পেকুয়ায় ইউপি সদস্যকে অপহরণ চেষ্টা, বসতবাড়িতে ভাংচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পেকুয়ায় বুলবুল জান্নাত নামের এক ইউপি সদস্যকে অপহরণ চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। তিনি পেকুয়া সদর ইউনিয়ন পরিষদের ১,২ ও ৩ ওয়ার্ড এবং পেকুয়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য।

বৃহস্পতিবার (২৪মে) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পূর্ব গোয়াখালী এলাকায় ঘটে। এসময় স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে।

ভুক্তভোগীর ছেলে সাংবাদিক ইমরান হোসাইন বলেন, চাঁদার দাবীতে দীর্ঘদিন ধরে আমাদের পৈত্রিক বসতভিটে জবর দখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল একটি চক্র। এরই ধারাবাহিকতায় গত বৃহস্পতিবার সকালে বসতবাড়ির সীমানা প্রাচীর সংস্কার করাকালীন একই এলাকার মৃত ফজল করিমের ছেলে মোঃ কালু, তার স্ত্রী ছেনুয়ারা বেগম, মৃত আবুল খাইরের ছেলে সাহাব উদ্দিন, তার স্ত্রী মমতাজ বেগম, জাফর আলম, আবুল কালাম, মোঃ আজিজ, মহি উদ্দিন ও আব্দুর রশিদ আমার মায়ের উপর হামলা ও তাকে অপহরণ চেষ্টা চালায়। এসময় আমাদের বসতবাড়িতে ব্যাপক ভাংচুর চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এব্যাপারে আমরা আইনের আশ্রয় নিয়েছি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) জহিরুল ইসলাম খান বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

রামিসার জানাজা বাদে এশা

প্রভাষক ইকবালের মেয়ে কলেজ ছাত্রী রামিসা মালিয়াতের অকাল মৃত্যু : সর্বত্র শোক

অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে রোহিঙ্গারা,ইন্দন যোগাচ্ছে এনজিও

টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ

সন্তানের জীবন ধ্বংসের অন্যতম কারন হারাম উপার্জন

ওসি মোয়াজ্জেম আদালতে

ভুঁয়া ফেসবুক আইডিতে অপপ্রচারকারী প্রতারককে ধরিয়ে দিন -লায়ন মুজিব

সিবিএন’র রেকর্ড: ২৪ ঘন্টায় এক প্রতিবেদন লক্ষাধিক শেয়ার!

ইতালিতে আন্তর্জাতিক ব্যাংকার সম্মেলনে শাহজাহান মনির

স্কুলে পাকা সিঁড়ি না থাকায় ঘটছে দুর্ঘটনা

ওসির দায়িত্ব পাচ্ছেন অ্যাডিশনাল এসপি

ট্রাম্পের নামে ইসরায়েলের অবৈধ বসতির উদ্বোধন

প্রথমবারের মতো মিয়ানমারের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে জাতিসংঘ

ব্যক্তির অপকর্মের দায় কেন নেবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন

আজ নির্বিঘ্নেই হবে বাংলাদেশের ম্যাচ!

ওসি মোয়াজ্জেমকে ফেনী পুলিশের কাছে হস্তান্তর

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের মাসিক সমন্বয় সভা

আমেরিকা-বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের আজীবন সম্মাননা পেলেন নায়িকা মৌসুমী

পেটের দায়ে রিকশা চালাচ্ছে রুমানা!

৪৭ বছরের অন্ধকার থেকে মুক্ত হলো ৪৮ হাজার মানুষ