের শিকার হবো অামরা কেউ জানি না। রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের কথা বললেও পারেননি।

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, রোহিঙ্গাদের দেখতে অনেকে যাচ্ছে। অনেক প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে কিন্তু তাদের প্রতিশ্রুতির কোনো মূল্য নেই। নোম্যান্স ল্যান্ডে দুর্বিষহ জীবন-যাপন করছে সাড়ে চার লাখ রোহিঙ্গা। তাদের বাংলাদেশে নিয়ে অাসুন। ১০ লাখ রোহিঙ্গাকে খাওয়াতে পারলে অারও চার লাখ মানুষকেও খাওয়াতে পারবেন।

তিনি অারও বলেন, ইসলামী রাষ্ট্রগুলো অাজ বিচ্ছিন্ন। কারও সঙ্গে কারো মিল নেই। ফিলিস্তিনিসহ অনেক মুসলিম রাষ্ট্র অাজ নিগৃহীত। তাদের পক্ষে বলার কেউ নাই। মুসলমান রাষ্ট্রগুলো নীরব। ফিলিস্তিনিরা নিজ দেশেই অাজ ইসরাইলিদের দ্বারা হত্যার শিকার হচ্ছে, বিশ্ব বিবেক নীরব।

এইচ এম এরশাদ বলেন, দেশেও অামরা সবাই ঐক্যবদ্ধ নই। সবাই ঐক্যবদ্ধ থাকলে এদেশে কেউ ইসলাম বিনষ্ট করার সাহস পাবে না। সব ইসলামী দলের প্রতি অাহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, অাসুন সব ইসলামীদল একত্রিত হয়ে নির্বাচন অংশ নেই। যাতে অামরা ইসলামের সেবা করতে পারি।

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজার-চট্টগ্রাম সড়কে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

হোটেল সীগালে অগ্নি প্রতিরোধ, নির্বাপন ও চিকিৎসা বিষয়ক প্রশিক্ষণ

নাইক্ষ্যংছড়িতে ৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকার উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করলেন বীর বাহাদুর

প্রেমিককে ভিডিও কলে রেখেই ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে পড়েন প্রেমিকা

‘২ বছরের মধ্যে কুতুবদিয়ায় জাতীয় গ্রীড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত হবে’

ঈদগাঁওতে যুবলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

সুপারবাগ: বাংলাদেশে আইসিইউ-তে রোগী মৃত্যুর বড় কারণ!

৪০ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলায় কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের প্রথম স্থান অর্জন

পান-সিগারেট খেয়ে ক্লাসে যেতে পারবেন না শিক্ষকরা

যুবলীগ নেতাসহ দুই যুবককে ছুরিকাঘাত করলো কেরুনতলীর সন্ত্রাসীরা

বনানী কবরস্থানে জায়ানের দাফন সম্পন্ন

ঈদগাঁওতে পল্লীবিদ্যুতের ভেল্কিবাজিতে  জনজীবন অতিষ্ঠ

মহেশখালীতে প্রেমপ্রস্তাবে ব্যর্থ হয়ে তরুণীকে ধর্ষণের চেষ্টা ও হামলা আহত ২

সিএসবি সম্পাদক পলাশ বড়ুয়া’র জন্মদিন উদযাপন

ফোন চুরি যাওয়ায় সাংবাদিকদের আটকে রাখলেন শমী কায়সার!

টেকনাফে ইয়াবাসহ ৪ যুবক আটক

শ্রীলঙ্কায় হামলা : পদত্যাগ করছেন পুলিশের আইজি

মার্চ জুড়ে নির্বাচন সত্বেও আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক থাকায় এসপি’র সন্তোষ প্রকাশ

ভোটের হার কমে যাওয়ার কারণ খুঁজে পেয়েছেন ইসি সচিব হেলালুদ্দীন

মদ খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে এইচএসসি পরীক্ষার্থী নিহত