রামুর গর্জনিয়া বাজার-দৌছড়ি সড়কের বহাল দশা

হাবিবুর রহমান সোহেল, নাইক্ষ্যংছড়ি :

কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া বাজার দৌছড়ি সড়ক বর্তমানে বেহাল অবস্থায় দাড়িয়েছে। সড়কটি যেন অভিভাবক হীন হয়ে পড়েছে, যা দেখার কেউ নেই। এভাবে কি চলা যায় বলে মন্তব্য করেছেন চলার পথের হাজারও মানুষ।
সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়,  এ সড়কটি দীর্ঘ দিন ধরে অযন্ত অবহেলায় পড়ে থাকায় সংস্কারের অভাবে সড়কটিতে প্রায় জায়গায় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া চলতি বর্ষার বৃষ্টির পানিতে গর্ত গুলো একাকার হয়ে পড়ায় গাড়ি চলাচলের পাশাপাশি জন সাধারণ চলাচলে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। কচিকাচা স্কুল, মাদ্রাসা,কলেজ পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীদের আরো বেশি কষ্ট হচ্ছে প্রতিনিয়ত। বিশেষ করে গর্জনিয়া পুলিশ ফাড়িঁ হতে ডাকবাংলা মোড় পর্যন্ত সড়কের অবস্থা বেশি খারাপ হয়েছে। ওই পযন্ত সড়ক যেন বাকখালী নদীতে পরিনত হয়েছে।  কাঁদা যুক্ত সড়কটিতে কোনমতেই চলাচল করতে পারছেনা এলাকাবাসীর পাশাপাশি জেলা শহর থেকে আসা লক্ষাধিক মানুষ। অপরদিকে এই রমযানে মুসল্লিরা মসজিদে ঠিকমত নামাজ আদায় করতে যেতে পারছেনা। এলেকার সচেতন মহল অভিযোগ করেছেন, মিয়ানমার সিমান্তে যাওয়ার এক মাত্র সড়কটির অবস্থা যদি এমনই হয় তাহলে, কোন জরুরী মুহুর্তে সিমান্ত রক্ষী বাহিনী বা নিরাপত্তা বাহিনীর জরুরী চলাচলের কি হবে?। এমন প্রশ্ন এখন গর্জনিয়া কচ্ছপিয়ার সর্ব সাধারনের। সড়কটির গর্ত গুলোতে জমে থাকা পানি নিস্কাসনের কোন ব্যবস্থা নেই। যার কারনে ব্যবসায়ীরা দোকানের জন্য মালামালও নিতে পারছেনা। এ ব্যাপারে ওই এলাকার বাসীন্দা ডাঃ শফিক জানান, প্রায় লক্ষাধীক লোকের চলাচলের পুরো এলেকাটিতে নেই কোন পরিকল্পিত ডেনেজ ব্যবস্থা। সড়কগুলো কাঁদা পানিতে ভরপুর। দিনের বেলায় যেমন তেমন সন্ধ্যার পরেই ভুতুডে পরিবেশ সৃষ্টি হয়। পুরো রমজানে মাসে এ অবস্থা বিরাজ থাকলে তারাবি নামাজের ব্যাপক ব্যাঘাত ঘটবে বলে জানান ধর্ম প্রান মানুষ। কারণ মুসল্লীরা ঠিকমত নামাজে যেতে পারবেনা সড়কে পানি জমে থাকায়। জন গুরুপূর্ণ এ সড়কটির কথা মনে হয় ভূলে গেছেন সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও এলজিইডি বিভাগ। গত ৫/৬ বছরে নেই তেমন কোন সংস্কার এ সড়কের। অনেকেই আক্ষেপ করে বলেন এলাকায় তেমন একটা দেখা মিলেনা ওই সড়কের সংশ্লিষ্ট কাউকে। এলেকার জন প্রতিনিধি তথা চেয়ারম্যান আবু নোমান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এপর্যন্ত এখানে চোখে পড়ার মতো কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেনি বলে জানান কচ্ছপিয়া ইউপি সদস্যরা। তাই সত্বর সড়কটি সংস্কার করে জন দূর্ভোগ লাঘব করার জন্য সংশ্লীষ্ট কতৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসী। এই ব্যপারে কথা বলতে কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু নোমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে, তিনি জানান, রাস্তাটির কাজ ইতি মধ্যে টেন্ডার হয়েছে। সময় মত কাজ শুরু হবে।
কক্সবাজার নিউজ সিবিএন’এ প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ।

সর্বশেষ সংবাদ

পেকুয়ায় প্রবাহমান খালে মাটি ভরাট করলেন প্রভাবশালী

কোনাখালীতে দোকান পুড়ে ছাই

বুবলীর সঙ্গে শাকিবের বিয়ে, গুঞ্জন নাকি সত্যি?

সাবেক ডিসি ও ইউএনওসহ তিনজনের কারাদণ্ড

ইয়াবাসহ আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা আটক

চকরিয়া উগ্রবাদ ও সহিংসতা প্রতিরোধে দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ

চকরিয়ায় কথিত চিকিৎসকের ভূল চিকিৎসার শিকার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী

রামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫

মালুমঘাটে প্রভাবশালীর সহযোগিতায় চলছে বাল্য বিবাহ!

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে দফায় দফায় সংঘর্ষ

নিরাপদ সড়ক চাই: নিজে বাঁচব, অপরকে বাঁচাব

বিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্ত

চবি উপাচার্যের সাথে মিশর আল আযহার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধি দলের সাক্ষাৎ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে সংবর্ধনা

বিমানবন্দর থেকে ইয়াবাসহ বরিশালের দুই তরুণী আটক

ইয়াবা পাচারের দায়ে টেকনাফের যুবকের ১০ বছর জেল

মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে আ. লীগের মনোনয়ন পাচ্ছেন সিরাজুল মোস্তফা!

উলঙ্গ থাকার বিধান কী?

গ্যারেজে চাকরি করা প্রবাসী, কাগজ ব্যবসায় কোটিপতি

হঠাৎ স্যামসাং স্মার্টফোন বিস্ফোরণ! তারপর…