রামুর গর্জনিয়া বাজার-দৌছড়ি সড়কের বহাল দশা

হাবিবুর রহমান সোহেল, নাইক্ষ্যংছড়ি :

কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া বাজার দৌছড়ি সড়ক বর্তমানে বেহাল অবস্থায় দাড়িয়েছে। সড়কটি যেন অভিভাবক হীন হয়ে পড়েছে, যা দেখার কেউ নেই। এভাবে কি চলা যায় বলে মন্তব্য করেছেন চলার পথের হাজারও মানুষ।
সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়,  এ সড়কটি দীর্ঘ দিন ধরে অযন্ত অবহেলায় পড়ে থাকায় সংস্কারের অভাবে সড়কটিতে প্রায় জায়গায় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া চলতি বর্ষার বৃষ্টির পানিতে গর্ত গুলো একাকার হয়ে পড়ায় গাড়ি চলাচলের পাশাপাশি জন সাধারণ চলাচলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কচিকাচা স্কুল, মাদ্রাসা,কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীদের আরো বেশি কষ্ট হচ্ছে প্রতিনিয়ত। বিশেষ করে গর্জনিয়া পুলিশ ফাড়িঁ হতে ডাকবাংলা মোড় পর্যন্ত সড়কের অবস্থা বেশি খারাপ হয়েছে। ওই পযন্ত সড়ক যেন বাকখালী নদীতে পরিনত হয়েছে।  কাঁদা যুক্ত সড়কটিতে কোনমতেই চলাচল করতে পারছেনা এলাকাবাসীর পাশাপাশি জেলা শহর থেকে আসা লক্ষাধিক মানুষ। অপরদিকে এই রমযানে মুসল্লিরা মসজিদে ঠিকমত নামাজ আদায় করতে যেতে পারছেনা। এলেকার সচেতন মহল অভিযোগ করেছেন, মিয়ানমার সিমান্তে যাওয়ার এক মাত্র সড়কটির অবস্থা যদি এমনই হয় তাহলে, কোন জরুরী মুহুর্তে সিমান্ত রক্ষী বাহিনী বা নিরাপত্তা বাহিনীর জরুরী চলাচলের কি হবে?। এমন প্রশ্ন এখন গর্জনিয়া কচ্ছপিয়ার সর্ব সাধারনের। সড়কটির গর্ত গুলোতে জমে থাকা পানি নিস্কাসনের কোন ব্যবস্থা নেই। যার কারনে ব্যবসায়ীরা দোকানের জন্য মালামালও নিতে পারছেনা। এ ব্যাপারে ওই এলাকার বাসীন্দা ডাঃ শফিক জানান, প্রায় লক্ষাধীক লোকের চলাচলের পুরো এলেকাটিতে নেই কোন পরিকল্পিত ডেনেজ ব্যবস্থা। সড়কগুলো কাঁদা পানিতে ভরপুর। দিনের বেলায় যেমন তেমন সন্ধ্যার পরেই ভুতুডে পরিবেশ সৃষ্টি হয়। পুরো রমজানে মাসে এ অবস্থা বিরাজ থাকলে তারাবি নামাজের ব্যাপক ব্যাঘাত ঘটবে বলে জানান ধর্ম প্রান মানুষ। কারণ মুসল্লীরা ঠিকমত নামাজে যেতে পারবেনা সড়কে পানি জমে থাকায়। জন গুরুপূর্ণ এ সড়কটির কথা মনে হয় ভূলে গেছেন সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও এলজিইডি বিভাগ। গত ৫/৬ বছরে নেই তেমন কোন সংস্কার এ সড়কের। অনেকেই আক্ষেপ করে বলেন এলাকায় তেমন একটা দেখা মিলেনা ওই সড়কের সংশ্লিষ্ট কাউকে। এলেকার জন প্রতিনিধি তথা চেয়ারম্যান আবু নোমান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এপর্যন্ত এখানে চোখে পড়ার মতো কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেনি বলে জানান কচ্ছপিয়া ইউপি সদস্যরা। তাই সত্বর সড়কটি সংস্কার করে জন দূর্ভোগ লাঘব করার জন্য সংশ্লীষ্ট কতৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসী। এই ব্যপারে কথা বলতে কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু নোমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি জানান, রাস্তাটির কাজ ইতি মধ্যে টেন্ডার হয়েছে। সময় মত কাজ শুরু হবে।
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

টেকনাফ উপজেলা যুবদলের কমিটি গঠিত

সাপ্তাহিক মাতামুহুরী’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

টেকনাফে র‌্যাবের পৃথক অভিযানে বিদেশী মদ বিয়ারসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

টেকনাফে হত্যা ও মানব পাচার মামলার আসামী গ্রেফতার

চকরিয়ায় ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

খালেকুজ্জামান বেঁচে আছেন জনতার মাঝে

মরহুম এড. খালেকুজ্জামান স্মরণে ৫ম দিনেও বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

`রাঙামাটির রূপ দিনদিন হারিয়ে যেতে চলেছে’

বান্দরবানে শ্রেষ্ঠ উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা কালাম হোসেন

বর্তমান সরকারই পাহাড়ের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে : বীর বাহাদুর এমপি

কুতুবদিয়ায় শহীদ উদ্দিন ছোটনসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ফের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

লামায় ক্যাম্প প্রত্যাহার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ ও রাজার সনদ বাতিল দাবীতে মানববন্ধন

লবণ আমদানি হবেনা, মজুদদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা -শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

১ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিকটন লবণ উদ্বৃত্ত, তবু আমদানির চক্রান্ত

ঈদগাঁও থেকে দোকানদার অপহরণঃ ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী!

‘হিংসাবিহীন মানুষ পাওয়া কঠিন’

যখন দশম শ্রেণির ছাত্রী এই সময়ের পিয়া

উখিয়ায় অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন এসিল্যান্ড একরামুল ছিদ্দিক

কক্সবাজার শহরে বেড়েই চলছে চুরি ছিনতাই

হোটেল সী-গালের সংবর্ধনায় সিক্ত মেয়র মুজিবুর রহমান